Author Topic: পঞ্চাশ বছরে মুর’স ল  (Read 149 times)

Offline nmoon

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 234
  • Test
    • View Profile
পঞ্চাশ বছরে মুর’স ল
« on: May 13, 2015, 01:14:02 PM »
আজ থেকে পঞ্চাশ বছর আগে ইলেকট্রনিকস নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন উদ্ভাবক গর্ডন মুর। ১১ মে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় গর্ডন মুরের দেওয়া ‘মুর’স ল’ নামের এই সূত্রের পঞ্চাশ বছর পালন করল ইনটেল।
মুর’স ল এর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে চিপ নির্মাতা ইনটেল এই সূত্রের প্রভাব সম্পর্কে জানিয়েছে। এ ছাড়াও ওই সূত্রের উদ্ভাবক গর্ডন মুর আগামী পাঁচ দশকে ইলেকট্রনিকস কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে সে সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন।
গর্ডন মুরের মতে, একটি নির্দিষ্ট চিপের মধ্যে ট্রানজিস্টরের সংখ্যা প্রতি দুই বছরে দ্বিগুণ হবে, তবে এর আকার বাড়বে না। মুর এ তত্ত্ব দেন ১৯৬৫ সালে, যা কি না মুর’স ল নামে পরিচিত। মুরের এ তত্ত্ব শুধু আকারের জন্য ব্যবহৃত হয় না। এ তত্ত্ব মাইক্রোচিপ বা প্রসেসরের উপাত্ত প্রক্রিয়া করার গতি ও মেমোরি এমনকি ডিজিটাল ক্যামেরার পিক্সেলের সঙ্গেও সম্পর্কযুক্ত। তাঁর এ তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করে মাইক্রোচিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের মাইক্রোচিপ ভিত্তিক গবেষণার লক্ষ্য স্থির করে। ইলেকট্রনিকসের জগতে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বর্তমান সময়ের ডেস্কটপ কম্পিউটারের আকার ছোট হওয়ার অন্যতম কারণ মুরের এই তত্ত্ব।

পঞ্চাশ বর্ষপূর্তির অনুষ্ঠানে মুর তাঁর সূত্র আর কতদিন টিকে থাকবে তা নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। মুর বলেন, আর বড়জোর ১০ বছর টিকবে মুর’স ল। গত ৫০ বছর ধরে যে মুর’স ল টিকে ছিল সেটাই সত্যিই আনন্দের। কিন্তু কোনো সূত্র চিরস্থায়ী নয় বলেও তিনি মনে করেন।
যেকোনো ডিজিটাল যন্ত্রের প্রাণ হচ্ছে মাইক্রোচিপ। মাইক্রোচিপ না হলে এত ছোট কম্পিউটার আদৌও তৈরি করা যেত না। আর এটি সম্ভব হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ইনটেল করপোরেশন (ইনটিগ্রেটেড ইলেকট্রনিকস করপোরেশন) নামের জনপ্রিয় মাইক্রোচিপ ও মাইক্রোপ্রসেসর তৈরিকারক প্রতিষ্ঠানের কারণে। আর এ প্রতিষ্ঠান যাঁরা তৈরি করছেন, তাঁদের অন্যতম গর্ডন আরলে মুর; যিনি সবার কাছে মুর হিসেবে বেশি পরিচিত। গর্ডন মুর ১৯২৯ সালের জানুয়ারি মাসের ৩ তারিখে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের সানফ্রানসিসকো শহরে জন্মগ্রহণ করেন। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়নে স্নাতক ডিগ্রি নেন। এরপর তিনি ক্যালিফোর্নিয়া ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (ক্যালটেক) থেকে রসায়ন ও পদার্থবিজ্ঞানে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। মুর তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন ট্রানজিস্টরের জনক উইলিয়াম শকলের সঙ্গে বেকম্যান ইন্সট্রুমেন্টস প্রতিষ্ঠানে। ১৯৬৮ সালে গর্ডন মুর রবার্ট নায়েসের সঙ্গে ইনটেল করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করেন। ৮৬ বছর বয়সী মুর বর্তমানে ইনটেলের চেয়ারম্যান ইমেরিটাস হিসেবে রয়েছেন।
৫০ পূর্তিতে ইনটেল জানিয়েছে, মুরের সূত্র কম্পিউটিং প্রযুক্তির ক্ষেত্রে দ্রুত উন্নতি করতে সাহায্য করেছে এবং অভূতপূর্ব আর্থিক সুবিধা ও সামাজিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে।
বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইএইচএসের প্রতিবেদন অনুসারে, প্রযুক্তিগত উদ্ভাবনে ও উৎপাদনশীলতার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মুর’স ল ভূমিকা রেখে চলেছে। উৎপাদনশীলতা যত বেড়েছে তত খরচ কমেছে এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তত নতুন সুযোগ তৈরি হয়েছে। মুর’স ল গত দুই দশকে জিডিপিতে ১১ ট্রিলিয়ন ডলারের বেশি ভূমিকা রেখেছে।
আইএইচএসের সেমিকন্ডাক্টার ও কম্পোনেন্টস বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডেল ফোর্ড বলেন, মুর’স ল অধিক কার্যকরী ধারণাদায়ক টুল হিসেবে গত অর্ধ শতাব্দী ধরে প্রমাণিত হয়েছে যা উদ্ভাবন, অর্থনৈতিক উন্নয়ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক পরিবর্তনে ভূমিকা রেখেছে। (সিআইও টুডে, ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল)