Author Topic: একা কিছু করা যায় না : মার্ক জাকারবার্গ  (Read 198 times)

Offline abdussatter

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 367
  • Test
    • View Profile
আলোচিত সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুক ডট কমের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জাকারবার্গ। ১৯৮৪ সালের ১৪ মে যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণ করেন। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এই ড্রপআউট ২০০৪ সালে তাঁর বন্ধুদের নিয়ে ফেসবুক প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর বর্তমান নিট সম্পদের মূল্য ৩৩.১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

মার্ক জাকারবার্গসবাইকে ধন্যবাদ। আমি প্রায়ই ফেসবুকের উদ্যোগে আয়োজিত বিশেষ প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নিই। এ ধরনের আয়োজন আমার প্রতিষ্ঠানের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বিকাশের জন্য কর্মীদের মতামত সরাসরি জানা যায়। আমি এ ধারণা থেকেই ফেসবুক ব্যবহারকারীদের সঙ্গেও প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করেছি। এর মধ্য দিয়ে ব্যবহারকারীদের নানা জিজ্ঞাসা আর তাঁদের ধারণা সম্পর্কে আমি সরাসরি জানতে পারি। আমি বিশ্বাস করি—মানুষের সঙ্গে কথা বললে অনেক কিছুই নতুন করে শেখা যায়, জানা যায়। আমি সম্প্রতি কলাম্বিয়ার উন্মুক্ত ইন্টারনেট-সেবা চালুর জন্য ইন্টারনেট ডট অর্গ চালু করেছি। কলম্বিয়ার সরকার আর মুঠোফোন কোম্পানির সহায়তায় আমি বড় এই কাজটি দক্ষিণ আমেরিকার দেশটিতে চালু করতে পেরেছি। সাধারণ মানুষের জন্য এ এক বিশাল সুযোগ। তথ্যই মুক্তি—এই স্লোগান সামনে রেখে আমাদের উন্মুক্ত ইন্টারনেটের জন্য কাজ শুরু। সাধারণ মানুষ, সরকার আর বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় আমরা এই কাজটি চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমাদের সামনে অনেক বড় বড় বাধা থাকলেও তিনটি বাধার জন্যই আমাদের মাথাব্যথা বেশি। সাধারণ মানুষের কাছে আমাদের ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যমটি পৌঁছে দিতে হয়। এর জন্য আমাদের প্রয়োজন মুঠোফোনের মতো সহজে বহনযোগ্য কোনো মাধ্যম। যে কারণে আমরা মুঠোফোন সংযোগদাতা প্রতিষ্ঠানের সহযোগিতায় অনেক দেশে কাজ করছি। আমাদের সামনের দ্বিতীয় বাধা হচ্ছে ইন্টারনেটের মূল্য। কোনো প্রতিষ্ঠানই আপনাকে বিনা মূল্যে ইন্টারনেট দেবে না। তাদের অর্থ আয় হবে—এমন কাজেই আগ্রহ দেখাবে তারা। আমরা ইন্টারনেট ডট অর্গের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে উন্মুক্ত ইন্টারনেট সেবা নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমাদের কাজ মাত্র শুরু হয়েছে।
আমি একা কিংবা ফেসবুক একা পুরো পৃথিবীতে ইন্টারনেট ছড়িয়ে দিতে পারবে না। আমাদের সবার টুকরো টুকরো কাজই আমাদের উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রত্যেক মানুষেরই দায় আছে পৃথিবীর জন্য কিছু করার। আমরা যার যার জায়গা থেকে সমাজ বদলে দেওয়ার জন্য ছোটখাটো কিছু করলেও তার প্রভাব একসময় অনেক বড় হয়ে দেখাবে।
আমরা পত্রপত্রিকায় দেখি, একজন মানুষ অনেক বড় কোম্পানি গড়ে তুলেছে। ব্যাপারটা আসলে গণমাধ্যম ভিন্নভাবে সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরে। যেকোনো মানুষই অসাধারণ উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারে। কিন্তু একা একা উদ্যোক্তা হয়ে ওঠা সম্ভব না। ফেসবুক একদিনে গড়ে ওঠেনি কিংবা আমি একা ফেসবুককে দাঁড় করাতে পারিনি। অনেক মানুষের শ্রম মিলেই ফেসবুক। অনেক মানুষের চিন্তার সমন্বয়ে ফেসবুক সামনে এগিয়ে যাচ্ছে। পৃথিবীর কোনো কোম্পানিই একা কিংবা একদিনে গড়ে ওঠেনি। অনেক চিন্তা, অনেক মানুষের ধ্যান-ধারণার দীর্ঘদিনের গবেষণার ফল হিসেবেই একেকটি কোম্পানি গড়ে ওঠে। একজন ব্যক্তি একা কিছু করতে পারে না। অনেক মানুষ মিলেই একেকটা বড় কাজ তৈরি হয়।
আপনার অনেক মেধা থাকতে পারে, কিন্তু আপনি একা কিছু করতে পারবেন না। আপনি যতই মেধাবী হোন না কেন অন্য মানুষের সঙ্গে না মিশলে, না কথা বললে আপনার মেধার তীক্ষ্ণতা দেখতে পারবেন না। আপনাকে বড় কোম্পানি প্রতিষ্ঠার জন্য অনেক মানুষের সঙ্গে মিশে তাদের নিয়ন্ত্রণ করা জানতে হবে। আর তাতেই আপনি উদ্যোক্তা হতে পারবেন। তবে এটা সত্যি, নিজের কোম্পানি গড়ে তুলতে আমাদের ভীষণ মেধাবী হওয়ার দরকার নেই। আপনার মধ্যে শুধু আগ্রহ আর কাজ করার লক্ষ্য নিয়ে সামনে চলতে শেখার দৃঢ়তা রাখতে হবে।

সূত্র: ওয়েবসাইট।
(Md. Dara Abdus Satter)
Assistant Professor, EEE
Mobile: 01716795779,
Phone: 02-9138234 (EXT-285)
Room # 610

Offline Esrat

  • Jr. Member
  • **
  • Posts: 92
  • Test
    • View Profile

Offline mahmud_eee

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 591
  • Assistant Professor, EEE
    • View Profile
Thanks for sharing.......
Md. Mahmudur Rahman
Assistant Professor, EEE
FE, DIU