Daffodil International University

Faculties and Departments => Business and Economics => Topic started by: Md. Alamgir Hossan on April 11, 2017, 03:36:00 PM

Title: ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থাঃ
Post by: Md. Alamgir Hossan on April 11, 2017, 03:36:00 PM
সারা পৃথিবী জুড়ে আজ বইছে পরিবর্তনের হাওয়া। শিক্ষা ব্যবস্থাও এদিক থেকে পিছিয়ে নেই।শিক্ষা ব্যবস্থায় আজ  এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন। এ পরিবর্তন বলতে মূলত বুঝায় অতীতের ধ্যান ধারনা থেকে বেরিয়ে এসে ডিজিটাল ব্যবস্থায় উত্তরণ। ডিজিটাল শিক্ষা ব্যবস্থা বলতে কী বুঝায় আসুন তার আগে জেনে নেই ডিজিটাল বিষয়টি  কী ? ডিজিট থেকে ডিজিটাল একটি সহজ কথা। ১,২,৩ a,b,c এগুলি হল ডিজিট। এবার বলুন তো ২+২ = ৫ বা ৬ হওয়ার কোন সম্ভাবনা আছে কি? নাই। কারণ এটি হল ডিজিটের বৈশিষ্ট্য। অর্থাৎ এটি নির্ভুল। পৃথিবী এখন এই ডিজিটের উপরে চলছে।কারও সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে মোবাইলে আমরা ডিজিট ব্যবহার করছি, অনলাইনে টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিজিট ব্যবহার করছি। মোবাইল ব্যাংকিং এর ক্ষেত্রে ডিজিট ব্যবহার করছি।রোগ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে  ডিজিটাল মেশিন ব্যবহার করছি। ডিজিটাল পদ্ধতি ব্যবহার করে আমরা আজ পৃথিবীকে হাতের মুঠোয় নিয়ে এসেছি।  এখন প্রশ্ন হচ্ছে শিক্ষা ব্যবস্থায় ডিজিটাল পদ্ধতি কী?

বিষয়টি পরিষ্কার করার জন্য একটি গল্পের অবতারনা করা যেতে পারে। ধরুন, একজন অন্ধকে বলা হল আপনি কি পায়েশ খাবেন? তিনি জিজ্ঞাসা করলেন, পায়েশ কী? বলা হল পায়েশ দুধের মত সাদা। অন্ধ জিজ্ঞেস করল, দুধ কী? বলা হল দুধ বকের মত সাদা। অন্ধ আবার জানতে চাইল বক আবার কী? বলা হল বক হল এক ধরনের পাখি যার গলা অনেক লম্বা বাঁকানো। অন্ধ জিজ্ঞেস করল বাঁকানো, এটি আবার কী? বলা হল আরে বুঝ না, বকের গলা হল কাঁচির মত। অন্ধ পূনর্বার প্রশ্ন করল কাঁচি কী? বলা হল কাঁচি হল লোহার তৈরী এমন এক ধরনের জিনিস যা দিয়ে ঘাস কাটা হয়। অন্ধ বলল ওরে বাবা, আমি পায়েশ খাব না, আমার গলা কেটে যাবে।

আসলে বিষয়টি হল ঐ অন্ধকে যদি পায়েশ দেখানো যেত তাহলে গলা কেটে যাওয়ার ভয়ে সে পায়েশ খাওয়া থেকে বিরত থাকতে চাইতো না। আমাদের বইয়ের মধ্যে এমন অনেক বিষয়ে বর্ণনা করা আছে যা শিক্ষার্থীরা কখনো দেখে নাই। তাদের সামনে যখন কোন কিছু বর্ণনা করা হয় তখন তারা অনেক ক্ষেত্রে অন্ধের মতই বোঝে। মুখে যখন তাদেরকে বলা হয় কিডনি এভাবে কাজ করে, সেভাবে কাজ করে, তখন শিক্ষার্থীরা যে যার মত করে বোঝে। কিন্তু ভিডিওতে যখন কিডনির কাজ শিক্ষার্থীদের প্রদর্শন করা হয়, তখন তাদের কারও ধারনার মধ্য কোনরূপ ভিন্নতা থাকে না এবং এটি কখনও তাদের মন থেকে মুছে যায় না। একইভাবে যখন বলা হয় আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হোয়াইট হাউজে থাকেন, তখন যারা এটিকে কখনও দেখে নাই তারা মনে করে এটি বুঝি সাদা কোন একটা বাড়ি, বা সাদা কোন একটা দোতলা বা অনেক বড় কোন একটা বিল্ডিং। বাস্তবিকই এটিকে যখন তাদের সামনে ছবি অথবা ভিডিও আকারে দেখানো হয় তখন হোয়াইট হাউজ সম্পর্কে তাদের অস্পষ্ঠ ধারনা স্পষ্ঠ হয়। ডিজিটাল শিক্ষা ব্যবস্থাটা মূলত সেই ধরনের শিক্ষা যার মাধ্যমে বইয়ে বর্ণিত বিষয়গুলি বা বিমূর্ত কোন বিষয়কে ছবি বা ভিডিও আকারে শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরা হয়।
তথ্য ও প্রযুক্তির আশীর্বাদে বাংলাদেশ আজ পুরাতন সেই চক ডাস্টারের গন্ডি থেকে বেরিয়ে ল্যাপটপ, প্রজেক্টর, মোডেম, হোয়াইট বোর্ড, মার্কারের মাধ্যমে শিক্ষাকে করেছে আরও আকর্ষনীয়, প্রাণবন্ত, মানসম্পন্ন, যুগপযোগী ও জীবনধর্মী।শিক্ষা ক্ষেত্রে ডিজিটাল পদ্ধতির এ প্রচলন নিঃসন্দেহে একটি বিপ্লব। আর এর জন্য সর্ব প্রথম যিনি সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য তিনি হলেন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার ভিশন টুয়েন্টি টুয়েন্টি ওয়ান কার্যক্রম। তারপরে আরও যারা নিরলস পরিশ্রম করে এটিকে বাসস্তবায়নের পথে এগিয়ে নিয়ে এসেছেন সেই সব সম্মানিত শিক্ষক শিক্ষিকামন্ডলী ও এটুয়াই কর্মকর্তাবৃন্দ। আমাদের এ পথ চলা যেন থাকে অবিচল। আমরা যেন এ দেশকে বিশ্বের দরবারে উঁচু আসনে নিয়ে যেতে পারি এই হোক আমাদের শপথ।
Title: Re: ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থাঃ
Post by: farjana yesmin on April 11, 2017, 05:14:48 PM
we have to be digitized through practical knowledge