Author Topic: ‘সবচেয়ে তরুণ’ গ্রহের সন্ধান  (Read 379 times)

Offline Anuz

  • Faculty
  • Hero Member
  • *
  • Posts: 1908
  • জীবনে আনন্দের সময় বড় কম, তাই সুযোগ পেলেই আনন্দ কর
    • View Profile
আমাদের সৌরজগতের বাইরে ‘সবচেয়ে কম বয়সী’ নতুন একটি গ্রহের খোঁজ মিলেছে। যুক্তরাষ্ট্রের একদল জ্যোতির্বিদ গত সোমবার বলেন, ‘এই আবিষ্কারের ফলে আমাদের গ্রহমণ্ডলের উৎপত্তি সম্পর্কে নতুন অনেক কিছু জানার সুযোগ তৈরি হয়েছে।’
১ কোটি ১০ লাখ বছরের পুরোনো ওই গ্রহের নাম কে২-৩৩ বি। এর নক্ষত্রের নাম কে২-৩৩। নিজ কক্ষপথে নক্ষত্রকে একবার প্রদক্ষিণ করতে গ্রহটি মাত্র ৫ দশমিক ৪ দিন সময় নেয়। এ বিষয়ে একটি গবেষণা প্রতিবেদন ছেপেছে অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল জার্নাল। এতে বলা হয়, গ্রহগুলোর উৎপত্তির পর দ্রুত তাদের কক্ষপথের দূরত্ব নির্ধারিত হয়—আমাদের সৌরজগতের বাইরের নতুন গ্রহটির অস্তিত্ব এ রকমই ইঙ্গিত দিচ্ছে। আমাদের সৌরজগতের বাইরে এখন পর্যন্ত যত গ্রহের খোঁজ মিলেছে, সেগুলোর মধ্যে কে২-৩৩ বির বয়স সবচেয়ে কম।
নতুন গ্রহটি পৃথিবীর চেয়ে পাঁচ গুণ বড়। আমাদের পৃথিবীর বয়স প্রায় ৪৫০ কোটি বছর। সেই তুলনায় ‘তরুণ’ গ্রহটিকে ‘সুপার-নেপচুন’ আখ্যা দিয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। এটির অবস্থান পৃথিবী থেকে প্রায় ৪৭০ আলোকবর্ষ দূরের স্করপিও নামের নক্ষত্রমণ্ডলে।
গবেষণা প্রতিবেদনের সহলেখক টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যোতির্বিদ অ্যান্ড্রু মান অনুমান করেন, কাছাকাছি অবস্থানের গ্রহগুলোর মধ্যে কক্ষপথ পরিবর্তনের ধরনের সঙ্গে তাদের উৎপত্তি বা গঠনের সম্পর্ক রয়েছে। যদি বৃহস্পতি বা নেপচুন গঠিত হওয়ার পর সূর্যের দিকে এগিয়ে আসত, সৌরজগতে পৃথিবী হয়তো থাকতই না।
মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার কেপলার স্পেস টেলিস্কোপ ব্যবহার করে নতুন গ্রহটি শনাক্ত করা হয়েছে। এরপর তাঁরা অন্যান্য দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে কে২-৩৩ বির অস্তিত্ব সম্পর্কে নিশ্চিত হন এবং এটির গঠন-বৈশিষ্ট্য নির্ণয় করেন।
Anuz Kumar Chakrabarty
Assistant Professor
Department of General Educational Development
Faculty of Science and Information Technology
Daffodil International University

Offline Nizhum

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 101
  • Test
    • View Profile
Wow