Author Topic: Telecommunication News  (Read 8046 times)

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
ওরাসকম ভিনটেলকম একীভূত
« Reply #15 on: October 11, 2010, 10:24:43 AM »
দুই কোম্পানির মধ্যে চুক্তি

দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের মূল কোম্পানি ওরাসকম টেলিকম হোল্ডিং এবং রাশিয়ার টেলিকম কোম্পানি ভিনটেলকম একীভূত হয়েছে। সোমবার রাশিয়ায় দুই কোম্পানির মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এর ফলে এটি বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম কোম্পানিতে পরিণত হল। সারাবিশ্বে এখন তাদের গ্রাহক সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ কোটিতে।

ঢাকায় বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই চুক্তির ফলে এখনই তাদের কোন পরিবর্তন হবে না। তবে দীর্ঘমেয়াদে বাংলালিংকের গ্রাহকসেবা ও অন্যান্য ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে। এর আগে ২০০৮ সালে বাংলালিংক এবং রবি (তৎকালীন একটেল) একীভূত হওয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তা বাস্তবায়িত হয়নি। এর আগে ২০০৫ সালে সেবা টেলিকম থেকে বাংলালিংক নাম ধারণ করে।

 

[ রাজধানী ]  2010-10-08

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
নতুন চমক দেওয়াই Google এর কাজ। তেমনি এক চমক হচ্ছে চালকবিহীন  গাড়ি। একটি গাড়ি চালক ছাড়া, এখানে রয়েছে একটি মানুষা যার নেই ব্রেন, আর রয়েছে একটি ম্যাপ যার কোন ব্যবহার কারির প্রয়োজন নেই।


google car Google তৈরি করল চালকবিহীন গাড়ি robot car, যা কি না নিজে নিজেই চলবে?

গাড়িটির কার্যকারিতা পরীক্ষা করে দেখেছেন ১০-১০-২০১০ তারিখে। এ দিনে গাড়িটি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের বিভিন্ন সড়কে  নিজে নিজে চলে।  এটির রয়েছে ৩৬০ ডিগ্রি দেখার সুবিধা। একটি রোবট ড্রাইভার এটি নিয়ন্ত্রন করে।

google car drives themselves Google তৈরি করল চালকবিহীন গাড়ি robot car, যা কি না নিজে নিজেই চলবে?

অন্য যানবাহন দেখার জন্য গাড়িটির ছাদে কয়েকটি ভিডিও ক্যামেরা,  সেন্সর ও লেজার রশ্মির ফাইন্ডার রয়েছে। কোন কোন পথ দিয়ে এটি যাবে, তা আগে থেকেই প্রোগ্রাম করা ছিল। সে অনুযায়ী গাড়িটি চলেছে। Google বলেছে গাড়িটি এরই মধ্যে এক লাখ ৪০ হাজার মাইল পথ অতিক্রম করেছে।

গাড়িটির লক্ষ্যঃ সড়কে মানুষের চলাচল নিরাপদ করাই Google এর  এই প্রকল্পের প্রধান লক্ষ্য। বিশ্বে প্রতিবছর ১২ লাখ মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যায়। এ থকে রেহাই পেতে চালকবিহীন এই গাড়ি তৈরি করা হয়েছে। Google আশা করছে, গাড়িটি একসময় যানজট কমাতে ও দুর্ঘটনা রোধে সহায়তা করবে। এটি কল ট্রাফিক আইন মেনে চলবে, লেন মেনে চলবে এবং গতি মেনে চলবে।

তারা বলে

“Our goal is to help prevent traffic accidents, free up people’s time and reduce carbon emissions by fundamentally changing car use”


google car Google তৈরি করল চালকবিহীন গাড়ি robot car, যা কি না নিজে নিজেই চলবে? | T
তবে গাড়িটি এখনো বাজার জাত করার অনুমতি পায় নি। এটি ছিলো পরীক্ষা মূলোক।

এখানে গিয়ে ভিডিও দেখতে পারবেন।

Quote
http://www.youtube.com/watch?v=6LYi2NAi8zE
11.10.2010

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
এমএনপি প্রক্রিয়ায় প্রবেশ করেছে বাংলালিংক। এর মাধ্যমে একজন গ্রাহক তার ফোন নাম্বারের কোনো পরিবর্তন না করেই যে কোনো অপারেটরকে বাছাই করে নিতে পারেন। এর মধ্য দিয়ে সত্যিকার অর্থেই গ্রাহকরা তাদের সেরা পছন্দটিকে বেছে নিতে পারেন। ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার দেশগুলোর পাশাপাশি মিসর ও পাকিস্তানের মতো দেশেও গ্রাহকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে এই প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হচ্ছে।
এমএনপির মাধ্যমে গ্রাহকরা সেরা কভারেজ বা মানস¤পন্ন নেটওয়ার্ক বাছাই করে তাতে যুক্ত হতে পারেন। এ ছাড়া গ্রাহকরা কম খরচে ইচ্ছেমতো অপারেটর পছন্দ করে এই প্রক্রিয়ায় নির্বিঘেÅ“ টেলিসুবিধা উপভোগ করেন।


   [ শিল্প বাণিজ্য ]  2010-10-13

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile

দেশের সাতটি বিভাগে বাংলালায়ন ওয়াইম্যাক্সের সেবা কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন উপলক্ষে গতকাল ঢাকা শেরাটন হোটেলে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন রাষ্ট্রপতি মো: জিল্লুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ, শিল্পমন্ত্রী দীলিপ বড়ুয়া, বাণিজ্যমন্ত্রী মো: ফারুক খান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলালায়ন কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান মেজর (অব:) আবদুল মান্নান। বিজ্ঞপ্তি।


  [ ]  2010-10-12

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile

আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন (আইটিইউ)-এর নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বাংলাদেশ নির্বাচিত হয়েছে। ১৯২ সদস্যবিশিষ্ট টেলিযোগাযোগ খাতের এ বিশ্ব সংস্থাটির ৪৮ কাউন্সিল সদস্য পদের জন্য ১৬১ সদস্য দেশ নির্বাচনে ভোট প্রদান করে। বাংলাদেশ ১২৩ ভোট পেয়ে এশিয়া-অস্ট্রেলিয়া অঞ্চলের নির্ধারিত ১৩টি আসনের মধ্যে ৬ষ্ঠ স্থান লাভ করেছে। গত সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় মেক্সিকোতে ২০১০-১৪ সাল মেয়াদের জন্য কাউন্সিল সদস্য পদের এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।
এশিয়া-অস্ট্রেলিয়া অঞ্চলে ১৩টি আসনের জন্য ১৭টি দেশ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দি্বতা করে। এ অঞ্চলের জন্য ইন্দোনেশিয়া ১৩৫ ভোট, চীন ১৩৪, জাপান ১৩৩, মালয়েশিয়া ১২৭, কোরিয়া রিপাবলিক ১২৫, বাংলাদেশ ১২৩, থাইল্যান্ড ১২১, অস্ট্রেলিয়া ১১৯, ভারত ১১৯, সংযুক্ত আরব আমিরাত ১১৪, কুয়েত ১০৮, সৌদিআরব ১০৫ এবং ফিলিপাইন সর্বাধিক ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান ৯৩, শ্রীলঙ্কা ৭৯, লেবানন ৭৫ এবং সিরিয়া ৬৩ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু মেক্সিকোতে আন্তর্জাতিকভাবে মর্যাদাপূর্ণ এ নির্বাচনের প্রচারাভিযানে নেতৃত্ব দেন। মেক্সিকোতে অবস্থানরত রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু টেলিফোনে ঢাকায় সাংবাদিকদের জানান, এ বিজয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকল্প বাস্তবায়নে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের এক অভূতপূর্ব সমর্থন। তিনি এ বিজয়কে প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টার উল্লেখযোগ্য অর্জন বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, বিশ্ব আইসিটি পরিম-লে বাংলাদেশ আজ একটি নেতৃত্বকারী দেশ হিসেবে স্থান করে নিয়েছে। দেশে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিকাশে এ বিজয় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে। ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি বাস্তবায়ন বেগবান করবে।


 [ শেষের পাতা ]  2010-10-13
« Last Edit: October 13, 2010, 05:56:16 PM by a.k.azad_cse »

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
দেশের জনগণের কাছে অবাধ ইন্টারনেট যোগাযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে সরকার দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। এ লক্ষ্যে গাইড লাইনও প্রস্তুত করা হয়েছে।
বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্খাপনা পরিচালক প্রকৌশলী মো: মনোয়ার হোসেন গতকাল বাসসকে এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, বাংলাদেশে একটি মাত্র সাবমেরিন ক্যাবল থাকায় বিভিন্ন সময় আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ব্যবস্খা বিঘিíত হয়। নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ সুবিধা নিশ্চিত করতে আর একটি সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপন অতীব জরুরি। সেই উপলব্ধি থেকেই সরকার এই উদ্যোগ নিয়েছে।
বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি অথরিটি (বিটিআরসি) ইতোমধ্যে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপনের গাইডলাইন তৈরি করেছে।
বিটিআরসি সূত্র জানায়, খুলনা-ভারতের চেন্নাই এই রুটে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া ভারতের সাথে বাংলাদেশের টেরিসট্রিয়াল সংযোগ (লিংক) স্খাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামী নভেম্বরেই এর কাজ শুরু হতে পারে। বিএসসিসিএল ব্যবস্খাপনা পরিচালক বলেন, বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অঙ্গীকার বাস্তবায়ন, সফটওয়্যার রফতানি বৃদ্ধি বা বর্ধিত ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর চাহিদা মেটানো সব কিছুর মূলে রয়েছে সাবমেরিন ক্যাবলের সংযুক্তি। বিকল্প সাবমেরিন ক্যাবল বা অপটিক্যাল ফাইবারের সংযোগ ছাড়া নিরবচ্ছিন্ন টেলিযোগ সম্ভব নয়।
তিনি জানান, সাবমেরিন ক্যাবল কাটা পড়লে বা অন্য কোনো সমস্যা দেখা দিলে তা মেরামত করতে কমপক্ষে ৭-১০ দিন সময় লাগে। বাংলাদেশে একটি মাত্র ক্যাবল থাকায় ব্রেকডাউনের এই সময়টাতে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কিন্তু সাবমেরিন ক্যাবল বা অপটিক্যাল ফাইবারের বিকল্প কোনো পথ থাকলে এই সমস্যা সহজেই উত্তরণ সম্ভব।
মনোয়ার হোসেন বলেন, দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপন হলে বাংলাদেশে এ ধরনের আর কোনো সমস্যা দেখা দেবে না।
আইসিটি বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন দেশে আর একটি সাবমেরিন ক্যাবল স্খাপন হলে তথ্যপ্রযুক্তির বাণিজ্য সম্প্রসারণের পাশাপাশি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের কাজ অনেকাংশে সহজ হবে।

[ শেষের পাতা ]  2010-10-15

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile

মোবাইল ফোনের বিকিরণের কারণে যে স্বাস্থ্য সমস্যার আশঙ্কা রয়েছে, তা ফোন কম্পানিগুলোকে গুরুত্বের সঙ্গে ব্যবহারকারীদের জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা এবং বিভিন্ন চাপ সৃষ্টিকারী গ্রুপ। মোবাইল ফোন থেকে নির্গত তড়িৎ চৌম্বকীয় তরঙ্গের কারণে স্বাস্থ্যগত সমস্যা হতে পারে বলে বিভিন্ন গবেষণায় দাবি করেন বিজ্ঞানীরা। তবে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পেঁৗছাতে পারেননি তাঁরা। কয়েকটি গবেষণায় বলা হয়েছে, চৌম্বকীয় তরঙ্গের কারণে মানব মস্তিষ্ক ও শুক্রের গুণাগুণের ওপর প্রভাব পড়ে। অন্যদিকে এ বিকিরণ মানুষের দেহে কোনো ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে না বলে দাবি করে আসছে মোবাইল ফোন কম্পানিগুলো।
মোবাইলের স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়ে স্বাধীন তদন্তকারী প্রতিষ্ঠান পাওয়ারওয়াচের কর্মী অ্যালেসডেয়ার ফিলিপস বলেন, 'মোবাইল ব্যবহারের সতর্কতা সম্পর্কে বেশির ভাগ মানুষেরই কোনো ধারণা নেই। কাজেই নিরাপত্তার উপদেশগুলো মোবাইলের বাঙ্ েএবং ব্যবহার নির্দেশিকার শুরুতেই উল্লেখ করে দেওয়া উচিত।'

বিজ্ঞানীদের পরামর্শ কয়েকটি মোবাইল কম্পানি মানতে শুরু করেছে। ব্ল্যাকবেরি ফোনের সঙ্গে সম্ভব হলে তারহীন এয়ারফোন ব্যবহার এবং শরীর থেকে কমপক্ষে ২৫ মিলিমিটার দূরে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তার জন্য নকিয়ার সি-সিঙ্ ফোনটি কান থেকে ১৫ মিলিমিটার দূরে রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ফোনটির সঙ্গে ধাতব কোনো আনুষঙ্গিক উপকরণ পারতপক্ষে ব্যবহার না করার কথা বলে দেওয়া হয়েছে।
তবে অনেক কম্পানিই ব্যবহার নির্দেশিকায় ক্ষতির আশঙ্কার কথা লেখে খুবই ছোট হরফে, তা স্থান পায় নির্দেশিকা পুস্তিকার শেষের দিকে। এ কারণে সেসব ব্যবহারকারীর চোখ এড়িয়ে যায়।
২০০৭ সালে শান্তিতে নোবেল জয়ী জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠান 'ইন্টারগভর্নমেন্টাল প্যানেল অন ক্লাইমেট চেঞ্জের' সদস্য এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম সারির বিজ্ঞানী ডক্টর ডেভরা ডেভিস জানান, মোবাইলের বিকিরণের কারণে সৃষ্ট স্বাস্থ্যঝুঁকির বিষয়টি আড়াল করার চেষ্টা করে কম্পানিগুলো। এ রকম চলতে থাকলে আগামী তিন বছরের মধ্যে 'বিশ্বে জনস্বাস্থ্যের মারাত্মক বিপর্যয়' ঘটতে পারে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।
ইউনিভার্সিটি অব ওয়াশিংটনের একদল গবেষক জানান, মোবাইল থেকে যে মাত্রায় বিকিরণ হয়, দুই ঘণ্টা ধরে সেই একই মাত্রার বিকিরণের কারণে ইঁদুরের মস্তিষ্কের কোষের ডিএনএ টুকরো টুকরো হয়ে যায়। টিউমার কোষের ডিএনএর সঙ্গে টুকরোগুলোর মিল রয়েছে। মস্কোর এক গবেষণায় বলা হয়েছে, নিয়মিত মোবাইল ফোন ব্যবহারকারী শিশুরা দুর্বল স্মৃতিশক্তি এবং কোনো কিছু মনে রাখাজনিত অন্যান্য সমস্যায় ভোগে। যুক্তরাষ্ট্র, চীন, অস্ট্রেলিয়াসহ মোট সাতটি দেশে গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা দাবি করেন, প্যান্ট বা ট্রাউজারের পকেটে সচল মোবাইল বহনের বিষয়টি বীর্যের ওপর প্রভাব ফেলে। সূত্র: টেলিগ্রাফ।


[ ]  2010-10-16

Re: Telecommunication News
« Reply #22 on: October 19, 2010, 08:27:36 AM »

   Sohag can you give me a info about orascom.it is the mother company of banglalink.But i heard that orascom has sold there share of banglalink to Talenor and another company?

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
Re: Telecommunication News
« Reply #23 on: October 20, 2010, 09:04:07 PM »
Oyon Bhai  apni amar 15 number reply post ar news ta dekhley may be ans peye jaben .but Telenor (Norway) ar bapare kicu janina ar suni nai ekhono..Ora to Gp niya busy.......

Offline ashiqbest012

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 1186
  • I love my University
    • View Profile
Re: Telecommunication News
« Reply #24 on: October 20, 2010, 10:55:02 PM »
About Submarine Cable

Alhamdullilah, amader govt. darite holao bujte parache, akta submarine cable dara desh chalano somvob na. Ar govt. amader aktu kom mullahe bandwidth dele ar aktu valo hoto. Desher Chele-meyerai sorboccho projukti babohar korbe tai na. Onno desh-er kashe bandwidth 50% com mullhe  sell kore onno desh ar development korar mane ami bujte pari na.
Name: Ashiq Hossain
ID: 121-14-696 & 083-11-558
Faculty of Business & Economics
Daffodil International University
Cell:01674-566806

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile

নারীদের মোবাইল ফোন ব্যবহারে উদ্বুদ্ধকরণ এবং এর ব্যবহার নিরাপদ করার জন্য বিশ্বের শীর্ষস্খানীয় ২০টি মোবাইল ফোন অপারেটর একমত হয়েছে। এদের মধ্যে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফোন অপারেটর বাংলালিংক রয়েছে।
বিশ্বে এখন ৩০ কোটি নারী মোবাইল ফোনের সেবা নিচ্ছেন না। তাদের জন্য জিএসএম অ্যাসোসিয়েশন ও শেরি ব্লেয়ার ফাউন্ডেশন ফর উইমেন যৌথভাবে চালু করেছে ‘এমউইমেন প্রোগ্রাম’।
সম্প্রতি তারা যুক্তরাষ্ট্রে এ বিষয়ে একটি সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এতে মোবাইল ফোন ব্যবহারে ‘জেন্ডার গ্যাপ’ বা নারী-পুরুষের মধ্যকার পার্থক্যের বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখা হয়।
এতে দেখা যায়, বিশ্বে ৩০ কোটি নারী মোবাইল সেবা নিচ্ছেন না। তাই জিএসএমএ ও শেরি ব্লেয়ার ফাউন্ডেশন ফর উইমেন তাদের এই উইমেন কর্মসূচির মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে আগামী তিন বছরের মধ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহারের সুবিধাবঞ্চিত নারীর সংখ্যা ৩০ কোটি থেকে কমিয়ে ১৫ কোটিতে নামিয়ে আনার লক্ষ্য স্খির করেছেন।
ওয়াশিংটন ডিসিতে চালু হওয়া ‘এম উইমেন প্রোগ্রাম’ কর্মসূচি বিশ্বব্যাপী উন্নয়নশীল দেশগুলোর নারীদের কাছে মোবাইল ফোনের আর্থসামাজিক সুফল পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে এই কর্মসূচিটি প্রবর্তন করা হয়। কর্মসূচির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করেন কোম্পানির জনসংযোগ ও যোগাযোগ প্রধান ইরাম ইকবাল।
উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন উন্নয়নশীল বিশ্বে নারীর ক্ষমতায়নে মোবাইল ফোনের উপকারিতা তুলে ধরেন। ‘শেরি ব্লেয়ার ফাউন্ডেশন ফর উইমেন’র প্রতিষ্ঠাতা শেরি ব্লেয়ার ‘নারী ও মোবাইল : একটি বৈশ্বিক সুযোগ’ শিরোনামে একটি সমীক্ষা প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। ভাইটাল ওয়েভ কনসালটিং নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জিএসএম ও শেরি ব্লেয়ার ফাউন্ডেশন ফর উইমেন প্রতিবেদনটি তৈরি করে। এম উইমেন কর্মসূচি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন জিএসএমএ’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা-সিইও ও বোর্ড সদস্য রব কনওয়ে, হিলারি ক্লিনটন ও শেরি ব্লেয়ার।
রব কনওয়ে বলেন, ‘মোবাইল ফোন নারীর ক্ষমতায়নে এটি একটি শুভ সূচনা। এর মাধ্যমে বিদ্যমান প্রতিবìধকতা অতিক্রম করে নারীদের মধ্যে মোবাইল ফোন ব্যবহারের প্রবণতা ও সক্ষমতা বাড়বে।’
শেরি ব্লেয়ার বলেন, ‘ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে অর্থনৈতিক ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে মোবাইল ফোন হচ্ছে একটি অপরিহার্য হাতিয়ার। অধিকসংখ্যক নারীকে মোবাইল প্রযুক্তি ব্যবহারে সহযোগিতা করার অর্থ হলো­ এতে তারা নিজেদের যেমন নিরাপদ ভাবতে পারবেন তেমনি তাদের মধ্যে শিক্ষা-সাক্ষরতার প্রবণতা তৈরি হবে। সেই সাথে তাদের সামনে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে স্বাস্খ্যসংক্রান্ত প্রয়োজনীয় তথ্যাবলি জানা ও আয়-উপার্জনের সুযোগ বাড়বে।’
এ কর্মসূচির প্রতি ইতোমধ্যে বিশ্বের শীর্ষস্খানীয় ২০টি মোবাইল ফোন অপারেটর সংহতি জানিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, যারা ১১৫টিরও বেশি উন্নয়নশীল দেশে কার্যক্রম পরিচালনা করছে। মোবাইল অপারেটরগুলো হচ্ছে বাংলালিংক, এটিএন্ডটি, ভারতী এয়ারটেল, সেল সি, ডায়ালগ, ডিজিসেল, আইডিয়া সেলুলার, ম্যাক্সিস, মোবিটেল, মোবিলিংক, এমটিএন, ফেন্সঞ্চ টেলিকম/অরেঞ্জ, ওরাসকম, রসহ্যান, সাফারিকম, স্মার্ট, টেলিনর, টেলিফোনিকা, ইউনিনর ও ভোডাফোন।


[ শেষের পাতা ] 2010-10-21

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
বাংলাদেশে মোবাইল ফোন গ্রাহকের সংখ্যা সাড়ে ছয় কোটি ছাড়িয়ে গেছে। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) তথ্য অনুযায়ী গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের সংখ্যা ছয় কোটি ৫১ লাখ ৪২ হাজার। এক মাস আগে গত ৩১ আগস্ট এ সংখ্যা ছিল ছয় কোটি ৩৪ লাখ ৬৬ হাজার। অর্থাৎ এক মাসে মোবাইল ফোন গ্রাহক বেড়েছে ১৬ লাখ ৭৬ হাজার।
তবে মোবাইল ফোন গ্রাহকদের প্রকৃত সংখ্যা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। সংশ্লিষ্টরা অনেকে মনে করেন, মোবাইল ফোনের কতগুলো সিম (সাবস্ক্রাইবার আইডেনটিটি মডিউল) বিক্রি হয়েছে তা থেকেই বিটিআরসি এ তথ্য দিয়েছে। কিন্তু একই গ্রাহক একাধিক সিম ব্যবহার করে থাকেন এবং সব সিম সব সময় সচল থাকে না। এ অবস্থায় বাংলাদেশে প্রকৃত এবং সচল গ্রাহকের সংখ্যা কত তা বিটিআরসির ওই তথ্য থেকে জানার উপায় নেই।
গত ৭ অক্টোবর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওয়ারিদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্রিস টোবিট বলেন, বাংলাদেশের জনসংখ্যার তুলনায় টেলিডেনসিটি এখনো কম। সিম বিক্রি থেকে মোবাইল ফোন গ্রাহকের যে সংখ্যা দেখানো হয় সেটা প্রকৃত গ্রাহক সংখ্যা নয়।
এ দিকে বিটিআরসির তথ্য অনুয়ায়ী গত ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোবাইল ফোনের গ্রাহকদের মধ্যে গ্রামীণফোনের দুই কোটি ৮৬ লাখ ৫৪ হাজার, রবির এক কোটি ১৭ লাখ সাত হাজার, বাংলালিংকের এক কোটি ৮১ লাখ সাত হাজার, সিটিসেলের ১৯ লাখ সাত হাজার, টেলিটকের ১১ লাখ ৮৩ হাজার এবং ওয়ারিদের গ্রাহক ৩৫ লাখ ৮১ হাজারে পেঁৗছেছে।
৩১ আগস্ট থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এক মাসে গ্রাহক বেড়েছে গ্রামীণফোনের সাত লাখ ৩২ হাজার, রবির দুই লাখ ৩৪ হাজার, বাংলালিংকের পাঁচ লাখ ৫৮ হাজার, টেলিটকের ৫৬ হাজার এবং ওয়ারিদের এক লাখ ৬১ হাজার। সিটিসেলের গ্রাহক এই এক মাসে ৬৮ হাজার কমেছে।


[ ] 2010-10-20

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
দ্য গ্রুপ স্পেশাল মোবাইল অ্যাসোসিয়েশন বা জিএসএমএ সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে 'এমউইমেন প্রোগ্রাম' নামে একটি কর্মসূচি চালু করেছে।
 বিশ্বব্যাপী উন্নয়নশীল দেশগুলোর নারী সম্প্রদায়ের কাছে মোবাইল ফোনের আর্থ-সামাজিক সুফল পেঁৗছে দেওয়ার লক্ষ্যে এ কর্মসূচিটি প্রবর্তন করা হয়। এ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের মোবাইল অপারেটর বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করেন জনসংযোগ ও যোগাযোগ প্রধান ইরাম ইকবাল। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি রডহ্যাম ক্লিনটন উন্নয়নশীল বিশ্বে নারীর ক্ষমতায়নে মোবাইল ফোনের সুযোগ-সুবিধাগুলো তুলে ধরেন। পরে 'শেরি বেল্গয়ার ফাউন্ডেশন ফর উইমেন'-এর প্রতিষ্ঠাত্রী শেরি বেল্গয়ার নারী ও মোবাইল ফোন বিষয়ে প্রতিবেদনের ফলাফল বর্ণনা করেন। শেরি বেল্গয়ার বলেন, 'ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে অর্থনৈতিক ও উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের ক্ষেত্রে মোবাইল ফোন হচ্ছে একটি অপরিহার্য হাতিয়ার বিশেষ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।


[ শিল্প বানিজ্য ] 2010-10-22    ShareThis


Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile

শেয়ারবাজারে আসার প্রস্তুতি শেষ করেছে দেশীয় মোবাইল অপারেটর টেলিটক, টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেশিস), সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিঃ (বিএসসিসিএল) এবং কেবল শিল্প সংস্থা। কোম্পানি ৪টি কয়েকশ' কোটি টাকার শেয়ার বাজারে ছাড়বে। সঙ্গে প্রিমিয়াম হিসেবে নেবে আরও কয়েকশ' কোটি টাকা


সরকারি খাতের চার টেলিযোগাযোগ কোম্পানি আইপিওতে (প্রাথমিক গণপ্রস্তাব) শেয়ার ছাড়ার প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন করেছে। বাজার থেকে মূলধন সংগ্রহ করে কোম্পানিগুলো তাদের বিনিয়োগ বাড়াবে। একই সঙ্গে সরকার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশের কার্যক্রমে গতি আনতে সহায়তা করবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো এ খবর জানিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে_ একমাত্র দেশীয় মোবাইল অপারেটর টেলিটক, টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেশিস), সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিঃ (বিএসসিসিএল) এবং কেবল শিল্প সংস্থা কয়েক মাসের মধ্যেই বাজারে শেয়ার ছাড়ছে। বোর্ডের অনুমোদন পাওয়ার পর খুব শিগগিরই শেয়ার ছাড়ছে।

সংশ্লিষ্টরা আশা করছেন, কোম্পানিগুলো কয়েকশ কোটি টাকার শেয়ার বাজারে ছাড়বে। সঙ্গে প্রিমিয়াম হিসেবে নেবে আরও কয়েকশ' কোটি টাকা। জনগণের বিনিয়োগ করা অর্থ রুগ্ণ এই কোম্পানিগুলোর মূলধন বাড়াতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে। পরে এসব কোম্পানির উৎপাদিত অত্যাধুনিক ফাইবার অপটিক কেবল, টেলিফোন বা মোবাইল সেট, ল্যাপটপ, মোবাইল ফোনের আধুনিক সেবা এবং বহির্বিশ্বের সঙ্গে যোগাযোগে ব্যান্ডউইথের সহজতর সরবরাহ ডিজিটাল বাংলাদেশ কার্যকর করতে প্রধান ভূমিকা রাখবে। চার কোম্পানির মধ্যে শেয়ারবাজারে আসার ক্ষেত্রে টেশিস এবং বিএসসিসিএল সবচেয়ে এগিয়ে। কোম্পানি দুটি ইতিমধ্যেই ইস্যু ম্যানেজার নিয়োগ করেছে। আগামী মার্চের মধ্যে তারা বাজারে আসবে বলে সূত্র জানিয়েছে। দশ বছর পর লাভের মুখ দেখা টেশিস গত অর্থবছরে নেট আয় করেছে ১৩ লাখ টাকা। লাভ করার পরিপ্রেক্ষিতেই শেয়ার মার্কেটে যাওয়ার বিষয়টিও সহজ হয়।
কোম্পানি গঠনের পর গত দুই বছরে ৪৫ কোটি টাকা লাভ করে বিএসসিসিএল। ২০০৯ সালের জুলাইয়ে বোর্ড সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরও মন্ত্রণালয়ের বাধায় তারা শেয়ারবাজারে আসতে পারছিল না। কিন্তু এখন পরিস্থিতি পাল্টেছে। বিএসসিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মনোয়ার হোসেন সমকালকে জানান, মার্চের মধ্যে ৩০ কোটি টাকার শেয়ার বাজারে ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তারা। সঙ্গে প্রিমিয়াম মিলে প্রায় দেড়শ' কোটি টাকা পাওয়া যাবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি। এ টাকা দিয়ে দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবলের সংযোগ পাওয়া যাবে।

খুলনার কেবল শিল্প সংস্থা কয়েক বছর ধরে লাভেই আছে। এক্ষেত্রে তাদের প্রস্তুতিও ছিল। কিন্তু বাজারে আসার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে অল্প দিন আগে। কোম্পানির সচিব লুৎফর রহমান জানিয়েছে, ২০০৯-১০ অর্থবছরে তারা ৮ কোটি টাকার বেশি লাভ হয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে শেয়ার ইস্যু ম্যানেজার নিয়োগ করে আগামী বছরের শুরুতে শেয়ারবাজারে আসা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
অন্যদিকে কার্যক্রম শুরুর পঞ্চম বছরে লাভের (৬ কোটি ৭৭ লাখ টাকা) মুখ দেখা টেলিটক শেয়ার ছাড়ার সিদ্ধান্ত পেয়ে গেছে। গ্রামীণফোনের পর দেশের দ্বিতীয় মোবাইল ফোন অপারেটর হিসেবে তারা শেয়ারবাজারে যাবে বলেও জানিয়েছেন টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুজিবুর রহমান। তিনি বলেন, নানা দিক থেকে টেলিটকে বিনিয়োগ আসছে। তার ওপর শেয়ারবাজার থেকে আরও কিছু টাকা পাওয়া গেলে তাদের কার্যক্রমে সুবিধা হবে। এসব বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু সমকালকে বলেন, টেলিযোগাযোগ সেক্টরে গতি আনতে নানামুখী উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। সরকারি কোম্পানির শেয়ার বাজারে ছাড়া তার একটি। এর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ বিনিয়োগ করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কার্যক্রমে গতি আসবে বলেও দাবি করেন তিনি।


[ ] 2010-10-24

Offline a.k.azad_cse

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 123
    • View Profile
Japan to introduce IT standardise exam in Bangladesh
« Reply #29 on: October 28, 2010, 11:02:22 PM »
BSS, Dhaka

Japanese government is going to hold Japan's Information Technology Engineers Examination (ITEE) in Bangladesh to facilitate the local IT students and professionals to

take part in the ITEE.

Japan International Cooperation Agency (JICA) sources said that this facility would create job opportunities for Bangladeshi IT professionals in Japan as well as would help the country implement its digital Bangladesh programme.

The ITEE is a national standardized examination of Japan for their IT professionals, attended by five to six lakh IT students every year. In Japan, every IT student must pass the ITEE examination to get an ICT related job.

As first step of initiating holding of ITEE here, JICA with the help of Science and ICT Ministry will hold a trial test of 'ITEE' in the capital on October 30.

JICA will give awards to six participants who will score highest numbers in the trial test and the person who will become first among them would visit Japan under the sponsorship of Japanese government, JICA Representative Takashi Ikeda said.

  October 27, 2010