Author Topic: যে খাবার খেলে কোনও দিন ডায়াবেটিস হবে না!  (Read 327 times)

Offline rumman

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 1015
  • DIU is the best
    • View Profile
দা জার্নাল অব দা ইউরোপিয়ান অ্যাসোসিয়েশন ফর দা স্টাডি অব ডায়াবেটিসে প্রকাশিত একটি স্টাডি অনুসারে নিয়মিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খেলে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা একেবারে কমে যায়, বিশেযত মহিলাদের মধ্যে।
আমাদের দেশে যে হারে ডায়াবেটিস রোগের প্রকোপ বাড়ছে, বিশেষত কম বয়সিদের মধ্যে, তাতে এই গবেষণা যে ডায়াবেটিস চিকিৎসার সামগ্রিক চিত্রটাই বদলে দেবে, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। আসলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার, যেমন জাম, ডার্ক চকোলেট, কিডনি বিনস, লবঙ্গ, দারুচিনি, লেবু ,পালং শাক, তুলসি পাতা এবং আদা নিয়মিত খেলে শরীরে ইনসুলিনের কর্মক্ষমতা এতটা বেড়ে যায় যে ডায়াবেটিস রোগ ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না। তবে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কেবল মাত্র ডায়াবেটিস রোগকে দূরে রাখে, এমন নয় কিন্তু! এই উপাদানটি আরও অনেক উপকারে লেগে থাকে। যেমন...

১.ত্বকের বয়স কমায়:
খাতায় কলমে শরীরের বয়সে বাড়ালেও আপনি কি চান ত্বকের বয়স না বারুক? তাহলে যে বন্ধু প্রতিদিনের ডায়েটে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার রাখতেই হবে। কারণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, শরীরের কোণায় কোণায় জমে থাকা টক্সিক উপাদানদের বের করে দিতে বিশেষ ভূমিকা নেয়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ত্বকের সৌন্দর্য বাড়তে শুরু করে। প্রসঙ্গত, এইসব টক্সিক উপাদানদের মাত্রা যদি শরীরে বাড়তে শুরু করে, তাহলে ত্বকের উপর খারাপ প্রভাব তো পরেই, সেই সঙ্গে ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বৃদ্ধি পায়।

২. দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায়:
বয়সের সঙ্গে সঙ্গে যাতে ম্যাকুলার ডিজেনারেশন না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সেই সঙ্গে রেটিনার কর্মক্ষমতা বাড়ানোর মধ্যে দৃষ্টিশক্তির সার্বিক উন্নতিতে বিশেষ ভূমিকা নেয়। তাই তো যারা দিনের বেশিটা সময় কম্পিউটারের সামনে কাটান, তাদের নিয়মিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

৩. হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের আশঙ্কা কমায়:
শরীরে উপস্থিত টক্সিক উপাদানেরা যাতে কোনও ভাবে হার্টে রক্ত সরবরাহকারি শিরা-ধমনির ক্ষতি করতে না পারে, সেদিকে খেয়াল রাখে। সেই সঙ্গে হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়ানোর মধ্যে দিয়ে নানাবিধ হার্ট ডিজিজকে দূরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। প্রসঙ্গত, আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিকাল নিউট্রিশানের রিপোর্ট অনুসারে যাদের শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের মাত্রা বেশি থাকে, তাদের স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা প্রায় ৫০ শতাংশ কমে যায়।

৪. ক্যান্সার রোগকে দূরে রাখে:
বেশ কিছু গবেষণায় একথা ইতিমধ্যেই প্রমাণিত হয়ে গেছে যে শরীরে অ্যান্টঅক্সিডেন্টের ঘাটতি মিটতে থাকলে ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে। কারণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরে উপস্থিত টক্সিক উপাদানদের শরীর থেকে বার করে দিয়ে ক্যান্সার সেলের জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা কমায়। সেই সঙ্গে ম্যালিগনেন্ট টিউমারের সম্ভাবনাও কমায়।

৫. ব্রেন পাওয়ার বাড়ায়:
শরীরে অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের মাত্রা বৃদ্ধি পেলে ধীরে ধীরে নার্ভের ক্ষমতা কমে যেতে শুরু করে। সেই সঙ্গে স্মৃতিশক্তিও কমতে শুরু করে। তাই তো অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের মাত্রা যাতে কোনও ভাবে বৃদ্ধি না পায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। আর এই কাজটি করবেন কিভাবে? এক্ষেত্রে প্রতিদিন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। এমনটা করলেই দেখবেন একদিকে যেমন অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের মাত্রা কমবে, তেমনি ডিমেনশিয়া এবং অ্যালঝাইমারসের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও আর থাকবে না।

Md. Abdur Rumman Khan
Senior Assistant Registrar

Offline Anuz

  • Faculty
  • Hero Member
  • *
  • Posts: 1908
  • জীবনে আনন্দের সময় বড় কম, তাই সুযোগ পেলেই আনন্দ কর
    • View Profile
Informative one........
Anuz Kumar Chakrabarty
Assistant Professor
Department of General Educational Development
Faculty of Science and Information Technology
Daffodil International University