Author Topic: মিইউআই ১০: সব শাওমি ফোনেই এবার 'পোট্রেট মোড'  (Read 237 times)

Offline provakar_2109

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 124
  • Test
    • View Profile
আজকাল বাজেটবান্ধব একটি স্মার্টফোন কেনার কথা চিন্তা করলে চীনের স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান শাওমির নাম অবশ্যই প্রথম দিকেই আসবে। আকর্ষণীয় দামে সুন্দর ডিজাইন এবং ফ্লাগশিপ মানের কনফিগারেশনের জন্য শাওমি বেশ সুবিদিত। চীনের বাজার জয় করার পরে এখন ভারত এবং বাংলাদেশের স্মার্টফোনের বাজারে শাওমির রাজত্ব চলছে।

সম্প্রতি শাওমি স্মার্টফোনের নতুন ইউজার ইন্টারফেস মিইউআই ১০ অবমুক্ত করা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ ৮' এর উপর ভিত্তি করে তৈরি করা এই নতুন ইউআই-তে আকর্ষণীয় পোট্রেট মোড, সন্নিবেশিত রিসেন্ট মেন্যুসহ ওরিও ভিত্তিক বেশ কিছু পরিবর্তন থাকছে। শাওমি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য সবথেকে বড় সুখবরটি হচ্ছে- ক্যামেরা এবং স্মার্টফোনের কনফিগারেশন যেটাই হোক না কেন, এখন থেকে তারা তাদের স্মার্টফোনের ক্যামেরায় আকর্ষণীয় ব্লারযুক্ত 'পোট্রেট ছবি' পেতে চলেছেন। বর্তমানে পাবলিক বেটা সংস্করণ অবস্থায় নতুন এই ইউআই ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত থাকলেও খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ব্যবহারকারীরা তাদের শাওমি স্মার্টফোনে ওরিও ভিত্তিক এই নতুন মিইউআই ১০ আপডেট পেতে চলেছেন। মিইউআই১০ নতুন কী কী ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে? চলুন, বিস্তারিত জানা যাক।

পোট্রেট মোড

শাওমি স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য সবথেকে বড় সুখবরটি হচ্ছে, মিইউআই ১০ এর মাধ্যমে অধিকাংশ শাওমি ফোনের ক্যামেরায় এআই ফিচারযুক্ত পোট্রেট মোড আসতে চলেছে! শাওমির দুটি রিয়ার ক্যামেরাবিশিষ্ট স্মার্টফোনগুলোতে গত বছর থেকেই পোট্রেট মোড থাকলেও একটি রিয়ার এবং সেলফি ক্যামেরার ফোনগুলোতে বিষয়টি একদমই নতুন।

দুটি ক্যামেরার ক্ষেত্রে ‘ডেপথ তথ্য’ পরিমাপের মাধ্যমে পোট্রেট মোড পাওয়া গেলেও একটি ক্যামেরার ক্ষেত্রে মূলত সফটওয়্যার নির্ভর প্রযুক্তি কাজ করে। সাম্প্রতিক কয়েক মাসে গুগল ক্যামেরার পোট্রেট মোডে বিস্ময়কর সাফল্য আসার পরেই শাওমি মূলত এই পথে হাঁটছে। গুগলের পিক্সেল স্মার্টফোনে ব্যবহৃত গুগল ক্যামেরার সোর্স কোড উম্মোচনের পর থেকে একটি রিয়ার বা সেলফি ক্যামেরার স্মার্টফোনগুলোতে ভালো মানের পোট্রেট ছবি পাওয়া এখন আর অলীক কোনো স্বপ্ন নয়।

শাওমির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে-

    মিইউআই ১০ থেকে আমাদের ফোনগুলোর অধিকাংশ ব্যবহারকারী ক্যামেরার ক্ষেত্রে একটি পরিবর্তন দেখতে পাবেন। তাদের ফোনগুলোর জন্য আকর্ষণীয় পোট্রেট ছবির ব্যবস্থা থাকছে। রিয়ার এবং সেলফি ক্যামেরার যথার্থ পোট্রেট ছবি পাবার জন্য আমরা ইউজার ইন্টারফেসে 'এআই' সংযুক্ত করেছি এবং পোট্রেট মোড অ্যালগ্যারিদমকে অন্তত ১ লক্ষ ছবির সাথে পরিচিত করিয়েছি। মিইউআই ১০ এর অন্যতম আকর্ষণীয় দিক এটি।

সন্নিবেশিত রিসেন্ট মেন্যু

স্মার্টফোনর নকশায় ১৮:৯ অনুপাত আসার পরেই শাওমির UI ইন্টারফেসে একটি পরিবর্তন সূচিত হয়। ফুলভিশন স্ক্রিনের স্মার্টফোনগুলোতে মিইউআই ৯ থেকে ‘সোয়াইপ জেসচারস’ চালু করা হয়। মিইউআই ১০ থেকে স্মার্টফোনের বড় স্ক্রিনের কথা মাথায় রেথে 'রিসেন্টস’ মেনুতেও পরিবর্তন আসতে চলেছে।

নতুন ‘রিসেন্টস’ মেনুতে ব্যবহার করা অ্যাপগুলো উলম্বভাবে সাজানো থাকছে। মূলত লম্বা স্ক্রিনের কথা মাথায় রেখেই অ্যাপগুলোকে এমনভাবে সাজানোর ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তবে আগের মতোই সোয়াইপের মাধ্যমে কোনো অ্যাপ ডিলিট করা যাবে। এছাড়া নতুন ফিচার হিসেবে অ্যাপগুলোতে ‘ট্যাপ এবং হোল্ডের’ মাধ্যমে বাড়তি অপশনের ব্যবস্থা থাকছে।

নতুন নোটিফিকেশন সেন্টার

নতুন ইউআই ইন্টারফেসের নোটিফিকেশন সেন্টারে শাওমি একটি পরিবর্তন এনেছে। এক্ষেত্রে তারা অনেকটা স্যামসাং স্মার্টফোনের ইউআই 'টাচউইজ'কে অনুসরণ করেছে। মিইউআই ১০ এর নোটিফিকেশনের ক্ষেত্রে এবার প্রাকৃতিক বৈচিত্র্যকে নির্বাচন করা হয়েছে। শুধু নোটিফিকেশনেই নয়, বরং বিভিন্ন নোটিফিকেশন সাউন্ডের ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্রাকৃতিক শব্দকে নির্বাচন করা হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ- ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টি অথবা পানি পড়ার শব্দের কথা যেতে পারে। ঠিক এমন নানা রকমের প্রাকৃতিক শব্দকে রিংটোন এবং অ্যালার্ম টোন হিসেবেও রাখা হয়েছে।

বিশেষ একটি টাইমার

মিইউআই ১০ এর অন্যতম মজার একটি ফিচার হচ্ছে- প্রকৃতির সাথে মিল রেখে বিশ্রামের জন্য এতে বিশেষ একটি টাইমারের ব্যবস্থা থাকছে। এই টাইমারে সময় গণনার সাথে সাথে পছন্দমতো প্রাকৃতিক শব্দের সন্নিবেশ ঘটানো হয়েছে। উদাহরণ হিসেবে ঠিক কোনো গহীন বনের মধ্যে বৃষ্টির শব্দের কথা বলা যেতে পারে। কর্মব্যস্ত দিন শেষে একটু আরামের জন্য কৃত্রিম কিন্তু অভিনব এই প্রাকৃতিক অনুভূতির বিষয়টি কিন্তু সুখকর বটে।

পুনঃনকশাকৃত ভলিউম এবং ব্রাইটনেস স্লাইডার

গতানুগতিক ভলিউম এবং ব্রাইটনেস স্লাইডারের পরিবর্তে শাওমি তাদের নতুন ইউআই থেকে পরিবর্তিত এবং পুনঃনকশাকৃত ভলিউম এবং ব্রাইটনেস স্লাইডারের ব্যবস্থা রেখেছে। যদিও এটি বড় ধরনের কোনো পরিবর্তন নয়, তবে স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে  এন্ড্রয়েড 'পি' ভিত্তিক এই ফিচারটি নতুন এবং বেশ আকর্ষণীয়।

এখন থেকে ভলিউম রকার বাটন ব্যবহার করে ভলিউম বাড়ানো বা কমানোর চেষ্টা করা হলে রকার বাটনের কাছেই একটি 'নিয়ন্ত্রণ ওভারলে' ভেসে উঠবে। ভিন্ন ভিন্ন দুটি স্লাইডার ভেসে উঠলে স্ক্রিনের যেকোনো জায়গায় স্পর্শ করে এখন থেকে ব্রাইটনেস এবং ভলিউম নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। নতুন এই স্লাইডার ওভারলে ব্যবস্থাপনাটি অন্যান্য বিভিন্ন কোম্পানির এন্ড্রয়েড স্কিন থেকে বেশ ভিন্ন এবং নতুন।

প্রতিক্রিয়াশীলতা এবং দ্রুততা


অ্যান্ড্রয়েড এখন আর শুরুর দিনগুলোতে থেমে নেই। সময়ের সাথে সাথে আজকের অ্যান্ড্রয়েড অতীতের যেকোনো সময় থেকে দ্রুত এবং প্রতিক্রিয়াশীল। বর্তমানে কম্পিউটারের অনেক কাজ আধুনিক একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন দিয়ে করা সম্ভব।

মিইউআই ১০ শাওমির আগের যেকোনো ইউআই থেকে দ্রুতগতিসম্পন্ন হতে চলেছে। শাওমির পক্ষ থেকে তাদের নতুন এই অ্যান্ড্রয়েড স্কিন সম্পর্কে বলা হচ্ছে-

    আমাদের নতুন ইউআই আগের থেকে দ্রুত এবং কাজের ক্ষেত্রে প্রতিক্রিয়াশীল করে তোলার জন্য 'lock-free critical path' এবং 'co-dependent prioritizing' নামের ভিন্ন দুটি নতুন ফিচার থাকছে। এর ফলে স্মার্টফোনগুলো যেকোনো টাস্ক আগের তুলনায় অন্ততপক্ষে ১০ শতাংশ দ্রুত সম্পন্ন করতে পারবে।

ভারতীয় অঞ্চলের জন্য বিশেষ সুবিধা

ভারতীয় অঞ্চলে, বিশেষ করে ভারত এবং বাংলাদেশে, শাওমি স্মার্টফোন বর্তমানে আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা উপভোগ করছে। বাংলাদেশে শাওমি সরাসরি স্মার্টফোন বিক্রি না করে থাকলেও পাশের দেশ ভারতে সরাসরি ফোন বিক্রি করে থাকে।

নতুন ইউআই এ ভারতীয় অঞ্চলের জন্য বিশেষ কিছু স্বতন্ত্র ফিচার থাকছে। প্রথমেই ক্যামেরা অ্যাপের সাথে অত্যন্ত জনপ্রিয় আর্থিক লেনদেন সেবা পেটিএম সমন্বয়ের কথা বলা যায়। নতুন মিইউআই এ ক্যামেরা অ্যাপ থেকে কোন পেটিএম QR কোড স্ক্যান করলে সহজে আর্থিক লেনদেনের জন্য পেটিএম অ্যাপ চালু হয়ে যাবে। এছাড়া ভারতের ব্যবহারকারীদের জন্য ইন্টারনেট ব্রাউজারে নতুন কিছু সেবা থাকছে। নতুন ইউআইতে অনেক সাইটের 'প্রোগ্রেসিভ ওয়েব অ্যাপ' ইন্টারফেসের সমন্বয় থাকছে।

এছাড়া এসএমএস অ্যাপের ক্ষেত্রে একটি পরিবর্তন আসছে। এখন থেকে এসএমএসে কোনো ধরনের ওয়েব লিঙ্ক থাকলে এবং ঐ লিঙ্ক সম্পর্কিত কোনো অ্যাপ ফোনে থেকে থাকলে সেক্ষেত্রে অ্যাপটি সহজে চালু করার ব্যবস্থা থাকছে।

কোন স্মার্টফোনগুলো মিইউআই ১০ আপডেট পাচ্ছে?

সাম্প্রতিক সময়ের সব শাওমি ফ্লাগশিপ এবং মিডরেঞ্জের স্মার্টফোনগুলো প্রথমেই নতুন এই ইউআই আপডেট পাবে। এছাড়া অপেক্ষাকৃত পুরনো মডেলগুলোর মধ্যে অধিকাংশ স্মার্টফোনই ক্রমান্বয়ে এই আপডেট পাবে বলে শাওমির তরফ থেকে বলা হয়েছে।এদের মধ্যে রেডমি ৪এ, রেডমি ৪এক্স, রেডমি ৩’এর মতো পুরনো মডেলগুলোও রয়েছে। 

কবে নাগাদ আপডেট পাওয়া যাবে?

শাওমির সাম্প্রতিক ফ্লাগশিপ স্মার্টফোন মি ৮’এ প্রিলোড করা অবস্থায় মিইউআই ১০ থাকছে। এছাড়া পাবলিক বেটা টেস্টিং প্রোগ্রামের আওতায় যেকোনো ব্যবহারকারী চাইলেই নতুন এই ইউআই এর বেটা সংস্করণ ব্যবহার করতে পারছেন। শাওমি থেকে জানানো হয়েছে, জুলাই থেকেই ব্যবহারকারীরা নতুন এই ইউআই এর স্ট্যাবল আপডেট পাওয়া শুরু করবেন। প্রথমদিকে সাম্প্রতিক সময়ের মডেলগুলো এবং ক্রমান্বয়ে অপেক্ষাকৃত পুরনো মডেলগুলো মিইউআই ১০ পেতে যাচ্ছে।

Offline Farzana Akter

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 259
    • View Profile
--Sincerely yours

Farzana Akter
Lecturer, Department of Computer Science and engineering
Daffodil International University