Author Topic: মানবদেহ - শ্বাষতন্ত্র  (Read 488 times)

Offline Sultan Mahmud Sujon

  • Administrator
  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 2361
  • Sultan Mahmud Sujon,Admin Officer
    • View Profile
    • Higher Education
মানবদেহ - শ্বাষতন্ত্র
« on: October 21, 2011, 08:45:04 PM »
শ্বাসতন্ত্রকে সাধারণত দুটি অংশে বিভক্ত করা হয়৷ ওপরের অংশ বা আপার রেসপিরেটরি ট্র্যাক্ট এবং নিচের অংশ বা লোয়ার রেসপিরেটরি ট্র্যাক্ট৷ ওপরে অংশের তিনটি ভাগ নাক, ন্যাজোফ্যারিক্স এবং ল্যারিংক্স বা স্বরযন্ত্র৷ নিচের অংশ গঠিত শ্বাসনালীর শাখা-প্রশাখা ও ফুসফুস নিয়ে৷ শ্বাসনালীর শাখা-প্রশাখাকে ঘিরেই গড়ে ওঠে ফুসফুস৷ শ্বাসনালীর শাখা-প্রশাখাগুলো দেখতে অনেকটা গাছের মতো৷ তাই একে বলা হয় ব্রংকিয়াল ট্রি৷ শ্বাসনালীর নিচের দিকের বিভাজনগুলোকে বলা হয় এলভিওলি৷ এরাই একত্র হয়ে তৈরি করে ফুসফুস৷ মানুষের ফুসফুস দুটো৷ এই দুটো ফুসফুসের মাঝখানে থাকে হৃদপিণ্ড৷ ফুসফুস অনেকেটা স্পঞ্জের মতো৷ ফুসফুসের চারদিকে এক ধরনের পাতলা আবরন দিয়ে আবৃত থাকে যাকে বলা হয় প্লুরা৷ ডান দিকের ফুসফুসে রয়েছে তিনটি আলাদা অংশ যাদের বলা হয় লোব৷ বাঁ দিকেও আছে দুটি লোব৷
inheal_int.jpg


ফুসফুস বা শ্বাসনালীর নানা রকমের রোগ হতে পারে৷ কারণ ফুসফুস বাইরের বাতাসের সঙ্গে সরাসরি সংযুক্ত৷ প্রতি দিন সাত হাজার লিটার বাইরের বাতাস শ্বাসনালী দিয়ে ফুসফুসে ঢোকে এবং বের হয়৷ আর বাতাসের সঙ্গে নানা ধরনের রোগজীবাণু মানুষের শরীরে ঢুকে যেতে পারে৷ কিন্তু সাধারণত সব রোগজীবাণু প্রদাহের সৃষ্টি করতে পারে না কারণ শ্বাসতন্ত্রের নিজস্ব রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আছে৷ যখন এই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায় তখনই রোগের উত্‌পত্তি হয়৷ শ্বাসতন্ত্রে সাধারণত যেসব রোগ হয় সেগুলো হল: কমন কোল্ড বা ঠাণ্ডা লাগা, ইনফ্লুয়েঞ্জা, একিউট ব্রংকাইটিস, নিউমোনিয়া, অ্যাজমা বা হাঁপানি, ব্রংকিয়েকটেসিস, ক্রনিক ব্রংকাইটিস, ফুসফুসের চারদিকে পানি জমা বা প্লুরাল ইফিউশন, যক্ষা বা টিবি, ক্যান্সার ইত্যাদি৷

ফুসফুসের কিছু সাধারণ রোগের নাম নিম্নে দেওয়া হলো-

            ১. নিউমোনিয়া
            ২. ক্রনিক ব্রংকাইটিস
            ৩. অ্যাজমা বা হাঁপানি
            ৪. যক্ষ্মা বা টিবি
            ৫. ব্রংকিয়েকটেসিস
            ৬. ফুসফুসে পানি জমা
           

ঔষুধ সেবনের ক্ষেত্রে রেজিষ্টার চিকিত্‌সকের পরামর্শ নিন৷ অন্যথায় কোন সমস্যার জন্য ডি.নেট দায়ী থাকবে না৷

তথ্য সূত্র: Principle & Practice of Medicine by Davidson
দেহের যত অসুখ বিসুখ- ডা. বরেন চক্রবতী