Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Topics - Zahir_ETE

Pages: [1] 2 3 ... 6
1
Faculty Forum / How to join online class in Moodle
« on: July 25, 2018, 12:34:20 PM »
Here you can find how to join online class in moodle.

2
বড় পরিসরে ঢাকা থেকে আন্তঃজেলাভিত্তিক রেন্ট-এ-কার সেবা চালু করতে যাচ্ছে রাইড শেয়ারিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইজিয়ার। লং ডিসটেন্স এমন অ্যাপভিত্তিক সেবা তাদের নতুন সংযোজন। এই সুবিধায় যোগ হলো ঢাকা থেকে দেশের যে কোনো জায়গা এবং বিভিন্ন জেলার যে কোনো জায়গা থেকে ঢাকাতে যাওয়া ও আসার সুযোগ। যাত্রার শুরুতে শুধুমাত্র ঢাকাতেই রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদান করছিল ইজিয়ার। এবার প্রতিষ্ঠানটি আগামী ২১ মে থেকে আন্তঃজেলাভিত্তিক এই সেবাটি চালু করছে।

প্রতিষ্ঠানটি থেকে জানা যায়, শুধুমাত্র ঢাকা নয়; দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের জন্য সারাদেশকে এগিয়ে যেতে হবে একসঙ্গে। এই বিশ্বাস থেকেই তারা শুধু রাজধানীকেন্দ্রিক না থেকে তাদের পরিসেবাকে ছড়িয়ে দিচ্ছে দেশব্যাপী। এছাড়া ইজিয়ার বিশ্বাস করে, তাদের সেবার পরিধি বাড়িয়ে দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন এবং যোগাযোগ খাতে প্রত্যয়ী ভূমিকা রাখবে তাদের নতুন এই কর্মপরিকল্পনা। যাত্রীরা দূরগন্তব্যে যাওয়ার জন্য গাড়ি পেতে যে ভোগান্তি পোহাতে হয় সেটা অনেকাংশেই লাঘব হবে বলে প্রতিষ্ঠানটির বিশ্বাস।

এ ছাড়া যে কেউ যাত্রী সেবা দিতে চাইলে গুগল প্লে-স্টোর থেকে ‘EZZYR DRIVE’ অ্যাপটি ডাউনলোড করে সম্পূর্ণ করে ফেলতে পারেন রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়াটি এবং যুক্ত হয়ে যেতে পারেন ইজিয়ারের সঙ্গে। যাত্রী সাধারণ ‘EZZYR’ অ্যাপটি গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন রাইড শেয়ারিং সেবা গ্রহণ করার জন্য।

উল্লেখ্য, ইজিয়ার হচ্ছে ইনোভেডিয়াস প্রাইভেট লিমিটেডের একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান। ইনোভেডিয়াস বেসিস এবং ই-ক্যাবের মেম্বার প্রতিষ্ঠান। ইনোভেডিয়াস মূলত সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট, অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এবং আইটিইএস পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে সফলতার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে।

3
এবার চ্যাট করতে পারবেন ইউটিউবে৷ তাও আবার ভিডিও চলাকালীন৷ আর, প্রয়োজন পড়বে না ভিডিও বন্ধ করার৷ ভিডিও চলাকালীন ইউটিউবে চ্যাট করবেন কীভাবে, এক নজরে দেখে নিন৷

ইউটিউব ওপেন করে নিজের অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করুন৷ এরপর, অ্যাক্টিভিটি ট্যাবে ক্লিক করলে দুটি অপশন পাবেন৷ শেয়ারড্ এবং নোটিফিকেশনস্৷ শেয়ার থেকে সরাসরি কনট্যাক্টসে্ গেলে একটি তালিকা আসবে আপনার সামনে৷ তালিকাতে নিজের পছন্দমতো কনট্যাক্সও অ্যাড করে নিতে পারেন৷ এরপর একটি ইনভিটিশন লিস্ট আসবে৷ যেটিকে শেয়ার করার মাধ্যমে আপনি আপনার বন্ধুদের নিজের কনট্যাক্ট লিস্টে অ্যাড করতে পারবেন৷

চ্যাট অপসনটিতে ক্লিক করলেই একটি উইন্ডো আসবে যেখান থেকে সরাসরি চ্যাট করতে পারবেন ইউজার৷ প্রয়োজনে চ্যাটটিকে গ্রুপ কনর্ভাসেশনে পরিবর্তিত করা সম্ভব হবে৷ এছাড়া, থাকবে মিউটের অপসন৷ ইউজারেদের নিয়ে পছন্দের গ্রুপও বানাতে পারবেন আপনি৷ তবে, ইউজারকে সবসময় ইউটিউব নোটিফিকেশন সেটিং সুইচ অন রাখতে হবে, না হলে নোটিফিকেশন পাওয়া সম্ভব হবে না৷

একই ধরণের ম্যাসেজিং ফিচার ওয়েব মাধ্যমেও আনতে দেখা গিয়েছে৷ ইউটিউবে লগ-ইন করে হোম পেজে গেলেই আসবে শেয়ার অপসন৷ সেটিতে ক্লিক করলে ইউটিউবের কনট্যাক্ট লিস্টটি আসবে৷ পছন্দের ইউজারকে খুঁজে না পেলে ইনভিটিশন পাঠিয়ে তাঁকে নিজের ইউটিউব গ্রুপে অ্যাড করে নিতে পারেন৷ কথোপকথন পছন্দ না হলে ‘লিভ’ অপসনটিও থাকছে৷

4
ICT / ICT tribune of ETE dept.
« on: July 22, 2018, 12:14:07 AM »
Department of ETE publish online magazine name ICT tribune which is written by the students of ETE.

5
ICT / ICT Tribune of ETE dept.
« on: July 22, 2018, 12:13:18 AM »
Department of ETE publish online magazine name ICT tribune which is written by the students of ETE.

6
Students' Activities / DIU BNCC Platoon
« on: July 21, 2018, 11:47:46 PM »
After the establishment University of Dhaka (1921) the Corps initiated its activities under the provisions of the Indian Territorial Forces Act, 1923. Captain E. Groom was the first adjutant of the Corps. He imparted military training to 100 students and 16 teachers in November 1927. Later University Training Corps was officially founded in June 1928. In 1943, the name of the Corps was changed to University Officers Training Corps (UOTC). The members of this Corps took part in the liberation war of Bangladesh in 1971.[3] After independence, Bangladesh Cadet Corps comprising college students, and Junior Cadet Corps comprising junior students, were formed in addition to University Officers Training Corps. On 23 March 1979, University Officers Training Corps, Bangladesh Cadet Corps and Junior Cadet Corps were all merged by President Ziaur Rahman.[3] The organization is tri service combined from Bangladesh Army, Navy and Air Force.[4] At present, its headquarters is located in Sector 6, Uttara, Dhaka. There are three type of Cadets in BNCC and divided under two broad heads namely, Senior Division and Junior Division cadets. Senior division again has two categories of female and male cadets of various levels of education. The Bangladesh Government Cabinet approved a proposal to bring BNCC under a legal framework and department.[5] The proposal was titled Bangladesh National Cadet Corps Act-2015.[6] The separate department would be under the Ministry of Defense.[7] BNCC sent an delegation to India in a youth exchange program upon the invitation of the Indian Government[8] and participated in Republic Day Camp 2009.[9] The organization participates in Victory day parade.[10][11]

7
জি-মেইলে লগ-ইন করার সময় সচেতন থাকুন। জি-মেইল ব্যবহারকারীদের নতুন একটি অনলাইন স্ক্যাম বা প্রতারণার ফাঁদ থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। একে বলা হচ্ছে, জি-মেইল ফিশিং। অনেক প্রযুক্তিদক্ষ ব্যক্তিদেরও ধোঁকায় ফেলছে এ ফাঁদ।

ওয়ার্ডপ্রেস নিরাপত্তাসেবা ওয়ার্ডফেন্সের প্রধান নির্বাহী মার্ক মন্ডার এই স্ক্যামটির খোঁজ পান।
তাঁর মতে, স্ক্যামটি অভিজ্ঞ কারিগরি ব্যবহারকারীদেরও ধোঁকা দিতে সক্ষম হচ্ছে। জি-মেইল ছাড়াও অন্যান্য সেবাতেও এই ফাঁদ পাতার বিষয়টি লক্ষ করা যাচ্ছে।
এই ফাঁদ পাততে দুর্বৃত্তরা জি-মেইল ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্টে একটি মেইল পাঠায়। পরিচিত কোনো উৎস বা বন্ধুর ছদ্মবেশে ওই মেইল পাঠানো হয়, যাতে তার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার কথা বলা হয়। এতে একটি অ্যাটাচমেন্ট থাকতে পারে, যা ওই ব্যক্তিকে বা অ্যাকাউন্টে আগে কোনো কিছু পাঠিয়ে থাকলে হুবহু তার মতো দেখায়।
ওই অ্যাটাচমেন্টে ক্লিক করলে কোনো প্রিভিউ দেখায় না, বরং আরেকটি নতুন ট্যাব খুলে যায় এবং আবার গুগলে লগইন করতে বলে। যখনই আপনি তাতে সাইন-ইন করবেন, আপনি ওই দুর্বৃত্তের ফাঁদে পড়ে যাবেন। কিন্তু এই হ্যাকের ঘটনা সহজে বোঝা যায় না। কারণ, ব্রাউজারের লোকেশন বারে যথারীতি 'accounts.google.com' দেখা যায়।
যেভাবে রক্ষা পাবেন
যখনই কোনো সেবার জন্য সাইন-ইন করবেন, তখনই ব্রাউজার লোকেশন পরীক্ষা করুন ও প্রটোকল ঠিক আছে কি না খেয়াল করুন। এরপর হোস্টনেমের দিকেও তাকান। 'accounts.google.com' হোস্টনেমের আগে ‘https://' ও তালার চিহ্ন ছাড়া অন্য কিছু আছে কি না দেখুন। আরও খেয়াল করুন, এই দুটির রং সবুজ কি না। বাঁ দিকে এই দুটি জিনিসের রং সবুজ না থাকলে বিপদ। যদি নিশ্চিত হতে না পারেন, তবে যেখানে সাইন-ইন করতে যাচ্ছিলেন, সেটি আসল পেজ কি না, সে সম্পর্কে সন্দেহ করতে পারেন। পারলে টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন চালু করুন। এতে হ্যাকারের পক্ষে পাসওয়ার্ড চুরি করা সম্ভব হলেও অ্যাকাউন্টে ঢোকা কঠিন হবে।

8
Windows 8 এ ম্যনোয়েল ভাবে Shutdown,Restart, Sleep/Standby, Hibernate করতে ঝামেলা মনে হয়। তাই ঝামেলা বিহীন মাত্র ১ ক্লিকেই পিসি বন্ধ, রিস্টার, স্টেন্ডবাই ও হাইবারনেট করুন।

কি বিশ্বাস হচ্ছে না!! তবে চলুন শুরু করা যাক। তারপর আপনিই বলবেন সত্যিই তো।

১. প্রথমে আপনার মাউস এর রাইট বাটনে ক্লিক করুন। এখন New এ গিয়ে Shortcut এ ক্লিক করুন।



২. এখন এমন একটি ডায়ালগ বক্স দেখতে পাবেন। ওখানে লিখুন shutdown.exe -s -t 00

তারপর Next এ ক্লিক করুন। (এখানে ‘00’ সেকেন্ড নির্দেশ করে। আপনি চাইলে আপনার ইচ্ছামত সেকেন্ড বসিয়ে সেই সময় পর Shutdown  এর সুবিধা পেতে পারেন।)



৩. তারপর এরকম ডায়ালগ বক্স পাবেন। এখন আপনার ইচ্ছামত নাম দিয়ে Finish বাটনে ক্লিক করুন। এক্ষেত্রে Shutdown দিতে পারেন।



ব্যাস কাজ শেষ! একটু দাঁড়ান, এখনো শেষ হয়নি। কি করে ভাবলেন কাজ শেষ!!

৪. শর্টকার্ট এর আইকন, কমান্ড এবং কী-বোর্ড শর্টকার্ট দেওয়ার জন্য শর্টকার্টটির উপর মাউস পয়েন্টার রেখে রাইট ক্লিক করে Properties এ যান। Shortcut Key এর ঘরে Ctrl+Alt এক সাথে চেপে ধরে যেকোন একটি কী সিলেক্ট করুন। Comment এর ঘরে আপনার মন মত লেখা দেন। তারপর Change Icon এর ঘরে ক্লিক করে নিদির্ষ্ট আইকন সিলেক্ট করে Ok দেন। অবশেষে Apply করে Ok দেন। নিচের মত ডায়ালগ বক্স আসবে।


৫. Taskbar এ পিন করে রাখার জন্য শর্টকার্টটির উপর মাউস পয়েন্টার রেখে মাউসের রাইট বাটনে  ক্লিক করে Pin to Taskbar কে সিলেক্ট করুন।


ব্যাস আমাদের কাজ শেষ।

এখন বাকি সব গুলোর ক্ষেত্রে ঠিক একই ভাবে উপরের সব কাজ গুলো করবেন শুধুমাত্র যেখানে shutdown.exe -s -t 00 লিখেছিলেন সেখানে

Log off এর ক্ষেত্রে হবেঃ  shutdown.exe -l

Lock এর ক্ষেত্রে হবেঃ rundll32.exe User32.dll,LockWorkStation

Restart এর ক্ষেত্রে হবেঃ  shutdown.exe -r -t 00

Sleep/Standby এর ক্ষেত্রে হবেঃ  rundll32.exe powrprof.dll,SetSuspendState 0,1,0

Hibernate এর ক্ষেত্রে হবেঃ  rundll32.exe powrprof.dll,SetSuspendState

Hybrid Sleep এর ক্ষেত্রে হবেঃ  rundll32.exe powrprof.dll,SetSuspendState Hybrid Sleep

এখন শর্টকার্ট গুলো শুধুমাত্র আপনার একটি মাত্র ক্লিকের অপেক্ষায়!! আপনার যেই মোড গুলো দরকার সেগুলো ঝটপট এভাবে তৈরি করে নিন। কাজের সুবিধার জন্য শর্টকার্ট গুলোকে Task Bar এ রাখেন তাহলে একটা ক্লিক পরার সাথে সাথেই আপনার কমান্ড পালন করবে।

9
আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে সবচেয়ে সহজে অ্যান্ডয়েড পেইড অ্যাপ ডাউনলোড করবেন এবং ব্যবহার করবেন ফ্রীতে। অনেকেই এই পদ্ধতিটা জানেন। যারা জানেন না তাদের জন্য এই টিউন।

অ্যান্ডয়েড পেইড অ্যাপ গুলো প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে গেলে টাকা চাইবে। গুগল মামা তে সার্চ দিলেও পাওয়া যায় কিন্তু সবচেয়ে সহজ হল এমন একটি অ্যাপ ব্যবহার করা যাতে সব ফ্রি।অর্থাৎ এখানে পেইড অ্যাপ গুলো ও ফ্রীতে পাওয়া যায়।


Blackmart ব্যবহার করে  বিনামূল্যে জন্য প্রিমিয়াম অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যেতে পারে, যা ট্যাবলেট সহ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের জন্য একটি কার্যকারী অ্যাপ্লিকআন। খরচ ছাড়া আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে যে কোন অ্যাপ্লিকেশন  ডাউনলোড করতে পারেন।

 http://bit.ly/1gsF1m8


10
কাজটি করার জন্য আপানকে ছোট একটি কোডের সাহায্য নিতে হবে। সেই সাথে থাকতে হবে একটা আইকন ফরম্যাটের ছবি। আর একটি পেনড্রাইভ।

Image result for pen drive

এবার তাহলে শুরু করা যাক-

প্রথমেই Notepad চালু করুন। অথবা আপনার পেন ড্রাইভে গিয়ে New Text Document চালু করুন। তারপর নিচের কোড টি কপি করুন অথবা টাইপ করুন-

[Autorun]

Label=Marks

Icon=Munna.ico

এবার এই ফাইলটিকে সেভ করুন Autorun.inf নামে। এখানে Label=Marks মানে হল পেন ড্রাইভের নাম। এখানে যদি Marks এর বদলে Hossain লিখেন তাহলে এটাই পেন ড্রাইভের নাম হবে।

Icon=Munna.ico মানে হল আপনার আইকন ফাইলের নাম। Munna.ico এটাকে আপনার আইকন ফাইলের সাথে Replace করুন। মনে রাখবেন .ico এক্সটেনশনটি অবশ্যই রাখতে হবে।

আর আইকন ইমেজটি অবশ্যই অবশ্যই আপনার পেন ড্রাইভে রাখতে হবে। এখন কথা হল যদি আইকন না থাকে তাহলে? অথবা আপনি যদি আইকন বানাতে না পারেন?

অফলাইন টা ভালোমত কাজ করে না তাই অনলাইন টাই দিলাম আপনারা ইচ্ছা করলে এখান থেকে .ico ফরম্যাটের ছবি করেনিতে পারেন।
http://www.markspcsolution.com/2014/03/convert-image-into-icon-online.html

11
আজকে আমি আপনাদের দেখাব কিভাবে আপনার অ্যান্ডরয়েড ফোন দিয়ে আপনি আপনার পিসি কন্ট্রোল করবেন বা গেম খেলবেন। বেশি বকবক না করে সোজা কাজের কথায় আসি।

প্রথমে এখান থেকে PC Remote Receiver ডাউনলোড করে আপনার পিসিতে ইন্সটল করুন। তারপর আপনার মোবাইলের ওএস অনুযায়ী অ্যাপ ডাউনলোড করুন। প্রথম ছবি স্ক্যান বা ক্লিক করলে সরাসরি APK ফাইল ডাউনলোড হবে, দ্বিতীয় ছবিতে প্লে-স্টোরে যাবে, তৃতীয় ছবিতে অ্যাপেল অ্যাপ স্টোরে যাবে এবং চতুর্থ ছবিতে ক্লিক করলে উইন্ডোজ স্টোরে যাবে।
পিসি এবং মোবাইল দুইটাতেই সফটওয়্যার ইন্সটল করার পর মোবাইলে অ্যাপটা ওপেন করুন।  ব্লুটুথ/ওয়াই-ফাই যেই কানেকশন আপনার আছে সেই ট্যাবে ক্লিক করুন।স্ক্যান করলে আপনার পিসি অটোমেটিক চলে আসবে। পিসি নামের উপর ক্লিক করুন কানেক্ট হয়ে যাবে।

 

কানেক্ট করার পর দেখবেন অ্যাপটাতে অনেকগুলো অপশন এসেছে। এখন আপনি যা করবেন তা করেন। Remote Desktop, Projector, Data Cable ওয়াই-ফাই ছাড়া চলবে না। বাকিগুলো ব্লুটুথে ভালোভাবে চলবে। Race, Gamepad, Shooter Mode, Fly Mode এগুলো সব লেটেস্ট গেমগুলোয় সাপোর্ট করবে।

গেমে এক্সবক্স কন্ট্রোলার ব্যবহার
গেমে এক্সবক্স ৩৬০ কন্ট্রোলার ইউজ করতে চাইলে পিসি সফটওয়্যারের XBOX 360 Controller বাটনে ক্লিক করুন

তারপর একটা উইন্ডো আসবে সেখানে 32 আর 64 নামে ২ তা ফোল্ডার পাবেন। আপনার পিসির বিট অনুযায়ী ফোল্ডারে ঢুকুন। ফোল্ডারের সব ফাইল কপি করুন।



এবার এই ৫টি ফাইল আপনার গেমের রুট ফোল্ডারে পেস্ট করুন। এখন আপনি মোবাইলের Gamepad অপশনে গিয়ে গেম কন্ট্রোল করতে পারবেন। যেমন আমি ফিফা ১৩ তে এক্সবক্স কন্ট্রোলার ইউজ করব। তাই ফিফা ১৩ ফোল্ডারে ফাইলগুলো পেস্ট করেছি। যেই গেমগুলো এক্সবক্স ৩৬০ কন্ট্রোলার সাপোর্ট করে সেই গেমগুলো এই অ্যাপ ব্যবহার করে খেলা যাবে।

12
আমি আজকে আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি লাইফটাইম লাইসেন্স সহ Tor Browser 4.5.3 . নিচে বিস্তারিত সহ ডাউনলোড লিংক দিলাম।
Why we need Tor
Using Tor protects you against a common form of Internet surveillance known as "traffic analysis." Traffic analysis can be used to infer who is talking to whom over a public network. Knowing the source and destination of your Internet traffic allows others to track your behavior and interests. This can impact your checkbook if, for example, an e-commerce site uses price discrimination based on your country or institution of origin. It can even threaten your job and physical safety by revealing who and where you are. For example, if you're travelling abroad and you connect to your employer's computers to check or send mail, you can inadvertently reveal your national origin and professional affiliation to anyone observing the network, even if the connection is encrypted.

Hidden services
Tor Browser also makes it possible for users to hide their locations while offering various kinds of services, such as web publishing or an instant messaging server. Using Tor "rendezvous points," other Tor users can connect to these hidden services, each without knowing the other's network identity. This hidden service functionality could allow Tor users to set up a website where people publish material without worrying about censorship. Nobody would be able to determine who was offering the site, and nobody who offered the site would know who was posting to it. Learn more about configuring hidden services and how the hidden service protocol works.

Staying anonymous
Tor can't solve all anonymity problems. It focuses only on protecting the transport of data. You need to use protocol-specific support software if you don't want the sites you visit to see your identifying information. For example, you can use Tor Browser while browsing the web to withhold some information about your computer's configuration.

ডাউনলোড করার জন্য নিচের লিঙ্কে যানঃ
http://tinyurl.com/pdsmwub

13
আজ আমি আপনাদের কাছে পিসির জন্য এমন একটি সফটওয়্যার নিয়ে এলাম যা দিয়ে আপনারা আপনাদের pc/laptop এ androoid গেম খেলা বা অন্যান্য অ্যাপ চালাতে পারবেন। আপনারা নিশ্চয় বিশ্বাস ই করতে পারছেন না

। কিন্তু এটাই সম্ভব করে দেখিয়েছে ১৩  mb এর এই সফটওয়্যার টি। আমি অনেকদিন থেকে এটা দিয়ে গেম খেলছি। আজ আপনাদের জন্য শেয়ার করছি।

ANDROID খুব জনপ্রিয় একটি মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম। অনেকেই এখনও সিম্বিয়ান  অথবা জাভা ANDROID কেনার আশা মনের মধ্যে পুষে রেখেছেন। আপনার ডেক্সটপ আর ল্যাপটপ এখন ANDROID অপারেটিং  সিস্টেম চলবে। কিন্তু এটা কোন অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে না, এমুলেটর এর মত করে চলবে। তবে আপনি পাবেন ANDROID এর সব মজা। আমি ব্যবহার করেছি তাই বলতে পারি সফটওয়্যার টি চলবে।
মোবাইল ব্যবহার করছেন। এবং একটি সফটওয়্যার টি একটি ফ্রী ওয়্যার। আপনাকে এটি রেজিস্টার করা নিয়ে টেনশন করতে হবে না। অনেক এ সফটওয়্যার টি সম্পর্কে জেনে থাকবেন। যারা জানেন না এখন জেনে নিন।
জানার বিষয়
নিন্মে ২ জিবি রেম লাগবে সফটওয়্যার টি চালাতে!
৮ এমবি এর ইন্সটলার টি ওপেন করার পর ইন্সটল সময়ে windows অনুযায়ি এর ডাটা ডাউনলোড করবে। তাই অবশ্যই ডাটা অন রাখবেন।
আপনার পিসি এর রেম যতই থাকুক এটি ৭০০-৮০০ এমবি রেম ব্যবহার করে।
যদি antivirus ভুলে একে adware ডিটেক করে তবে antivirus কিছু সময়ের জন্য অফ রাখবেন।

http://bit.ly/1MhXcom

14
আজ আপনি আপনাদের মাঝে একটি android app নিয়ে আলোচনা করবো যার গ্রাহক বিশ্ব জুড়ে। গ্রাফিং ক্যালকুলেটর একটি অসাধারন সফটওয়ার যার মাধ্যমে আপনি বিজগানিতিক অনেক সমস্যার সমাধান করতে পারবেন যেটা আপনার স্কুল, কলেজ বা আপনার যে কোন কঠির সমস্যাকে সহজে সমাধান করে দেবে। এই সফটওয়ারটি আপনি আপনার হাতে থাকা এনড্রোএইড বা এনড্রোএড সাপর্ট করে এমন ডিভাইসে ব্যবহার করতে পারেন এবং পেতে পারেন গানিতিক সমস্যা এবং তার চিত্র ভিত্তিক ফলাফল।

এটা কিভাবে কাজ করে?

এই এপলিকেশনটি অনেক ভাবে আপনার গানিতিক সমস্যাকে সমাধান করবে। এখানে বিভিন্ন ধরনের ফাংশন দ্বারা আপনি নিমিশেই অনেক জটিল সমস্যার সমাধান করে ফেলতে পারেন যেমন; চিত্রের সাহায্যে যে কোন ভ্যালু আপনি এড করতে পারেন, রুটের সমস্যা সমাধান করতে পারেন, ম্যাট্রিক্স নিমিশেই সমাধান করেত পারেন, আরো অনেক কিছুই করা যায় এই এপলিকেশন দিয়ে। যদি আপনি জ্যামিতিক সমস্যার সমাধান করতে চান তাও সম্ভব। এর মধ্যে এতো ফাংশন আছে যা আপনি আগে কোন গ্রাফিক ক্যলকুলেটরে পাননি; এটা হলফ করে বলতে পরি
কিভাবে পেতে পারেন?

আপনি গুগোল স্টোর থেকে এটা সংগ্রহ করতে পারেন যেটা ফ্রি ভার্সন কিন্তু আপগ্রেট করতে হলে আপনার পকেট থেকে $5.99 গুনতে হবে, এখানে আমার কিছুই করার নেই, শুধু ব্যবহার করে দেখতে পারের যে এটা কতটা কার্যকর। আপনি যদি টিচার হন বা ম্যাথের স্টুডেন তবে আপনি বুঝতে পারবেন যে কত জরুরী তবে আপনি চাইলে একই নাম দিয়ে অনেককে এই সফ্টওয়ারটি ব্যবহার আপগ্রেড করিয়ে দিতে পারেন। কিন্তু এর জন্য আপনার নেট কানেকশন থাকে হবে।

বিভিন্ন ফাংশন গুলো কি ভাবে কাজ করে?


আপনি যেকোন সাইন্টিফিক সমস্যার সমাধান করতে পারেন খুবই সহজে। এর মধ্যে সব ফাংশন আছে যা একটি সাইন্টিফিক ক্যালটুলেটরে থাকে যেমন: ফাংশন কি বা বিভিন্ন মান। আপনি নিমিশের মধ্যেই পার্সেন্টজ করতে পারেন এমনকি আপনি যদি সামান্য সময়ের জন্য কাজ থেকে অবসার নেয়ার প্রয়োজন মনে করেন তবে এটা অটোম্যটিক্যালি আপনার কাজকে সেভ করে আর আপনি যখন কাজে ফিরে আসবেন তখন ছোয়া মাত্রই চালু হয়ে যাবে।

এই গ্রাফিং ক্যালকুলেটরটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ ফাংশন যুক্ত করছে যার মধ্যে একটি হলো ডাটা এবং গ্রাফিক একই সাথে প্রদর্শন করবে। আপনি বুঝতে পারবেন ফলাফল দেখে যে অংক ঠিক আছে কি না। আপনি চাইলে জুম করেও দেখতে পরেন।আপনি চাইলে ফাংশন টেবিল, গ্রাফ এড করতে পারেন, আবার তাৎক্ষনিক বা পরে মুছেও ফেলতে পারেন সুবিধা মত খুবই সহজে।

আপনি এর মাধ্যমে ফ্রাকশন করতে পারেন, ছোট-খাটো ক্যালকুলেট করতে পারেন যেটা সাধারণ আমাদের মোবাইলে বিল্টইন ক্যালকুলেটরের চেয়ে সহজতম পদ্ধতিকে এবং অনেকে দ্রুত। আপনি জ্যামিতিক সমস্যাগুলো বিভিন্ন লাইনে করে দেখতে পারনে বা বীজ গনিতিক সমস্যা গুলোর একই পেজে এড করতে পারেন এবং দেখতে পারেন পুরো সংখ্যার ফলাফল যেটা সাধারন ক্যালকুলেটর করতে পারে না। Long division, quadratic এবং linear equations গুলো খুব সহজেই করতে পারেন আপনি যখন চান তখনই।

আপনি এই এ্যপটিকে পার্সোনালাইজ করতে পারেন

আপনি একটি সমস্যার সমাধান করে সেটাকে নিজস্ব পদ্ধতিকে সেভ বা অন্য কোন ফাংশনের সাথে চালু করতে পারেন এমন কি অনেকগুলো সমস্যার সমাধানও একই সাথে সেভ করতে পারেন।

কিভাবে ব্যাবাহার করবেন?

আপনি যে ধরনের সমস্যার সমাধান করতে চান সেটি চালু করে সাধারন ভাবেই সমাধারন করার চেস্ট করুন। যদি আপনার কার্সার সরাতে হয় তবে আপনি আপনার আঙ্গুলের সাহায্যে যেখানে নিতে হবে সেখানে নিয়ে যেতে পারেন। এটা খুবাই সহজেই আপনি করতে পারবেন এর জন্য আপনাকে বিশেষজ্ঞ হতে হবে না, সাধারণ ব্যাবাহারকারী হলেও সম্ভব।

ইন্টার বাটনের দ্বারা আপনি বিভিন্ন ধরনের এক্সপ্রেশন দেখতে পারবেন একই পেজে; আর এই ক্যালকুলেটর আপনাকে খু্ব সহজেই সেটা করতে দেবে এবং তা আপনি স্কৃনে দেখতে পারবেন বিভিন্ন লাইনে। যদি আপনি ক্লিয়ার বাটন চাপেন তাহলে আপনি ব্লক করে পুরো পেজটিকে ক্লিয়ার করতে পারেন এমন কি যদি আপনি চান শুধু লাইন ক্লিয়ার করতে সেটাও সম্ভব। শধু আপনাকে ১ বা ২ সেকেন্ড অপেক্ষা করতে হবে কাজ সম্পন্ন করার জন্য।

15
আমরা অনেকেই windows 8 অথবা windows 8.1 ব্যবহার করি। কেননাা windows 8 বা windows 8.1 নিসঃন্দেহে windows 7এর চেয়ে আরো স্টাইলিশ এবং আরো নতুন কিছু ফিচার যুক্ত হয়েছে। windows 8,8.1 সব ফিচার ই ভাল কিন্তু আমার কাছে windows 8,8.1 এর স্টার্ট মেনু এর চেয়ে windows 7 এর স্টার্ট মেনু বেশী ভাল লাগে। তো যারা আমার মতো মনের অধিকারী তারা ছোট্ট (মাত্র ৯ মেগা) একটি সফ্টওয়ার ইন্সটল করে আপনার স্টার্ট মেনু কে নিচের মত লুক দিতে পারেন।

সফ্টওয়ারটির নাম Orbit start menu 8। এবং এটি একটি freeware সফ্টওয়ার। তাই কোন licence বা crack file এর প্রয়োজন নেই। শুধু ইন্সটল করলেই হবে।ইন্সটল করতে কোন ঝামেলা নেই। আর এটি আপনার পিসিকে স্লো করবে না। আর এটি দিয়ে আপনি যে কোন সময় screenshot নিতে পারবেন।
তো আর বিরক্ত করব না। ভাল লাগলে থেকে ডাউনলোড করে নিন।


নির্দেশনা:
১.ডাউনলোড করে ইন্সটল করুন। তারপর আপনার পছন্দের icon সিলেক্ট করে দিন।ব্যাস অনেক কষ্ট করলেন আর আপনাকে কিছুই করতে হবে না।
২. যে কোন সময় screenshot নিতে শুধু alt+b চাপুন
৩. আগের স্টার্ট মেনু আনতে চাইলে স্টার্ট মেনু icon এ রাইট বাটনে ক্লিক করে Exit ক্লিক করুন
৪.যদি সফ্টওয়ার ভাল না লাগে আগের স্টার্ট মেনু চিরদিনের জন্য ফিরে পেতে চান সফ্টওয়ার ঝাটা মেরে আনইন্সটল করুন

Pages: [1] 2 3 ... 6