Author Topic: I tried to write some poetry.  (Read 58 times)

Offline Reza.

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 125
  • When the going gets tough. Tough get going.
    • View Profile
I tried to write some poetry.
« on: April 17, 2017, 12:13:41 AM »
১. (পরাজিত সপ্নচারি)

যে নদীর স্বপ্ন চোখে ভাসে - কেন যেন মনে হয় তার পাশ দিয়েই তো হেটে চলেছি। শুধু ছোঁয়া যাচ্ছে না।
যে সুর মনের মধ্যে বেজে চলে - অস্পস্ট ভাবে শুনি দূর থেকে আসা সেই সুরের মূর্ছনা। কিন্তু কখনোই স্পষ্ট হয় না।
মায়াবি রোদের আলোয় হেটে চলি। কখনো বা জ্যোৎস্নার আলোয় বসে পড়ি - শুনি হায়েনার ডাক। নিশ্চিন্তে ঘুমিয়ে থাকি হিংস্র শ্বাপদ সংকুল বনানীতে।
দূর থেকে শুধুই সমুদ্রের শব্দ শোনা যায়। কত কাছে মনে হয়। জানি খুজে কোন লাভ নাই। কিংবা কখনো বা বৃষ্টির শব্দ ভেসে আসে। ভেজা মাটির গন্ধ পাওয়া যায়। তার পরও তৃষ্ণা থেকে যায়।
কখনো নিঃশব্দ জনসমুদ্রের মাঝে হেটে চলি। যে নীরাবতা খান খান হয়ে চূর্ণ হয়ে যাবে শুধু একটি দীর্ঘশ্বাসের শব্দে। কখনো ভারবাহী পশুর কষ্ট, কখনো খাঁচায় বন্দি পাখির আর্তনাদ, কখনো বা খরায় পুরে যাওয়া গাছের অঙ্গারের বেদনা অনুভব হয়। বুঝি যে আমি একা নই। ছায়া গুনলে সংখ্যায় হবে অজশ্র।
কষ্ট গুলোকে মনে হয় খালি চোখেই দেখা যায়। তাদের গোনাও যায়। তাই গুনে চলি অক্লান্ত। কখনো বা তারাই ঝকঝক করে উঠে। মনে হয় কিছু ভুল কষ্ট গোনা হয়েছে। ঝুলিটা ফেলে দেই ওই সৈকতে। আমিও ফিরে চলি ঘরে। শুন্য হাতে।

২.

কোন কোন দিন মনের উপর ছায়া পড়ে।
যেদিন সূর্য কর্কশ ভাবে জেগে উঠে। সব কিছুরই ছায়া পড়ে মাটিতে।
মনে হয় লুকানোর কোন পথ নাই। যতই লুকাই না কেন তার স্পস্ট ছায়া পড়ে জানান দিয়ে যায় তারা আছে আসেপাশেই।
কখনো বা খুশি খুশি ভাব কখনো বা কৌতুক কখনো বিরক্তি। কিন্তু স্পষ্টই দেখা যায় মনের উপরের ছায়াটি।
বসে একঘেয়ে সুরে শোনা যাবে ছায়াটির ক্রন্দন। কখনো বা মৃদু তালে নেচে চলে ছায়াটি। শুধু আমি আর মনের ছায়া। আর কেউ নাই চারিপাশে।
যতক্ষণ সূর্যের আলো থাকে - দেখে যাই আপন ছায়াকে। ছায়ার মাঝে খুজে পাই সব ক্ষোভ অপমান আর জ্বালা।
ছায়া ছাড়া কে থাকে? সারাজীবন নীরবে সে দেখে চলে সব।
পানিতে ছায়া পড়ে শুকিয়ে নিয়ে যায় চোখের সব জল। দেওয়ালে ছায়া পড়ে জানান দিয়ে যায় গন্ডি এর মাঝেই। কখনোবা ছায়া অনুকরণ করে চলে নিষ্ঠুর ভাবে। হাস্যকর মনে হয় নিজেকে।
ছায়াকে যখন পিছনে ফেলি - সে চলে পিছু পিছু।
হেটে চলি তার পিছু - দূর থেকে দূরে সরে যায় সে। কি এক দুর্বোধ্য আশায় ধরতে চাই আপন ছায়াকে। এতো কাছে তবু মনে হয় কত দূরে।
অক্লান্ত আমি খুজে চলি আমার ছায়া। রাতের আধারে চাঁদের আলোয় আবারও স্পস্ট হয়। দেখতে পাই কিছু রাত জাগা মানুষ। যাদের পথ দেখায় তাদের ছায়া। কি এক দুর্বোধ্য আশায় অনুসরণ করে চলে কি এক মরিচিকার।
আলো মিলাবার সাথে সাথে চলে যাবে ছায়া। হয়ত স্বপ্নের দেশে।
কোথায় তা কেউ জানেনা।
কিন্তু নিশ্চিত আছে - আছে তাই মনের উপর ছায়া পড়ে। প্রতিদিন।


(আমার ফেসবুক পোস্ট থেকে)
Assistant Professor,
Department of Textile Engineering.
Permanent Campus.
Email: reza.te@daffodilvarsity.edu.bd
Mobile No. 01847140128