Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Messages - Raihana Zannat

Pages: [1] 2 3 ... 17
1
Faculty Sections / Uber introduces Phone Anonymisation
« on: June 24, 2019, 06:02:50 PM »
Uber, the world’s largest on-demand ride-sharing company, introduced two-way Phone Anonymisation on 10 June, 2019. It is a new technology that will improve the way riders and drivers connect and communicate with each other.

With this, when a rider and driver contact each other regarding a trip, both phone numbers will be anonymised, ensuring neither can see the other user’s personal contact details.

Phone anonymisation is a safety precaution, ensuring that the privacy of both rider and driver partner is protected at all times. This is done by using a software to connect calls that anonymises both mobile phone numbers.

The feature complies with Uber’s Community Guidelines which promotes mutual respect between riders and driver-partners.

This is done by ensuring that personal contact details of riders and driver partners are protected during every trip so that there is never any unwanted post-trip contact.
Commenting on the launch, Zulquar Quazi Islam, Lead, Uber Bangladesh, said, “Riders and driver partners form the core of Uber’s business. The launch of Phone Anonymisation will ensure the privacy of both driver-partners and riders, and improve the way they communicate. This launch further strengthens Uber’s resolve to take steady steps in ensuring rider and driver safety.”
(collected).

2
Faculty Sections / NUTRITION VALUES OF DATES
« on: June 24, 2019, 05:59:36 PM »
The fruits of date palms pack quite the nutritional punch. At the same time, they contain an insignificant amount of fat and have no cholesterol. Dates boost your energy while pacifying your hunger, and your body benefits from their health-promoting nutrients. Dates are a good source of various vitamins and minerals. It’s also a good source of energy, sugar, and fibre. Essential minerals such as calcium, iron, phosphorus, sodium, potassium, magnesium, and zinc can be found in them. They also contain vitamins such as thiamine, riboflavin, niacin, folate, vitamin A, and vitamin K.

HEALTH BENEFITS

Here are just some of the reasons why you should be eating dates regularly:

• Did you know that dates are free from cholesterol, and contain very little fat? Including them, in small quantities, in your daily diet can help you keep a check on cholesterol level, and even assist in weight loss.

• Dates are a strong source of proteins that help us in staying fit, and keep our muscles strong.

• If you have a few dates every day, you won’t have to take vitamin supplements. Not only will it keep you healthy, but there will be a noticeable change in your energy level. So, it works really well as quick snacks.

• Dates are rich in selenium, manganese, copper, and magnesium, and all of these are required when it comes to keeping our bones healthy, and preventing conditions such as osteoporosis.

• Dates are loaded with potassium and sodium, which goes a long way to keeping your nervous system in order. Potassium helps to reduce cholesterol, and keeps the risk of a stroke in check.

• Apart from the fluorine that keeps your teeth healthy, dates also contain iron, which is highly recommended.

• If you soak a few dates in water and chew on them daily, your digestive system will function better. It’s recommended for those who have trouble with constipation.

• The vitamin C and D works on your skin’s elasticity and also keeps your skin smooth. If you suffer from skin problems, incorporating dates into your diet might help you in the long run. Dates also come with anti-aging benefits, and prevent the accumulation of melanin in your body.

• The sugar, proteins, and other vitamins in fruit helps in weight gain, especially when you need it.

3
 :)

6
মাংসের লিভার (যকৃৎ) বা মেটে আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী, এ কথা আমরা সকলেই জানি। কিন্তু মুরগির মাংসের মেটেও কি ততটাই উপকারী? জেনে নেওয়া যাক এ বিষয়ে পুষ্টিবিদদের মতামত।

১) মুরগির লিভারে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, ক্যালশিয়াম, আয়রন, ফাইবার ছাড়াও আরও অনেক স্বাস্থ্যগুণে ভরপুর উপাদান।

২) মুরগির লিভার বা মেটেতে রয়েছে দস্তা বা জিঙ্ক যা জ্বর, সর্দি-কাশি, টনসিলাইটিস সৃষ্টিকারী জীবাণুর বিরুদ্ধে শরীরে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে সাহায্য করে।
৩) মুরগির লিভারে রয়েছে ভিটামিন-এ এবং বি যা আমাদের দৃষ্টিশক্তি ও মস্তিষ্কের বিকাশে সহায়ক।

৪) মুরগির লিভারে রয়েছে কোলাজেন ওইলাস্টিন নামের একটি উপাদান যা আমাদের শরীরের শিরা-উপশিরায় রক্ত প্রবাহ সহজ ও স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।

৫) মুরগির লিভারে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন আর ফাইবার যা শরীর ও হৃদযন্ত্রের পক্ষে খুবই উপকারী।
৬) মুরগির লিভার বা মেটেতে রয়েছে সেলেনিয়াম নামের একটি জরুরি উপাদান যা কোলন ক্যানসারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে। এই সেলেনিয়াম শ্বাসকষ্ট, হাঁপানি, ছোট-বড় সংক্রমণ, শরীরের গাঁটে গাঁটে ব্যথা, কৃমির সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম।

৭) শরীরের বিভিন্ন অপুষ্টিজনিত সমস্যা দূর করতে এবং দ্রুত ওজন বাড়াতে মুরগির লিভার বা মেটে অত্যন্ত কার্যকর!
এ ছাড়াও, ডায়বেটিসের মতো অসুখে আক্রান্তদের জন্য মুরগির লিভার বা মেটে খুবই উপকারী। পুষ্টিবিদদের মতে, মুরগির মাংসের তুলনায় মুরগির লিভারের পুষ্টিগুণ কোনও অংশে কম নয়। তবে একটা বিষয় অবশ্যই মাথায় রাখবেন, যাঁদের উচ্চ রক্তচাপ বা হার্টের সমস্যা রয়েছে, তাঁদের মুরগির মেটে না খাওয়াই ভাল। কারণ, মুরগির মেটে খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে। ফলে বাড়বে উচ্চ রক্তচাপ বা হার্টের সমস্যা।

তথ্যসূত্র: দ্য গার্ডিয়ান।

7
প্রায় সবার বাড়িতেই টিকটিকির ‘অনুপ্রবেশ’ ঘটে। ঘরের আনাচে কানাচে, প্রায় সর্বত্র এদের অবাধ বিচরণ! আপাত দৃষ্টিতে এটিকে নিরীহ গোছের মনে হলেও টিকটিকি মারাত্মক বিষাক্ত। বাড়িকে টিকটিকি-মুক্ত করতে অনেকেই বাজারে উপলব্ধ একাধিক রাসায়নিক যুক্ত দামি স্প্রে ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও বাড়ি থেকে টিকটিকির উপদ্রব চিরতরে বন্ধ করা যায় না। তাহলে কী করে টিকটিকি-মুক্ত করবেন আপনার বাড়ি? আসুন জেনে নেওয়া যাক বাড়ি টিকটিকি-মুক্ত করার অব্যর্থ কয়েকটি উপায়...

১) জানালার কোনায় কোনায় বা ঘরের ভেণ্টিলেটরে কয়েক কোয়া রসুন রেখে দিন। রসুনের গন্ধে টিকটিকি ধারে কাছেও ঘেঁষবে না।

২) গোলমরিচ বা শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো ৩-৪ কাপ জলে ঘণ্টাখানেক ভিজিয়ে রাখুন। এর পর ওই গোলমরিচ বা শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো মেশানো জল ঘরের কোনায় কোনায় স্প্রে করে দিন। টিকটিকি ওই এলাকা ছেড়ে পালাবে!

৩) ঘরের যেখানে টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ন্যাপথালিনের বল বা ন্যাপথালিন গুঁড়ো করে ছড়িয়ে দিন। ন্যাপথালিনের গন্ধে টিকটিকি পালাবে।

৪) ঘরের যে সমস্ত জায়গায় টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ডিমের খোসা রেখে দিন। ওই সমস্ত জায়গায় আর টিকটিকির দেখা মিলবে না।

৫) ঘরের যে সমস্ত জায়গায় টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে ময়ূরের পালক রেখে দিলে টিকটিকি ধারে কাছেও ঘেঁষবে না।

৬) পেঁয়াজের গন্ধ টিকটিকি মোটেই সহ্য করতে পারে না। তাই কয়েক টুকরো পেঁয়াজ ঘরের যে সমস্ত জায়গায় টিকটিকির উপদ্রব বেশি, সেখানে রেখে দিন। টিকটিকি পালাবে।
৭) খানিকটা তামাকের সঙ্গে সামান্য কফি মিশিয়ে ছোটো ছোট গুলি বা বলের মতো তৈরি করে নিন। তারপর সেগুলিকে ঘরের আনাচে কানাচে রেখে দিন। দেখবেন টিকটিকির উপদ্রব কমে যাবে।

Pages: [1] 2 3 ... 17