Author Topic: বদহজমের খাবারগুলো  (Read 518 times)

Offline Karim Sarker(Sohel)

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 521
  • Test
    • View Profile
বদহজমের খাবারগুলো
« on: January 07, 2015, 05:22:20 PM »
১/ ভুট্টা: যদিও উপকারী ফাইবারে পরিপূর্ণ। তারপরও ভুট্টায় থাকা সেলুলোজ হজম হতে সময় নেয়।

২/ অ্যালকোহল, কফি, চা এবং বিভিন্ন পানীয়: এসবে পাকস্থলীর রস নিঃসরণ বাড়িয়ে দেয়। যাদের গ্যাস্ট্রোইসোফাজিয়েল  রিফ্লাক্স ডিজিজ বা জিইআরডি সমস্যা আছে তাদের জন্য এটি ক্ষতিকারক।

৩/ মরিচ: স্বাদ বাড়ানোর জন্য অনেকেই খাবারের সঙ্গে মরিচের গুঁড়া বা ঝাল মিশিয়ে থাকেন। এসব মসলা খাদ্যনালীতে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করতে পারে। তাছাড়া যাদের জিইআরডি’র সমস্যা আছে তাদের জন্য এটি ক্ষতিকারক।

৪/বিভিন্ন ধরনের বেরি (যেমন স্ট্রবেরি): বেরি ফ্রি-রেডিকেলস এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানে ভরপুর। তবে এর ভিতরে থাকা ছোট বীজ বা দানা ডাইভারটিকাল্টিস বা পাকস্থলির উপরের অংশে প্রদাহ বা সংক্রমণ তৈরি করতে পারে।

৫/ চকলেট: খেতে প্রায় সবাই ভালোবাসেন। তবে যাদের ইরিটাবল বওয়াল সিনড্রোম (আইবিএস) সমস্যা আছে তাদের চকলেট খাওয়া উচিত নয়। তাছাড়া চকলেটে থাকা ক্যাফেইন এবং দুধ হজম প্রক্রিয়ায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

৬/ চর্বি জাতীয় ও তেলে ভাজা খাবার: জিইআরডি এবং আইবিএস’য়ে আক্রান্ত রোগীর চর্বিযুক্ত এবং অতিরিক্ত তেলে ভাজা খাবার খাওয়া উচিত নয়। এসব খাবার হৃদযন্ত্র, রক্তনালী ও ধমনীর স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকারক।

collected
Md. Karim Sarker (Sohel)
Administrative Officer
Daffodil International University
Uttara Campus.
Ph-58952710, Ex-201
Mob-01847140030

Offline azad.ns

  • Jr. Member
  • **
  • Posts: 52
  • Test
    • View Profile
Re: বদহজমের খাবারগুলো
« Reply #1 on: June 16, 2017, 08:00:12 PM »
১/ ভুট্টা: যদিও উপকারী ফাইবারে পরিপূর্ণ। তারপরও ভুট্টায় থাকা সেলুলোজ হজম হতে সময় নেয়।

২/ অ্যালকোহল, কফি, চা এবং বিভিন্ন পানীয়: এসবে পাকস্থলীর রস নিঃসরণ বাড়িয়ে দেয়। যাদের গ্যাস্ট্রোইসোফাজিয়েল  রিফ্লাক্স ডিজিজ বা জিইআরডি সমস্যা আছে তাদের জন্য এটি ক্ষতিকারক।

৩/ মরিচ: স্বাদ বাড়ানোর জন্য অনেকেই খাবারের সঙ্গে মরিচের গুঁড়া বা ঝাল মিশিয়ে থাকেন। এসব মসলা খাদ্যনালীতে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করতে পারে। তাছাড়া যাদের জিইআরডি’র সমস্যা আছে তাদের জন্য এটি ক্ষতিকারক।

৪/বিভিন্ন ধরনের বেরি (যেমন স্ট্রবেরি): বেরি ফ্রি-রেডিকেলস এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদানে ভরপুর। তবে এর ভিতরে থাকা ছোট বীজ বা দানা ডাইভারটিকাল্টিস বা পাকস্থলির উপরের অংশে প্রদাহ বা সংক্রমণ তৈরি করতে পারে।

৫/ চকলেট: খেতে প্রায় সবাই ভালোবাসেন। তবে যাদের ইরিটাবল বওয়াল সিনড্রোম (আইবিএস) সমস্যা আছে তাদের চকলেট খাওয়া উচিত নয়। তাছাড়া চকলেটে থাকা ক্যাফেইন এবং দুধ হজম প্রক্রিয়ায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।

৬/ চর্বি জাতীয় ও তেলে ভাজা খাবার: জিইআরডি এবং আইবিএস’য়ে আক্রান্ত রোগীর চর্বিযুক্ত এবং অতিরিক্ত তেলে ভাজা খাবার খাওয়া উচিত নয়। এসব খাবার হৃদযন্ত্র, রক্তনালী ও ধমনীর স্বাস্থ্যের জন্যও ক্ষতিকারক।