Author Topic: ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ১ রান?  (Read 240 times)

Offline Anuz

  • Faculty
  • Hero Member
  • *
  • Posts: 1901
  • জীবনে আনন্দের সময় বড় কম, তাই সুযোগ পেলেই আনন্দ কর
    • View Profile
লিচ যখন উইকেটে আসেন, ইংল্যান্ডের জয়ের জন্য দরকার ৭৩ রান। ততক্ষণে মোটামুটি সবাই নিশ্চিত, অ্যাশেজের এই টেস্টটাও জিততে চলেছে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু বেন স্টোকস আর জ্যাক লিচ যে নৈরাশ্যবাদীদের দলে ছিলেন না! সেখান থেকে তিলে তিলে গড়ে তুললেন জুটি। যে জুটিতে পরবর্তী এক ঘণ্টা টেল-এন্ডার জ্যাক লিচ একের পর এক বলে কোনোভাবে নিজের প্রাণরক্ষা করে চললেন, ওদিকে স্টোকস চালালেন তাণ্ডব। আর তাতেই রচিত হলো ইংল্যান্ডের ইতিহাসের অন্যতম স্মরণীয় জয়। লিচের ১৭ বলে করা এক রান কাগজে-কলমে কিছু না হলেও সময়ের হিসাবে সেঞ্চুরির সমান মর্যাদা পাচ্ছে। আলোচনা উঠেছে, এটাই সেরা এক রানের ইনিংস কি না!

লিচ উইকেটে টিকে না থাকলে স্টোকস ক্রিজে ওই মহাকাব্য রচনা করতে পারতেন না। আর সেই মহাকাব্য রচিত না হলে টেস্ট হারার পাশাপাশি অ্যাশেজটাও হাতছাড়া হতো ইংলিশদের। তাই লিচকে নিয়ে মাতামাতি চলছেই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিচ-বন্দনায় মেতেছেন সবাই। অনেকের মতে, এটাই টেস্ট ইতিহাসের সেরা এক রানের ইনিংস! ইংল্যান্ডের লেবার পার্টির নেতা জেরেমি করবিনই যেমন, টুইটারে লিখেছেন, ‘ইতিহাসের সবচেয়ে সেরা এক রানের ইনিংস হিসেবে লিচের এই ইনিংসটার মর্যাদা পাওয়া উচিত।’ করবিনের সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক মাইকেল ভন, ‘জ্যাক লিচ, আমার নায়ক। ইতিহাসের সেরা অপরাজিত এক রান!’

ইংলিশ দৈনিক গার্ডিয়ানের সাংবাদিক শচীন নকরানির মতে ইতিহাসের না হলেও অ্যাশেজের সেরা এক রানের ইনিংস তো বটেই, ‘অ্যাশেজ ইতিহাসের সেরা এক রানের ইনিংস খেলল জ্যাক লিচ। অসাধারণ ধৈর্য ও রক্ষণাত্মক মানসিকতার প্রদর্শনী দেখাল সে। চশমা পরা কিংবদন্তিকে আমার টুপিখোলা সম্মান!’ ইএসপিএনের সাংবাদিক ইয়ান ডার্ক লিখেছেন, ‘অ্যাশেজ ইতিহাসের সেরা এক রানের ইনিংস খেলেছেন জ্যাক লিচ।’

বিটি স্পোর্টসের সাংবাদিক নিক মুলিন্সও একই কথা বলেছেন, ‘টেস্ট ইতিহাসের সেরা অপরাজিত এক রানের ইনিংস দেখলাম!’ ইংলিশ কৌতুকাভিনেতা জিওফ নোকটের মতেও বিশ্বসেরা এক রানের ইনিংস এটাই। একজন লিখেছেন, ‘ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা এক রানের ইনিংসের দৌড়ে এইমাত্র জ্যাক লিচ মাখায়া এনটিনিকে পেছনে ফেলল!’
Anuz Kumar Chakrabarty
Assistant Professor
Department of General Educational Development
Faculty of Science and Information Technology
Daffodil International University