Author Topic: Dialysis is available at 400 taka  (Read 298 times)

Offline yousuf miah

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 169
    • View Profile
Dialysis is available at 400 taka
« on: July 09, 2017, 12:19:27 PM »
কিডনি রোগীদের প্রতিবার ডায়ালাইসিস করাতে প্রকৃত ব্যয় ২ হাজার ১৯০ টাকা হলেও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে নেয় ৩ হাজার টাকা করে। তবে এখন থেকে মাত্র ৪০০ টাকায় জাতীয় কিডনি রোগ ও ইউরোলজি ইনস্টিটিউট (নিকডু) এই সুবিধা দিবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম. হাবিবুর রহমান খান জানান, ভারতের স্বাস্থ্যসেবা কোম্পানি সুন্দর মেডিকেইডের সঙ্গে পাবলিক প্রাইভেট পাটনারশিপের ভিত্তিতে জাতীয় কিডনি রোগ ও ইউরোলজি ইনস্টিটিউটে দেশের দরিদ্র রোগীদের স্বল্পমূল্যে ডায়ালাইসিস সেবা দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রে প্রতিবার ডায়ালাইসিস করাতে প্রায় ৩ হাজার টাকা ব্যয় করতে হয়। নিকডুতে ডায়ালাইসিস করাতে প্রকৃত ব্যয় ২ হাজার ১৯০ টাকা। এর মধ্যে প্রতিবারের ডায়ালাইসিসে ১ হাজার ৭৯০ টাকা ভর্তুকি দিয়ে দরিদ্র রোগীদের জন্য মাত্র ৪০০ টাকায় উন্নত ডায়ালাইসিস সেবা দেওয়া হবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বলেছেন, ভারতের হায়দ্রাবাদভিত্তিক সুন্দর মেডিকেইড উচ্চ প্রযুক্তির বাইয়োমেডিকেল এবং বাইয়োটেকনোলজি পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করবে। পিপিপির অধীনে কোম্পানিটি ইতোমধ্যে নিকডুতে ১৫টি এবং চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৪০টি ডায়ালাইসিস মেশিন স্থাপন করেছে। দরিদ্র রোগীরা এই দুইটি স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে স্বল্পমূল্যে কিডনি ডায়ালাইসিস করাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, নিকডুতে আরও ৪৫টি মেশিন স্থাপনের অপেক্ষায় আছি। মেশিনগুলো ইতোমধ্যে ঢাকায় এসে পৌঁছেছে। পিপিপির অধীনে অধিক সংখ্যক দরিদ্র রোগী স্বল্পমূল্যে সর্বাধুনিক ডায়ালাইসিস চিকিৎসা সুবিধা পাবে। সুন্দর মেডিকেইডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এসব মেশিন স্থাপনের জন্য শিগগির ঢাকা সফর করবেন।

এম. হাবিবুর রহমান বলেন, জেলা পর্যায়ে পিপিপির অধিনে স্বাস্থ্য সেবা আরও বাড়াবে সরকার। এতে গ্রামের লোকেরা রাজধানীতে না এসেই আধুনিক স্বাস্থ্য সেবা পাবে।

নিকডুর পরিচালক অধ্যাপক নুরুল হুদা লেলিন বলেন, দেশে ভেজাল খাদ্য খেয়ে এবং অনিয়ন্ত্রিত জীবন যাত্রাসহ বিভিন্ন কারণে ডায়াবেটিস ও হাই প্রেসারের রোগীর সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে।

বাংলাদেশ কিডনি ফাউন্ডেশনের তথ্য অনুযায়ী, দেশে প্রায় এক কোটির বেশি মানুষ কিডনি রোগে আক্রান্ত। এদের মধ্যে ১ কোটি ৬০ লাখ রোগীর অবস্থা খুবই নাজুক। তাদের প্রতি সপ্তাহে ডায়ালাইসিস করাতে হয়।

বাংলাদেশ কিডনি ফাউন্ডেশনের সভাপতি অধ্যাপক হারুন অর রশীদ বলেন, ডায়ালাইসিস হচ্ছে, রক্ত থেকে অনাকঙ্খিত পানি নিঃস্বরনের একটি কৃত্রিম প্রক্রিয়া। একজন কিডনি রোগী নিয়মিত ডায়ালাইসিসের মাধ্যমে ৫ থেকে ১৫ বছর স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারেন।

লাইফ স্বাস্থ্য