Author Topic: মুর্শিদকুলী খাঁর মসজিদ  (Read 400 times)

Offline Lazminur Alam

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 337
  • Test
    • View Profile
চারপাশে সবুজ গাছগাছালিঘেরা পুরোনো স্থাপত্যশিল্পের একটি মসজিদ। পাশাপাশি একই রকমের পাঁচটি আকর্ষণীয় গম্বুজ। ব্রিটিশ লাইব্রেরির ওয়েবসাইটসহ ঢাকার পুরোনো ছবি আছে এমন অনেক সাইট ও প্রকাশনীতে করতলব খান মসজিদের এই ছবিটি পাওয়া যায়। প্রায় সাড়ে তিন শ বছরের পুরোনো এই মসজিদ পুরান ঢাকার বেগমবাজারে অবস্থিত। এলাকাবাসীর কাছে এটি শাহি মসজিদ নামেও পরিচিত। জাতীয় জ্ঞানকোষ বাংলা পিডিয়ায় বলা হয়েছে, সম্রাট আওরঙ্গজেব তরুণ মুর্শিদকুলী খাঁকে ১৭০০ সালে সম্মানসূচক করতলব খাঁ উপাধি দিয়ে দেওয়ান হিসেবে বাংলায় পাঠান। তিনিই বাংলায় নবাবি শাসনের প্রতিষ্ঠাতা। ব্যক্তিজীবনে তিনি অত্যন্ত ধার্মিক ছিলেন। ১৭০১ থেকে ১৭০৪ সালের মধ্যে তিনি এই মসজিদ নির্মাণ করেন। সংযোজিত দোচালা অংশসহ এই মসজিদ একটি উঁচু ভিটে বা প্ল্যাটফর্মের ওপর অবস্থিত। প্ল্যাটফর্মটির নিচে সারিবদ্ধভাবে একাধিক বর্গাকার ও আয়তাকার কক্ষ বিদ্যমান। এগুলো অবশ্য এখন দোকানঘর হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এই মসজিদের গম্বুজগুলো পদ্ম ও কলসচূড়ায় শোভিত। গম্বুজের ভার বহনে যে পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়েছে তা ঢাকার লালবাগ দুর্গ মসজিদ ও সাতগম্বুজ মসজিদে ব্যবহৃত কৌশলের অনুরূপ। মসজিদের উত্তর পাশের আয়তাকার সম্প্রসারিত অংশটি বাঙালি দোচালা কুঁড়েঘরের মতো ছাদ দিয়ে আচ্ছাদিত। মসজিদ ভবনটির অলংকরণে স্থাপত্যিক বিষয়ের ওপর বেশি গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ঢাকার ইতিহাস-ঐতিহ্যের একটি জ্বলন্ত নিদর্শন এই শাহি মসজিদ। পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোড ধরে পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে দিয়ে বেগমবাজারের দিকে গেলেই মসজিদটি দেখতে পাবেন। তবে আগের সেই গাছপালা নেই। চারপাশে উঠে গেছে অনেক ভবন। তবু টিকে আছে মুর্শিদকুলী খাঁর মসজিদটি।
MD.LAZMINUR ALAM
|| BA (Hons) in English || || MBA in Marketing ||

Senior Student Counselor
Daffodil International University
Cell: 01713493051
E-mail: lazminur@daffodilvarsity.edu.bd
            lazminurat@yahoo.com
Web: www.daffodilvarsity.edu.bd