Author Topic: তেলাপিয়া মাছ খেলে হবে যেসব বিপদ  (Read 336 times)

Offline syful_islam

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 108
  • Test
    • View Profile
 যুগান্তর ডেস্ক ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:২৫ | অনলাইন সংস্করণ
তেলাপিয়া মাছ
তেলাপিয়া মাছ। ছবি: সংগৃহীত

একসময় তেলাপিয়া মাঝে বাঙালি নাট সিঁটকালেও বর্তমানে এ মাছই খাবারের তালিকায় অন্যতম। তেলাপিয় এখন বাঙালির অত্যন্ত প্রিয় একটি মাছ।

এ মাছের পুষ্টিগুণ নিয়ে এখনও কোনো দ্বিমত হয়নি পুষ্টিবিদদের মাঝে।

তেলাপিয়ায় প্রোটিন, পটাশিয়াম, ভিটামিন বি-১২, ফসফরাসের মতো একাধিক অপরিহার্য উপাদান রয়েছে বলে জানিয়েছেন পুষ্টিবিদরা।

সেকারণেই তেলাপিয়া বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয় একটি মাছ। যদিও প্রথম দিকে এ মাছে তেমন একটা আগ্রহী ছিল না এ দেশের মানুষ।

তবে সম্প্রতি একাধিক গবেষণায় তেলাপিয়া মাছের বেশ কয়েকটি ক্ষতিকর দিক প্রকাশ পেয়েছে।

তেলাপিয়া মাছ খেলে মরণব্যাধি ক্যান্সারের ঝুঁকি প্রায় ১০ শতাংশ বেড়ে যেতে পারে বলে দাবি করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) গবেষকরা।

এশিয়া থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি হওয়া তেলাপিয়া মাছগুলোর ওপর গবেষণা করেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষি বিভাগ।

গবেষণায় তারা এসব তেলাপিয়া মাছের দেহে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকারক বিষ খুঁজে পান।

৮০০-র বেশি নমুনা পরীক্ষা করেন তারা। সে পরীক্ষায় ‘ডিবিউটিলিন’ এবং ‘ডাইঅক্সিন’ নামের মারাত্মক ক্ষতিকর রাসায়নিকের উপস্থিতি পান এসব তেলাপিয়ার মাংসে।

প্লাস্টিকের বিভিন্ন জিনিস তৈরিতে ব্যবহৃত হয় এই ‘ডিবিউটিলিন’ যা মানবদেহে প্রবেশ করলে স্থুলতা, হাঁপানি, অ্যালার্জি এবং নানা রকমের বিপাকীয় রোগের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

এর চেয়েও ভয়ংকর রাসায়নিক ‘ডাইঅক্সিন’ যা মানবদেহে প্রবেশ করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে বলে দাবি বিজ্ঞানীদের।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) এর রিপোর্টে জানানো হয়েছে, তেলাপিয়া উৎপাদনে ব্যবহৃত মাছেদের খাদ্য হাঁস, শূকর বা মুরগির দেহাবশেষ থেকে এসব বিষ জন্মেছে তাদের শরীরে।

এগুলো খেলে মাছগুলো দ্রুত বেড়ে ওঠলেও একই সঙ্গে বিষাক্ত হয়ে ওঠে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে আমদানি হওয়া তেলাপিয়া মাছের বাজারের ৭০ শতাংশই চীনের দখলে।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১৩৫টিরও বেশি দেশে বর্তমানে তেলাপিয়া মাছের চাষ হয়।

বাংলাদেশে উৎপাদিত তেলাপিয়াতে কোনো ক্ষতিকর উপাদান নেই বলে দাবি করা হয়েছিল বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইন্সটিউটটের (বিএফআরআই) পক্ষ থেকে।

২০১৬ সালে বিএফআরআই এর এক গবেষণার তথ্য তুলে ধরে তৎকালীন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব মো. মাকসুদুল হাসান খান বলেছিলেন ‘বাংলাদেশে উৎপাদিত তেলাপিয়া মাছ খাওয়ার ক্ষেত্রে কোনো স্বাস্থ্যগত সমস্যা বা ঝুঁকি নেই। এখানকার তেলাপিয়া মাছে কোনো বিষাক্ত রাসায়নিক দ্রব্য নেই। স্বাস্থ্যের জন্য শতভাগ নিরাপদ এবং পুষ্টিমান সমৃদ্ধ। তাই দেশের মানুষ বিনা ভয়ে তেলাপিয়া মাছ খেতে পারবেন।’

Offline masudur

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 164
  • I love teaching.
    • View Profile
    • Visit my website
Nice post.
Mohammad Masudur Rahman,
Lecturer,
Department of Computer Science and Engineering,
Faculty of Science and Information Technology,
Daffodil International University,
Daffodil Tower,
4/2, Sobhanbag, Mirpur Road,
Dhanmondi, Dhaka-1207.

Offline mosfiqur.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 280
  • Test
    • View Profile
Md. Mosfiqur Rahman
Sr.Lecturer in Mathematics
Dept. of GED

Offline masudur

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 164
  • I love teaching.
    • View Profile
    • Visit my website
Mohammad Masudur Rahman,
Lecturer,
Department of Computer Science and Engineering,
Faculty of Science and Information Technology,
Daffodil International University,
Daffodil Tower,
4/2, Sobhanbag, Mirpur Road,
Dhanmondi, Dhaka-1207.

Offline Sharmin Jahan

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 258
    • View Profile
Good to know

Offline shan_chydiu

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 266
  • Test
    • View Profile
Helpful post.
Shanjida Chowdhury

Offline masud.ce@diu.edu.bd

  • Newbie
  • *
  • Posts: 21
  • Test
    • View Profile

Offline effatara

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 134
  • Test
    • View Profile
 Good post..
Effat Ara Jahan
Lecturer
Department of Nutrition and Food Engineering
Faculty of Allied Health Sciences

Offline Al Mahmud Rumman

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 106
  • Test
    • View Profile
হাইব্রীড সবই বিপজ্জনক।

Offline Shahrear.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 353
  • Plan living, High Thinking, Love After Marriage !!
    • View Profile
Thanks for sharing
Shahrear Khan Rasel
Sr. Lecturer
Dept. of GED
Daffodil International University

Offline sisyphus

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 372
  • RAM
    • View Profile
এমনিতেই চাহিদের তুলনায় বাজারে মাছের যোগান কম। তেলাপিয়া বর্জন করলে সংকট বাড়বে  :-\
Mr. Rafi Al Mahmud
Sr. Lecturer
Department of Development Studies
Daffodil International University

Offline Raihana Zannat

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 270
  • Test
    • View Profile
Raihana Zannat
Senior Lecturer
Dept. of Software Engineering
Daffodil International University
Dhaka, Bangladesh

Offline Sharminte

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 300
  • Test
    • View Profile
 thanks for sharing
Sharmin Akter
Lecturer
Department of Textile Engineering
Permanent Campus
Email: sharmin.te@diu.edu.bd

Offline tasnim.ete

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 505
  • Test
    • View Profile
 thanks for sharing