Author Topic: বণ্টন দলিল ও বাটোয়ারা মামলার জন্য কী কী প্রয়োজন?  (Read 364 times)

Offline Noor E Alam

  • Administrator
  • Jr. Member
  • *****
  • Posts: 91
  • Test
    • View Profile
বণ্টন দলিল ও বাটোয়ারা মামলার জন্য কী কী প্রয়োজন :
*************************
বন্টন দলিল কি?
***************
১৮৯৯ সালের স্ট্যাম্প এক্টের ২ (১৫) ধারায় বলা হয়েছে বণ্টন দলিল ও বণ্টক দলিল অর্থ একই ৷ যখন কোন সম্পত্তির সহ-শরিকগণ তাদের সম্পত্তি ব্যক্তিগত মালিকানায় পৃথকভাবে ভাগ করে নেয় বা নিতে সম্মত হয়ে কোন দলিল করে তাকেই বণ্টন দলিল বলে৷
বণ্টন সম্পন্ন হওয়ার শর্ত:
**********************
•সীমানা চিহ্নিতকরণ বা পরিমাপ দ্বারা সম্পত্তির প্রকৃত বিভাজন হতে হবে;
•বন্টন তালিকায় প্রত্যেক সহ-মালিকের বরাদ্দকৃত সম্পত্তির উল্লেখ থাকতে হবে;
•তালিকায় মালিকানার বিভাজন সকল সহ-মালিক কর্তৃক স্বীকৃত হতে হবে;
•বন্টনের বিবরণ সুস্পষ্ট হতে হবে;
•প্রত্যেকটি তালিকা সহ-মালিকবৃন্দ কর্তৃক স্বাক্ষরিত হতে হবে;
•যথাযথভাবে স্ট্যাম্প শুল্ক দিয়ে দলিলটি রেজিস্ট্রি করতে হবে;
•সহ-শরীকগণ আপোষ বন্টন করে পরবর্তীতে তাদের কেউ তা না মানলে দেওয়ানী আদালতের মাধ্যমে তা কার্যকর করা যায়৷
বন্টননামা রেজিষ্ট্রির ফি:
*********************
সকল সহ-শরিকের মধ্যে জমি হিস্যানুযায়ী (স্ট্যাম্প এর উপর) বন্টন করে সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে দাখিল করে বন্টননামা দলিল রেজিষ্ট্রি করা যায় ৷ এ দলিল রেজিস্ট্রির জন্য স্ট্যাম্প খরচ লাগবে স্ট্যাম্প এর গায়ে জমির যে মূল্য রেখা হবে তার ২% হারে৷ এছাড়া অন্যান্য ফিস কবলা দলিল রেজিস্ট্রিতে যেমন লাগে অনুরূপ লাগবে৷
বাটোয়ারা মামলা করার জন্য যা প্রয়োজন:
**************************************
দেওয়ানী আদালতে বাটোয়ারা মামলা করেও নিজেদের সহায়-সম্পত্তি বন্টন করে নেয়া যায় ৷ এ জন্য যা প্রয়োজন হবে তা হলোঃ
•আবেদনের গায়ে ১০০/- টাকার কোর্ট ফি৷
•ছাহাম চাইলে প্রতি ছাহামের জন্য ১০০/- টাকা ফি৷
•মালিকানার সূত্র এবং প্রয়োজনীয় কাগজপত্র৷
•সম্পত্তি উত্তরাধিকার সূত্রে হলে বংশানুক্রম৷
বাটোয়ারা মামলায় সাধারণত প্রত্যেক দাগের জমি সকল সহ-শরীক এর মধ্যে বণ্টিত হয়ে থাকে৷ এ মামলায় ২ বার **২টি ডিক্রী হয়৷
*************
প্রাথমিক ডিক্রী:এ ডিক্রীতে হিস্যানুযায়ী বন্টন আদেশ দেয়া হয়৷
চূড়ান্ত ডিক্রী:এ ডিক্রীতে প্রয়োজনে আমিন কমিশন পাঠিয়ে সরে জমিনে সম্পত্তির দখল দেয়া হয় এবং সীমানা পীলার দ্বারা বিভাজন (জমির ভাগ) চিহ্নিত করার মাধ্যমে চূড়ান্ত ডিক্রী প্রচার করা হয়৷
আদালত প্রয়োজনে আইন শৃংখলা বাহিনী নিয়োগ করে সম্পত্তির সীমানা চিহ্নিত করে ডিক্রী প্রাপককে সম্পত্তির দখল দেয়ার ব্যবস্থা করে থাকেন৷
Noor E Alam (Polash)
Assistant Administrative Officer 
Daffodil International University (DIU)
email-fd@daffodilvarsity.edu.bd

Offline afrin.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 402
  • Test
    • View Profile