Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Messages - Fatema Tuz - Zohora

Pages: [1] 2 3 ... 6
2
গাড়ির অবস্থান, নিরাপত্তা, আরোহীর তথ্যসহ ২০টিরও বেশি ফিচার নিয়ে বাজারে এসেছে ভেইকেল ট্র্যাকিং ডিভাইস, 'প্রহরী'। গাড়ির অবস্থান ও সার্বক্ষণিক তথ্যসংক্রান্ত সব ধরণের সমস্যা সমাধানের জন্য বুয়েটের কয়েকজন ইঞ্জিনিয়ার সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তির সাহায্যে তৈরি করেছেন ডিভাইসটি।
 
বাজারে আসা এই নতুন ডিভাইসটি গাড়ির সার্বোক্ষণিক অবস্থান, এর জ্বালানির তথ্য এমনকি এর আরোহীর গাড়িতে ওঠা-নামারতেও নগরদারি করতে সক্ষম। গাড়ি থেকে তেল চুরি হচ্ছে কিনা কিংবা অচেনা যাত্রী উঠিয়ে ট্রিপ দিচ্ছে কিনা তাও জানা যাবে ডোর এলার্ট বা জিও ফেন্স ভায়োলেশনে। গাড়ি যদি বাচ্চার স্কুল থেকে আনা নেয়ার কাজে ব্যবহৃত হয় তবে প্রহরী ডেস্টিনেশন এলার্ট জানাবে শিশু সঠিক সময়ে, নিরাপদে স্কুলে পৌঁছেছে কিনা। আর এই সব ফিচারের সুবিধা ব্যবহারকারী পাবেন নিজের মোবাইল ফোনের মাধ্যমেই। এছাড়াও গাড়ির নিরাপত্তা ও সুরক্ষিত থাকার ব্যাপার নিশ্চিত করতে ডিভাইসটিতে থাকছে মোট ২০টিরও বেশি ফিচার।

এ ব্যাপারে প্রহরীর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, 'প্রহরীর ইন্সটলেশন একদম ফ্রি। ট্র্যকিং জনিত যেকোনো সমস্যার সমাধানে প্রহরীর নিজস্ব কাস্টমার কেয়ার গ্রাহকের সেবায় জন্য সর্বদাই প্রস্তুত। প্রহরী বিশ্বাস করে, যোগাযোগটা যান্ত্রিক হলেও সম্পর্ক থাকুক মানবিক'।

চারটি প্যাকেজভিত্তিক এই ডিভাইসটি ব্যবহারকারীরা কিনতে পারবেন ৪৪৯৯ টাকা থেকে ১১ হাজার ৯৯৯ টাকায়। মাসিক চার্জ ৪৫০ থেকে ৬৯৯ টাকা। ডিভাইসটির ব্যবহারকারীরা চাইলে নিজের প্রয়োজন ও ইচ্ছা অনুসারে ফিচার কাস্টমাইজড করে নেওয়ারও সুবিধা পাবেন। প্রহরীর ওয়েবসাইট https://www.prohori.com এবং দেশের জনপ্রিয় ই-কমার্স সাইটগুলো থেকে কেনা যাবে প্রহরী।

3
বায়ুতে অক্সিজেনের পরিমাণ ২১ ভাগ। যদি কোনো কারণে এর ঘাটতি হয়ে অন্য গ্যাসের ঘনত্ব বা ধূলিকণার পরিমাণ বেড়ে যায়, তবে তাকে দূষিত বায়ু বলে। আগুন পরিবেশের অক্সিজেন নষ্ট করে ব্যাপক মাত্রায়। যানবাহন, কলকারখানার কালো ধোঁয়া বাতাসকে দূষিত করে। হাইড্রোজেন সালফাইড, অ্যামোনিয়া প্রভৃতি গ্যাসও ক্ষতিকর। নানা দূষণের কারণে আমাদের এই শহরে স্বাভাবিক নিশ্বাস নিতেও স্বস্তি হয় না। প্রায়ই মনে হয় দম আটকে আসছে, শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে। আসুন জেনে নিই কী করলে এটা একটু কমানো যায়।

রাস্তাঘাটে প্রতিনিয়ত যে ধুলাবালু উড়ছে, তা শ্বাসতন্ত্রের সংবেদনশীলতা বাড়িয়ে হাঁপানির উদ্রেক করে। শহরে এ ধরনের রোগীর সংখ্যা বেশি। ধুলা এড়ানোর জন্য নাকে-মুখে মাস্ক ব্যবহার করলে কিছুটা রক্ষা হয়, কিন্তু তারপরও ক্ষুদ্র কণা শ্বাসতন্ত্রে ঢোকে। যাঁরা ধূলিময় এলাকায় কাজ করেন, যেমন রাস্তা বা দালানের শ্রমিক, তাঁরা বিশেষ ধরনের মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। যাঁরা বাইক চালান, এই বিশেষ মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন তাঁরাও।

ধূমপায়ীদের মধ্যে ক্ষতির ঝুঁকি বেশি। তাই ধূমপান প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ যা-ই হোক না কেন, অবশ্যই পরিত্যাজ্য।

কলকারখানার রাসায়নিক ফুসফুসের স্বাভাবিক কলাকে ধীরে ধীরে নষ্ট করে এবং শক্ত ও দানাদার করে তুলতে পারে। একে বলে ফাইব্রোসিস বা আইএলডি। তাই কারখানার শ্রমিক জনগোষ্ঠীর জন্য যথেষ্ট নিরাপত্তার ব্যবস্থা থাকা উচিত, দাবি তুলতে হবে সব পক্ষ থেকে।

বিকল যানবাহন বায়ুদূষণ বাড়িয়ে দিচ্ছে। এ বিষয়ে কেবল ট্রাফিক বিভাগের নয়, আমার-আপনার সচেতনতাও প্রয়োজন। নিজের যানবাহন সার্ভিসিং করা, সারানো বা ধোঁয়ামুক্ত করলে নিজের পরিবারও রক্ষা পাবে।

দূষণজনিত ফুসফুসের রোগ থেকে সুস্থ থাকতে ভিটামিন সি-সমৃদ্ধ ফলমূল ও শাকসবজি খান। ভিটামিন সির কার্যকারিতা ২৪ ঘণ্টার বেশি থাকে না। তাই প্রতিদিন একটু হলেও লেবু, আমলকী, আনারস, জাম্বুরা, আমড়া, পেয়ারা, কাঁচা মরিচ, জলপাই, টমেটো, কমলালেবু ইত্যাদি গ্রহণ করুন।

4
Faculty Sections / Re: In China, a link between happiness and air quality
« on: January 31, 2019, 12:54:16 PM »
Thanks for sharing.....

5
Faculty Sections / Re: How to improve human life..... A scattered thought
« on: January 31, 2019, 12:53:43 PM »
Thanks for sharing

6
আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে অটোমেশনের ফলে শিল্প ও বিভিন্ন ধরনের সার্ভিস প্রতিষ্ঠানগুলোতে অন্তত ৫.৩৮ মিলিয়ন মানুষের চাকরি ঝুঁকিপূর্ণ হবে বাংলাদেশে। বাংলাদেশ সরকারের এটুআই প্রকল্প ও আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার গবেষণায় দেখা গিয়েছে, বাংলাদেশের প্রধান পাঁচটি কর্মস্থানের খাত (গার্মেন্টস, আসবাবপত্র, কৃষি প্রক্রিয়াকরণ, পর্যটন ও চামড়া) চড়ম ঝুঁকিতে।

গবেষণায় আরো দেখা গিয়েছে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং রোবটিক প্রক্রিয়াকরণ অটোমেশনের ফলে গার্মেন্টস সেক্টর বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। গার্মেন্টস খাতের ৪.৪ মিলিয়ন কর্মীদের মধ্য থেকে ৬০% চাকরি হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়াও ফার্নিচার শিল্পে অটোমেশনের ফলে ৫৫% চাকরি হারানোসহ এই খাতের চড়ম ঝুঁকির সম্ভাবনা রয়েছে।

বর্তমানে ৬ লাখ মানুষ কৃষিপণ্য প্রক্রিয়াকরণের সঙ্গে জড়িত এবং ৬ লাখ মানুষ পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িত রয়েছে। এছাড়াও ১ লাখ মানুষ চামড়া শিল্পে কাজ করছে। এরা সবাই চাকরির বিষয়ে হুমকিতে রয়েছে।

ঢাকায় অনুষ্ঠিত ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লব’ শিরোনামের এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সরকারের এটুআই প্রজেক্ট-এর নীতিনির্ধারক আনির চৌধুরি বলেন,‘ঝুঁকিপূর্ণ সংখ্যাটি আরো বাড়তে পারে। আপাতত যে সংখ্যাটি প্রকাশ করা হয়েছে তা একটি রক্ষণশীল সংখ্যা মাত্র।’ সূত্র : হার্মএশিয়া

10
Faculty Sections / Re: শীতে শিশুর হাঁপানি
« on: January 07, 2019, 04:18:27 PM »
Thanks for sharing

12
Faculty Sections / Re: ধুলার মধ্যে বসবাস!!!
« on: January 07, 2019, 04:17:51 PM »
Thanks for sharing

14
Thanks for sharing

Pages: [1] 2 3 ... 6