Author Topic: সেন্টিনেলিজ, সভ্যতা বিচ্ছিন্ন এক জাতির গল্প  (Read 55 times)

Offline Faruq Hushain

  • Jr. Member
  • **
  • Posts: 58
  • Test
    • View Profile
মূলত দ্বীপের নাম অনুসারে তাদের সেন্টিনেলিজ বলে ডাকা হয়। দ্বীপের বাসিন্দারা সভ্যতার দীপ্ত আলো এখনো দেখতে পারেননি৷ তাদের মধ্যে কৃষিকাজ করা বা আগুন ব্যবহারে প্রমাণ পাওয়া যায় নি। তারা খুবই রক্ষণশীল ও বাইরের জগতকে এড়িয়ে চলে।

আন্দামান দ্বীপপুঞ্জে সেন্টিনেলিজসহ গ্রেট আন্দামানিজ, অনেজ, জারাওয়া চারটি উপজাতি গোত্র বাস করে। ১৮৫৭ সালে সিপাহী বিদ্রোহের পর ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক শাসকরা বন্দীদের আটকে রাখার জন্য আন্দামানের স্ট্রেইট দ্বীপে কারা কলোনি স্থাপন করে। দুই বছর পর স্থানীয় গ্রেটার আন্দামালিজদের সাথে ব্রিটিশ সৈন্যবাহিনী বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায়। তবে সেন্টিনেলিজরা বিচ্ছিন্ন দ্বীপের বাসিন্দা হওয়ায় বিট্রিশদের ঔপনিবেশিক শাসনের আওতার বাইরে থেকে যায়।

২০১১ সালের হিসাব অনুযায়ী সেন্টিনেলিজদের জনসংখ্যা প্রায় ৪০ জন। কাপড়বিহীন হওয়ায় বন্য লতাপাতা দিয়ে শরীর ঢেকে রাখে। তারা শিকার নির্ভর জাতি। সমুদ্র থেকে তীর দিয়ে মাছ শিকার করে। এছাড়াও বুনো শূকর, কলা আর মধু তাদের প্রধান খাবার।

বহিরাগতদের ওপর আক্রমণাত্মক মনোভাব ও বর্হিবিশ্বের সাথে সব ধরনের যোগাযোগ প্রতিরোধ করার জন্য তারা বিশেষভাবে পরিচিত।

১৯৭৪ সালে নৃতত্ববিদ ত্রিলোকনাথ পণ্ডিত দ্বীপে গিয়ে তাদের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। এরই ধারাবাহিকতায় তাদের জন্য সমুদ্র সৈকতে খাবার ছড়িয়ে উপহার হিসাবে বেশ কিছু অভিযান পরিচালনা করেন।কিন্তু তাদের কাছ থেকে নতুন রোগের বিস্তারের আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় অভিযানগুলো বন্ধ করে দেন।

১৯৮১ সালের হংকং এর জাহাজ প্রাইমরস সেন্টিনেল দ্বীপের কাছে নোংগর করলে সেন্টিনেলিজরা আক্রমণের প্রস্তুতি নেয়। এমন অবস্থায় এক সপ্তাহ পর ভারতীয় নৌবাহিনীর হেলিকপ্টার জাহাজে থাকা নাবিককে উদ্ধার করে। ২০০৪ সালের ভয়াবহ সুনামির পর ভারতীয় কর্মকর্তারা দ্বীপটির ওপর আকাশ থেকে জরিপের সময় দ্বীপের বাসিন্দারা হেলিকপ্টারটি তীর ছুড়ে বিধ্বস্ত করার চেষ্টা চালায়। ২০০৬ সালে দুই জন জেলে মাছ ধরতে দ্বীপের কাছাকাছি গেলে নির্মম ভাবে হত্যা করে।

সম্প্রতি এই বছরের নভেম্বরে এক মার্কিন পর্যটক তাদের সাথে দেখা করতে গেলে হত্যা করে তারা।

উত্তর সেন্টিনেল দ্বীপটি ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের একটি শাসিত অংশ। ভারত সরকার অনিয়মিত পর্যবেক্ষণ, ব্যতিক্রম কিছু ক্ষেত্রে দ্বীপটিতে পরিদর্শন অভিযান এবং সাধারণ জনগণকে দ্বীপটিতে যেতে নিরুৎসাহিত করে। বাস্তবে সেন্টিনেলিজরা সর্ব প্রকার নিজস্ব স্বাধীনতা ভোগ করে৷ আন্দামান দ্বীপপুঞ্জে সেন্টিনেলিজ জাতি ছাড়া অন্য জাতিগোষ্ঠীর সাথে বাইরের মানুষের অনেক ভালো যোগাযোগ রয়েছে।