Author Topic: নতুন বছরের শুরুতেই আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির প্রিলিমিনারি পরীক্ষা (বাংলা ট্রিবিউন)  (Read 66 times)

Offline Md. Nasim Howlader

  • Newbie
  • *
  • Posts: 14
    • View Profile
আগামী বছরের শুরুতেই আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির নতুন পরীক্ষা নেওয়ার কথা ভাবছে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল। আইন পেশায় নিযুক্ত হতে হলে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লাইসেন্সপ্রাপ্ত হতে হয়। আইন বিষয়ে স্নাতক শেষে তিন ধাপে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার মধ্য দিয়েই শিক্ষানবিস আইনজীবীরা এই ‘অ্যাডভোকেটশীপ’ লাইসেন্স পেয়ে থাকেন।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ও সিনিয়র অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘২০১৭ সালের প্রিলিমিনারি শুরুর পর শেষ পর্বের মৌখিক পরীক্ষা চলমান রয়েছে। এই পরীক্ষা শেষে হাইকোর্টের নতুন আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তাই এ বছর আর নতুন পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। তবে, আগামী বছর জানুয়ারি বা ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

বার কাউন্সিল থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, সর্বশেষ ২০১৭ সালের ২১ জুলাই অনুষ্ঠিত বার কাউন্সিলের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল প্রায় ৩৪ হাজার ২শ জন। সেখান থেকে ১১ হাজার ৮৪৬ জন পরীক্ষার্থী লিখিত পরীক্ষার জন্য উত্তীর্ণ হন। এরপর লিখিত পরীক্ষায় প্রায় ৮ হাজার ১৩০ জন পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হন। বিশাল সংখ্যার এই পরীক্ষার্থীদের মৌখিক পরীক্ষা বর্তমানে চলমান রয়েছে। সে অনুসারে লিখিত পরীক্ষার ২৬ হাজার ৭০ জন আবেদনকারী লিখিত পরীক্ষায় বাদ পড়েন। তবে এদের সঙ্গে নতুন পরীক্ষায় আরও কয়েক হাজার আবেদনকারী যুক্ত হবেন বলে জানালেও নতুনদের রেজিস্ট্রেশন না হওয়া পর্যন্ত মোট পরীক্ষার্থীর ঠিক সংখ্যা  জানাতে পারেনি সংস্থাটি।

তবে নতুন পর্বের পরীক্ষা নিয়ে বার কাউন্সিলের অধীনে থাকা কমিটিগুলোর মধ্যে আলাপ-আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নতুন কমিটির ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ও সিনিয়র অ্যাডভোকেট শ. ম. রেজাউল করিম।

আওয়ামী লীগের এই আইন সম্পাদক আশাবাদ ব্যক্ত করে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি মনে করি আগামী জানুয়ারি মাসের মধ্যে আমরা নতুন প্রিলিমিনারি (এমসিকিউ) পরীক্ষা নিতে সক্ষম হবো। আশা করছি আমরা পারবো। ’

বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তির পরীক্ষা মূলত তিন ধাপে অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। প্রথম ধাপে একজন শিক্ষানবিস আইনজীবীকে প্রিলিমিনারি (এমসিকিউ) পরীক্ষা দিতে হয়। এরপর প্রিলিমিনারিতে যারা উত্তীর্ণ হন, তারা লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন। পরে লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীরা মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নেন। সর্বশেষ ধাপ হিসেবে মৌখিক পরীক্ষায় কৃতকার্যরা আইনজীবী হিসেবে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের তালিকাভুক্ত হন। তবে, যারা লিখিত পরীক্ষার পর মৌখিক পরীক্ষায় অকৃতকার্য হন, তারা পরবর্তী পরীক্ষায় একবারের জন্য মৌখিক পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পান।
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট

Offline shyful

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 215
    • View Profile
With best regards and Thanks in advance,

S.M.Saiful Haque