Author Topic: নতুন ফোন কেনার আগে যে বিষয়গুলো বিবেচনা করা উচিত  (Read 525 times)

Offline Sahadat

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 305
  • Test
    • View Profile
মোবাইল ফোন কেনার আগে সবাই নানা প্রশ্ন করে থাকে বন্ধুমহলে অথবা অনলাইনে ফোন রিভিউ দেখে থাকে। এবং সবসময় উদ্বিগ্ন থাকে যে, সঠিক ফোন কেনা হচ্ছে কিনা। তাই এখানে দরকারি কিছু বিষয়ের কথা উল্লেখ করা হল যেগুলো ফোন কেনার সময় দেখে নেয়া উচিত।

সঠিক নকশা খুঁজুন
স্মার্ট ফোনের ক্ষেত্রে নকশা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বিষয়ে কারো কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়ার কিছু নেই। এটা একান্ত নিজের রুচির ব্যাপার। নিশ্চিত হন যে দেখতে সুন্দর হলেও তা আপনার কতোটা কমফর্ট্যাবল। আরও খেয়াল রাখুন ফোনটা আপনার ব্যাক্ত্বিতের সাথে কতটা মানানসই।

সঠিক আকারের ডিসপ্লে
স্ক্রিনের আকারটি সবাই দেখেন নতুন মোবাইল কেনার সময়। এখন বড় স্ক্রিনের মোবাইল বেশি জনপ্রিয়। তবে সহজে বহন করতে চাইলে ছোট পর্দার মোবাইল নেওয়া উচিত। চার ইঞ্চি বা সাড়ে চার ইঞ্চি বা পাঁচ ইঞ্চি পর্দার মোবাইল ফোনেরও বেশ চাহিদা রয়েছে।

প্রসেসর
বর্তমান সময়ে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর প্রায় সব ফোনেই। ৮০৫ চিপসেটটি খুব ভালো মানের। ফোনের কার্যক্রমে দ্রুততা দেবে র‌্যাম। ফোন কিনতে বেশ কিছু অর্থ ব্যয় করলে এক জিবি র‌্যামই যথেষ্ট। তবে অল্প কিছু অর্থযোগে বা পছন্দ পরিবর্তনে ২ জিবির ব্যবস্থা করা গেলে অনেক ভালো। আধুনিক মোবাইলগুলো ৩ জিবি পর্যন্ত র‌্যাম নিয়ে বাজারে আসছে।

ক্যামেরা রেজ্যুলেশন কেমন
ক্যামেরা রেজ্যুলেশনটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর মধ্যে একটিও নয়। কারণ ভালো মানের ছবি তোলার কাজ ক্যামেরার, মোবাইল ফোনের নয়। বেশি রেজ্যুলেশনের মোবাইল ক্যামেরার ছবি কিছুটা ভালো আসে।

ব্যাটারির লাইফ
ব্যাটারির শক্তি নির্ধারিত হয় মোবাইল ফোনটি কেমন তার ওপর ভিত্তি করে। তবে বড় মাপের স্ক্রিনের মোবাইল বেশি ব্যাটারি শক্তি ক্ষয় করে। তাই শক্তিশালী ব্যাটারি প্রয়োজন হবে মোবাইলটি অনেক সময় ধরে চালু রাখার জন্য। এখন ৩০০০ এমএএইচ সবচেয়ে বেশি শক্তির ব্যাটারি হিসেবে বাজারে চালু রয়েছে।

ওয়্যারলেস ক্যারিয়ার
আমাদের দেশে সবেমাত্র থ্রি-জি কানেকশন চালু হয়েছে। ডাটা কানেকশনের গতি নির্ভর করে এর ওপর। আরো দ্রুত কানেকশন দেয় ফোর-জি। এ যুগের স্মার্ট ফোনের জন্য থ্রি-জি কানেকশন নিতে পারে এমন মোবাইল বেশি ভালো।

অপারেটিং সিস্টেম
মৌলিক কয়েকটি অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড এখনকার সবচেয়ে জনপ্রিয় সিস্টেম। এদিকে আইফোনের রয়েছে আইওএস যার সাম্প্রতিকতম সংস্করণ হলো আইওএস ৭। আবার উইন্ডোজ অপারেটিংয়ের ভক্তের সংখ্যাও কম নয়। আর অপারেটিং সিস্টেমের ওপর ভিত্তি করেই গোটা ফোনের সব কার্যক্রম নির্ধারিত হয়।
Sahadat