Author Topic: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.  (Read 462 times)

Offline Md. Azizul Hakim

  • Newbie
  • *
  • Posts: 24
  • Respect is everything.
    • View Profile
সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« on: March 27, 2019, 03:57:50 PM »
সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা........


#ঢাকা_টু_শিলিগুরি ঃ
আমাদের বর্ডার ছিল চেংড়াবান্দা। তবে আপনারা ফুলবাড়ি পোর্ট এন্ট্রি করে আসার চেস্টা করবেন। এতে খরচ ও সময় দুইটায় কমবে। ফুলবাড়ি থেকে শিলিগুলি অটোতে ৩০ রুপী, সময় আধাঘন্টার মত লাগবে। আর চেঙড়াবান্দা থেকে আলাদাভাবে গাড়ি রিজার্ভ করে যেতে হবে। ৮ জনের গাড়ি ২৫০০ থেকে ৩০০০ রুপী লাগবে, সময়ও প্রায় ৩/৪ ঘন্টা।
আমরা ঢাকা থেকে রাতের SR পরিবহনে নন এসিতে ৬৫০ টাকায় বুড়িমারী পৌছায়। তারপর পায়ে হেটে বর্ডারে বাংলাদেশে স্পীডমানি ২০০টাকা আর ভারতীয় বর্ডারে ১০০ রুপী দিয়ে পার হই।
#শিলিগুরি_টু_গ্যাংটক_এবঙ_পারমিনশন ঃ
শিলিগুলি জংশনের পাশেই SNT ( SIKIM NATIONALIESED TRANSPORT) থেকে পারমিশনের ফর্ম ফিলাপ করে ফেলুন। তারপর জনপ্রতি 250 রুপীতে অথবা SNT এর পাশেই গাড়ির নাম্বার প্লেটে SK(মানে সিকিমের গাড়ি) লেখা দেখে ৮ জনের গাড়ি ২৪০০-৩০০০ রুপীর মধ্যে ঠিক করে ফেলুন। যাত্রাপথে Ranpo তে নেমে লাইনে দাড়িয়ে এন্ট্রি সিল নিয়ে নিন।
SNT তে কোন কাজ না করে শুধু Rangpo তে গেলেও হবে, তবে সময় একটু বেশী লাগবে।
Rangpo থেকে পাওয়া permit form ফটোকফি করে ফেলুন।
★★★ শিলিগুরি থেকে কোন প্যাকেজ নিবেন না। পথে বসায় দিবে তারা। সাবধান। শিলিগুরি খুবই বিপদজনক এলাকা।
#হোটেল ঃ
সিকিমে প্রথমেই যে ব্যাপার আসে, সেটা হল হোটেল। সিকিমের রাজধানী গ্যাংটকের সেন্ট্রাল পয়েন্ট হলো MG Marg । এখানে হোটেলের প্রাইস কিছুটা বেশী। তাই আমরা MG Marg থেকে ট্যাক্সিতে ১৫ টাকা দূরত্বে Deorali Bazar কাছে হোটেল নেই। 2 ডাবল বেড পার ডে ১০০০ রুপী।
#ইন্ডিয়ান_সিমকার্ড :
ইন্ডিয়ান সিমকার্ড নিয়ে আমাদের অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়ছে। আমাদের শিলিগুরি, চেংড়াবান্দা, সিকিমের কোথায় ফরেনার হওয়ার জন্য সিম দেয় নাই। আপনার চেস্টা করবেন টীমের অন্তত একজনের কাছে একটা সিম যেন থাকে যত টাকাই লাগুক।
কোনভাবে সিম ম্যানেজ করতে না পারলে সরাসরি ওদের কাস্টমার কেয়ারে চলে যাবেন। ওখান থেকে সিম পাবেন শিউর।
#ট্যুর_প্ন্যান ঃ
১ম দিন :
আমরা গ্যাংটক শহরে ঘুরছিলাম । ৪ জনের ট্যাক্সিতে ১০০০ রুপী তে।
আমরা নিচের জায়গাগুলা ঘুরছিলাম
১. রোপওয়ে
২. হনুমান টক
৩.গনেশ টক
৪. Institute of Tibetology বন্ধ থাকে রবিবার
৫. Flower Exibition center
৬.Neheru Botanical Garden
৭. Tashi view point
৮.Shanti view point
আরো যেতে পারেন, যদিও বেশ খানিকটা দূরে, তাই আমাদের সময় হয় নাই।
রুমটেক মনস্ট্রি
রাংকা মনস্ট্রি
এছাড়াও Sikim medical college আর Sikim Manipal University টাও ঘুরে আসতে পারেন। এগুলা শহরের কাছেই।
১ম দিনেই এন্জেসীর সাথে কথা বলে সাংঙ্গু আর ইয়াঙথাম ভ্যালীর প্যাকেজ ঠিক করে ফেলুন।
২টা প্যাকেজের জনপ্রতি ৬ কপি ছবি, ৬ কপি পাসপোর্টের ফটোকপি, ৬কপি ভিসার ফটোকপি লাগবে,৪ কপি Rangpo permit form । অন্যান্য permit এর কাজ এরাই করবে।
২য় দিন :
আমরা সাঙ্গু লেকে জন্য ৪০০০ টাকায় প্যাকেজ করেছিলাম। আর লোক যদি ৮ জন হয় তাহলে মাহিন্দ্রা BOLERO গাড়ি দিতে বলবেন। অন্য গাড়িতে কিছুটা কস্ট হয়। যাওয়ার পথে ১০০ রুপী দিয়ে বুট ভাড়া নিয়ে নিবেন। আর সাঙ্গুতে অবশ্যই রোপওয়ে উঠবেন। ৩২৫ টাকা পার পারসন। ব্যাক করার সময় দুপুর ২/৪ মধ্যে গ্যাংটকে পৌছে যাবেন। তারপর একটা সিনেমা দেখে ফেলতে পারেন। সিনেমা হল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকে। আর সিনেমা হল MG MARG এর পাশেই।
৩য় ও ৪র্থ দিন :
লাচুঙ ও ইয়ানথাম প্যাকেজ আমরা ১৫০০০ টাকায় বুক করছিলাম। এর মধ্যে ফুড,ট্রান্সপোটেশন, হোটেল ইনক্লুডেড।
প্যাকেজ নেয়ার সময় অব্যশই হোটেলের ব্যাপারে ভালো করে জেনে নিবেন। কাঠের হোটেল পরিহার করবেন। আর এজেন্সীর কাজ থেকে ২টা লান্চ,১টা ডিনার, ১টাব্রেকফাস্ট বুঝে নিবেন। আর কিছু শুকনা খাবার নিয়ে যাবেন সাথে করে।
এদিন আমরা সকাল ১০টাই বের হয়। রাস্তায় সেভেন স্টেপ ফলস,নাগা ফলস, চোঙদাম ড্যাম দেখে রাতে লাচুঙ থাকি, পরদিন সকালে ইয়ানথাম ভ্যালী চলে যাই। যদি সুযোগ থাকে ড্রাইভারকে ৫০০ টাকা এক্সট্রা দিয়ে জিরো পয়েন্ট চলে যাবেন। আর ড্রাইভারের কথায় ভুলে কাটাও যাওয়ার দরকার নাই। শুধু শুধু টাকা নস্ট হবে। তারপর দুপুর ১২টায় আমরা গাড়িতে করে গ্যাংটক ব্যাক করি। পৌছাতে ৪টা বাজে।
ওদিনই আমরা শিলিগুরি ব্যাক করি। গ্যাংটক থেকে ব্যাক করার সময় অবশ্যই Rangpo থেকে সীল নিয়ে আসবেন। পরদিন চেংড়াবান্দা হয়ে বাংলাদেশ।
#খাবার ঃ
গ্যাংটক শহরে প্রচুর বাংলা খাবারের দোকান পাবেন চিন্তার কিছু নাই। আর সকালের খাবার MG MARG করতে পারেন পুরী সবজি দিয়ে ৪০ টাকায়।
#খরচ ঃ
আমরা ৮ জন ছিলাম। বাজে খরচ বাদ দিয়ে আমাদের পার পারসন ১২হাজার টাকার মত লেগেছিল। ৮ জনের কম হলে খরচ বাড়বে। বেশী হলেও খরচ বাড়বে।
তবে এপ্রিল মাসে নাকি ভারতীয়রা সিকিম বেশী যায়, কারণ স্কুলে বন্ধ থাকে । তাই খরচ কিছুটা বাড়বে।

# কিছু_কথা ঃ
আপনার হাতে সময় থাকলে সাউথ সিকিম যেতে পারেন। সেটাও ছবির মত সুন্দর।
বাংলাদেশী জন্য গুরুডঙমার লেক, নাথুলা পাস, বাবা মন্দির যাওয়ার permit নাই।
যেখানে সেখানে ময়লা ফেলবেন না। ডাস্টবিন ব্যবহার করুন। রাতের বেলা উচ্চস্বরে কথা বলে বাংলাদেশীদের সম্মান নস্ট করবেন না। দেখে শুনে রাস্তা পার হওয়ার চেস্টা করবেন। ওভারব্রীজ থাকলে অবশ্যই সেটা ব্যবহার করবেন। মার্চ এপ্রিলে গেলে ছাতা নিয়ে যাবেন
Lecturer,
Department of CSE
azizul.cse@diu.edu.bd

Offline rayhanul.bba

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 218
  • Test
    • View Profile
Re: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« Reply #1 on: March 30, 2019, 02:21:47 AM »
Helpful post.
Md. Rayhanul Islam
Senior Lecturer
Department of Real Estate
Facuty of Business & Entrepreneurship
Daffodil International University

Offline tasmiabaten

  • Newbie
  • *
  • Posts: 21
  • Test
    • View Profile
Re: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« Reply #2 on: May 09, 2019, 12:40:33 PM »
helpful

Offline Raisa

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 741
  • Sky is the limit
    • View Profile
Re: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« Reply #3 on: May 11, 2019, 01:04:36 PM »
 :)
:)

Offline fahmidasiddiqa

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 224
  • Test
    • View Profile
Re: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« Reply #4 on: June 24, 2019, 12:49:06 PM »
 this is very informative. thank you sir.

Offline shirin.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 310
  • Test
    • View Profile
Re: সিকিম ভ্রমণ ও কিছু কথা.
« Reply #5 on: August 04, 2019, 07:36:47 PM »
Thanks for sharing...
Shirin Sultana
Lecturer (Mathematics)
Dept. of General Educational Development (GED)
Daffodil International university