Author Topic: বাংলাদেশের মেয়েদের হ্যাটট্রিক ‘শিরোপা’  (Read 77 times)

Offline Dewan Mamun Raza

  • Jr. Member
  • **
  • Posts: 88
  • “Experience teaches only the teachable.”_A. Huxley
    • View Profile
এশিয়া কাপ জিতেছে। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে। আজ টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের চ্যাম্পিয়নও হয়েছেন বাংলাদেশের মেয়েরা—টানা তিনটি ‘শিরোপা’ জয়ের আনন্দের ঢেউ এখন মেয়েদের দলে। নিশ্চিত বাংলাদেশের মেয়েদের ক্রিকেটে এর চেয়ে ভালো সময় আগে কখনো আসেনি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ফাইনালে আয়ারল্যান্ডকে ২৫ রানে জয়ের দিনে দুর্দান্ত এক রেকর্ড গড়েছেন পান্না ঘোষ। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সেরা বোলিং এখন তাঁরই।

ইউট্রেখটে টস হেরে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশের শুরুটা হয়েছিল দারুণ। ৪ ওভারের মধ্যেই ২৮ রান তুলে ফেলেছিলেন দুই ওপেনার শামীমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান। ব্যক্তিগত ১৬ রানে ও’ রেলির শিকার হয়ে ফিরে যান শামীমা। দ্বিতীয় উইকেটে ফারজানার সঙ্গে ৫২ রানের জুটি গড়ে ইনিংস এগিয়ে নেন আয়েশা। বেশ আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করেছেন আয়েশা। মেটকাফের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৪১ বলে ৫ চার আর ২ ছক্কায় ৪৬ রান করেন আয়েশা। তাঁর ফেরার পরই ধস নামে বাংলাদেশ ইনিংসে। তিনি ছাড়া আরও ৭ বাংলাদেশি ব্যাটার ফেরেন ৮০ থেকে ১২০—এই ৪০ রানের মধ্যে। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১২২ রানে শেষ হয় বাংলাদেশের ইনিংস।

১২৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ২৭ রানেই ৩ উইকেট হারায় আয়ারল্যান্ড। ষষ্ঠ ওভারে শিলিংটন ও ডেলানিকে ফেরান পান্না ঘোষ। একই ওভারে দুই উইকেট ম্যাচে আরও একবার নিয়েছেন পান্না। ১৬ তম ওভারের চতুর্থ ও ষষ্ঠ বলে রিচার্ডসন ও কাভানাগের উইকেট দুটি তুলে নেন তিনি। নিজের শেষ ওভারে ওয়ালড্রনের উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় বাংলাদেশি বোলার হিসেবে পাঁচ উইকেট নেন পান্না। ১৬ রানে ৫ উইকেট নিয়ে টি-টোয়েন্টিতে দেশের সেরা বোলিং এখন তাঁর। নাহিদা ও রুমানা আহমেদ নেন দুটি করে উইকেট। এই ত্রিমুখী আক্রমণে ৯৭ রানে গুটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ডের ইনিংস।

বাছাই পর্বের চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জায়গা হয়েছে ‘এ’ গ্রুপে ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে। ৯ নভেম্বর গায়ানায় টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবে সালমার দল।
Source:- Prothom-alo
-Dewan Mamun Raza
--Lecturer, CSE, DIU