Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Messages - Anuz

Pages: 1 2 [3] 4 5 ... 119
31
ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তায় মেসেঞ্জারের অডিও ভিডিও কলে ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ সুবিধা চালুর উদ্যোগ নিয়েছে ফেসবুক। কেবল মেসেঞ্জারের সিক্রেট মোড ফিচার ব্যবহারকারীরা এই সুযোগ পাবেন। এরই মধ্যে ফিচারটির কার্যকারিতা গোপনে পরীক্ষা করছে ফেসবুক।

ফিচারটি চালু হলে ব্যবহারকারীদের করা সব অডিও বা ভিডিও কল এনক্রিপ্ট বা বিশেষ কোডে পরিণত করে প্রাপকের কাছে পাঠানো হবে। ফলে প্রেরক ও প্রাপক ছাড়া অন্য কেউ তাঁদের কথোপকথন শুনতে পারবে না। মার্চ মাসে নিজেদের মালিকানাধীন সব সেবায় ‘এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন’ সুবিধা চালুর পরিকল্পনার কথা জানিয়েছিলেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ।

32
ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ এবং অন্যান্য অ্যাপ থেকে মূল প্রতিষ্ঠানকে আলাদা করতে নতুন লোগো উন্মোচন করেছে ফেসবুক। নতুন এই লোগোটি মূল ফেসবুকের মোবাইল অ্যাপ থেকেও প্রতিষ্ঠানকে আলাদা রাখবে। এক্ষেত্রে সামাজিক মাধ্যমের লোগো থাকছে অনেকটা আগের মতোই। সোমবার এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা অ্যান্টোনিও লুসিও বলেন, স্বচ্ছতার জন্যই নতুন ব্র্যান্ডিংয়ের নকশা করা হয়েছে এবং কাস্টম টাইপোগ্রাফি ও বড় হাতের অক্ষর ব্যবহার করা হয়েছে যাতে প্রতিষ্ঠান এবং অ্যাপকে চোখে দেখে আলাদা করা যায়।

ফেসবুক অ্যাপ, মেসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ, অকুলাস, ওয়ার্কপ্লেইস, পোর্টাল এবং ক্যালিব্রা’র মতো বেশ কিছু সেবা রয়েছে মূল প্রতিষ্ঠানের আওতায়। কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই নিজেদের পণ্য এবং প্রচারণার উপাদানে নতুন ব্র্যান্ডিংয়ের ব্যবহার শুরু করবে ফেসবুক। লুসিও বলেন, ‘নতুন একটি প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটও চালু করা হবে নতুন লোগো দিয়ে। আমাদের মালিকানা কাঠামোর মাধ্যমে গ্রাহক এবং যেসব ব্যবসা আমাদের সেবা ব্যবহার করে শেয়ার, কমিউনিটি তৈরি ও দর্শক বাড়ানোর কাজ করে তাদের সঙ্গে যাতে আরও ভালোভাবে যোগাযোগ করা যায় তারই একটি উপায় ব্র্যান্ড বদল।’

33
আঙ্গুর বিদেশি ফল হলেও আমাদের দেশে সারাবছরই পাওয়া যায়। তবে গরমের সময় এর দাম একটু চড়া থাকে। দাম যাই হউক ফলটি খেতে যেমন সুস্বাদু, শরীরের জন্য খুব উপকারি। শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর আঙ্গুর আপনার বার্ধক্য রোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। আঙ্গুরের বীজ ও খোসায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এক মাস যদি আপনি নিয়মিত এই ফলটি সেবন করেন তাহলে নিজের শারীরিক পরিবর্তন দেখে আপনি নিজেই অবাক হয়ে যাবেন। তা আপনি সবুজ, লাল, কালো যে ধরনের আঙ্গুরই খান না কেন।

১. হার্ট সুস্থ রাখে
আপনি কি আপনার হার্ট নিয়ে ভীষণ চিন্তিত? তাহলে রাতের খাবারের সময় এক গ্লাস আঙ্গুরের জুস খেতে পারেন। দেখবেন এতে আপনার হার্ট সুস্থ থাকবে। কমবে হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও।
বোস্টন বিশ্বদ্যিালয়ের মেডিসিন বিভাগের এক গবেষণা বলছে, আঙ্গুর মানব দেহের এলডিএল (খারাপ কোলেস্টেরল) হ্রাস করে ও রক্তচাপ কমায়। ফলে সেখানকার গবেষকর এই উপসংহারে পৌঁছেছেন যে, আঙ্গুরসহ ফল এবং শাকসব্জী সমৃদ্ধ ডায়েট হৃদরোগের ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে।

২. কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে
নিয়মিত আঙ্গুর খেলে হজম শক্তি বাড়ে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য রোধ করে। তাই যারা এ ধরনের সমস্যায় ভুগছেন তারা নিয়মিত এ ফলটি খাবেন। কেননা এতে রয়েছে অর্গানিক এসিড, সেলুলাস ও চিনি যা কোষ্ঠকাঠিন্য রোধে সহায়ক।

৩. শক্তি বাড়ে
আঙ্গুর একটি শক্তিবর্ধক ফল। রোজ আপনি এক মুঠ আঙ্গুর খেয়ে দেখুন কাজেকর্মে কতটা এনার্জি পাবেন। আঙ্গুরের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকার কারণে এগুলি হজম হওয়ার পরও ধীরে ধীরে আপনার শক্তি বাড়ায়।

৪. নিয়মিত রক্ত সঞ্চালন

যারা রক্ত সঞ্চালনের ভারসাম্যহীনতায় ভোগেন তাদের জন্য আঙ্গুরের জুস খুবই উপকারী। আঙ্গুরে ফাইটোনিউট্রিয়েন্টস বিদ্যমান থাকে, যা নিয়মিত রক্ত সঞ্চালনে সহায়ক ও ইনসুলিন বৃদ্ধি করে।

৫. ক্যান্সার রোধ করে

আঙ্গুরের জুসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফামিটরির মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, যা অঙ্গপ্রত্যঙ্গের প্রদাহ দূর করে। এই প্রদাহ ক্যান্সার রোগ জন্মের প্রধান কারণ। এ ছাড়া আঙ্গুর মাইগ্রেনের সমস্যা রোধ করে।

৬. ভুলে যাওয়া রোগ নিরাময়

অনেকে ছোট ছোট বিষয়গুলো দ্রুত ভুলে যান। আবার কোনো কথা বেমালুম স্মৃতি থেকে মুছে যায়। এটি আসলে এক ধরনের রোগ। এই রোগটি নিরাময়ে আঙ্গুর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

৭. মাথাব্যথা দূর করে
হঠাৎ করে শুরু হওয়া মাথাব্যথা দূর করতেও আঙ্গুরের তুলনা হয় না। এতে করে মাথাব্যথায় কিছুটা আরামবোধ হয়।

৮. চোখের স্বাস্থ্য রক্ষা করে
চোখ ভালো রাখতে কার্যকর এই ফল। বয়সজনিত কারণে যারা চোখের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য ভালো ওষুধ হল এই আঙ্গুর।

৯. স্তন ক্যান্সার নির্মূল
স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকিতে আছেন এমন নারীরা খেতে পারেন আঙ্গুর। গবেষণায় দেখা গেছে আঙ্গুরের উপাদানগুলো ক্যানসার সৃষ্টিকারী কোষের বিরুদ্ধে কাজ করতে সক্ষম।

১০. কিডনি ভালো রাখে
আঙ্গুরের উপাদানগুলো ক্ষতিকারক ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা সহনশীল অবস্থায় রাখে। সেই সঙ্গে কিডনির রোগব্যাধির বিরুদ্ধেও লড়াই করে।

১১. ত্বক উজ্জ্বল ও মসৃণ করে
আঙ্গুরে থাকা ফাইটো কেমিক্যাল ও ফাইটো নিউট্রিয়েন্ট ত্বকের সুরক্ষায় কাজ করে। এত প্রচুর পরিমাণে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখে।

১২. চুলের যত্নে
একটু অযত্নেই চুল খুশকিতে ভরে যায় এমন অনেকেই আছেন। এছাড়া চুলের আগা ফেটে গিয়ে রুক্ষ হয়ে পড়ে, ধূসর রঙের হয়ে যায় এবং পরিশেষে চুল ঝরতে থাকে। এইসব সমস্যার সমাধানে খেতে পারেন আঙ্গুর।

34
Fruit / Re: পেঁপের উপকারিতা
« on: November 09, 2019, 02:22:13 AM »
Informative

35
Fruit / Re: লটকনের পুষ্টিগুণ
« on: November 09, 2019, 02:21:57 AM »
Good for health.

36
Fruit / Re: কলা মানেই ম্যাজিক!
« on: November 09, 2019, 02:21:36 AM »
Nice to know.........

37
Informative..........

38
Fruit / Re: বেগুনের অনন্য ৩ গুণ
« on: November 09, 2019, 02:20:39 AM »
Nice to know.

40
Fruit / Re: হজমশক্তি বাড়ায় আমড়া
« on: November 09, 2019, 02:19:08 AM »
Nice to know...........

41
Fruit / যেসব রোগের ওষুধ জাম্বুরা
« on: November 09, 2019, 02:18:47 AM »
জাম্বুরা অনেকের পছন্দের ফল।চর্বি কমানোর জন্য অনেকে ডায়েট করে থাকেন। সর্দি-জ্বর, কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়ার ও ওজন কমানোসহ বিভিন্ন রোগের ওষুধ এই জাম্বুরা। জাম্বুরা খেলে অনেক রোগ প্রতিরোধ করা যাবে । আসুন জেনে নেই যেসব রোগের ওষুধ জাম্বুরা।

১. জাম্বুরা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

২. ভিটামিন সি, পটাশিয়াম ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের বড় উৎস হচ্ছে জাম্বুরা।

৩. শ্বেত রক্ত কণিকা বাড়ায় এবং ফ্রি রেডিকেলের বিরুদ্ধে কাজ করে।

৪. জাম্বুরা খেলে দ্রুত ঠাণ্ডা, সর্দি-জ্বর ভালো হয়।

৫. এতে প্রচুর পরিমাণে আঁশ থাকায় হজম ভালো হয়।

৬. কোষ্ঠকাঠিন্য ও ডায়রিয়ার সমস্যা খেতে পারেন জাম্বুরা।

৭. রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও দুশ্চিন্তা দূর করে।

৮. ওজন কমাতেও সাহায্য করে।

৯. হাড় মজবুত রাখে, পেশিকে শক্তিশালী করে, ত্বকে বলিরেখা ও বয়সের ছাপ প্রতিরোধ করে।

তাই নিয়মিত ফলের তালিকায় রাখতে পারেন জাম্বুরা।

42
শীতের সবজি মটরশুঁটি সহজে পাওয়া যায় হাতের কাছে। আপনি জানেন কী? এই মটরশুঁটিতে রয়েছে অনেক ঔষধি গুণ। মটরশুঁটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে আপনার শরীরে রক্তশর্করার মাত্রা। টাইপ-২ ডায়াবেটিস শরীরের রক্তে চিনির প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করে। এই অবস্থায় রোগীর শরীর ইনস্যুলিন হরমোন তৈরি করে না বা এটি ইনস্যুলিনের প্রভাবকে প্রতিরোধ করে। ফলে শরীরে রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণে অক্ষম হয়ে যায়।

টাইপ-২ ডায়াবেটিসের কিছু লক্ষণ হলো অত্যধিক তেষ্টা পাওয়া, বারে বারে প্রস্রাব পাওয়া, ক্ষুধা, ক্লান্তি ও ঝাপসা দৃষ্টি দেখা। টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া অত্যন্ত জরুরি, যা রক্তের শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। সবুজ মটরশুঁটি ডায়াবেটিস আক্রান্তদের জন্য উপকারী। মটরশুঁটি শীতকালীন সবজি হলেও সারা বছর ধরেই পাওয়া যায়।

ডায়াবেটিসের জন্য সবুজ মটরশুঁটির উপকারিতা-


ক্যালোরি কম
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কৃষি বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, সবুজ মটরশুঁটির ১০০ গ্রাম অংশে কেবল ৮০ ক্যালোরি রয়েছে। ডায়াবেটিসের জন্য নিম্ন ক্যালোরি খাবার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ টাইপ-২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেশি তাতে। ডায়াবেটিসের ওজন বৃদ্ধি রক্ত শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণকে আরও কঠিন করে তোলে।

পটাশিয়াম সমৃদ্ধ
পটাশিয়ামের অভাব হলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে। সবুজ মটরশুঁটির ১০০ গ্রামে ২৪৪ মিলিগ্রাম পটাশিয়াম, যা ডায়াবেটিসের জন্য ভালো।

প্রোটিন সমৃদ্ধ
ইউএসডিএ তথ্য অনুযায়ী, সবুজ মটরশুঁটির ১০০ গ্রাম অংশে ৫ গ্রাম প্রোটিন থাকে। প্রোটিন এমন একটি পুষ্টি, যা বারে বারে খিদে পাওয়া প্রতিরোধ করতে পারে।

ফাইবার সমৃদ্ধ
সবুজ মটরশুঁটির ১০০ গ্রাম অংশে ১৪ গ্রামের কার্বোহাইড্রেট রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে ৫ গ্রাম ফাইবার। ফাইবার সম্ভবত ডায়াবেটিসের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি। এই পুষ্টি রক্ত শর্করার মাত্রা এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

43
Informative.........
Thanks for sharing.

44
Really Indeed..........

45
EEE / Re: পায়ের রগে হঠাৎ টান
« on: November 06, 2019, 01:45:35 PM »
Informative one...........

Pages: 1 2 [3] 4 5 ... 119