Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Messages - chhanda

Pages: 1 ... 17 18 [19] 20
271
Skin / রমজানে ত্বকের যত্নে
« on: July 16, 2013, 12:25:27 PM »
রমজানে সারাদিন রোজা রেখে ত্বক কিছুটা প্রাণহীন ও নিস্তেজ হয়ে পরে। পানির অভাবে ত্বকের আর্দ্রতা কমে যায়। সিয়াম সাধনার পাশাপাশি এ সময় প্রয়োজন ত্বকের বিশেষ যত্নের। আপনাদের জন্য তাই রইলো রমজানে ত্বকের যত্নের বিশেষ কিছু টিপস্।

* পানি শূণ্যতার কারণে এসময় ত্বকের আর্দ্রতা কমে গিয়ে প্রাণহীন ও শুষ্ক হয়ে পড়ে। ময়শ্চারাইজিং ক্রিম বা লোশন ব্যবহারের মাধ্যমে ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে পারেন। ত্বকের গভীরে আর্দ্রতা যোগিয়ে ত্বক ফেটে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করবে।

* রমজান মাসে সব রকমের টোনার জাতীয় প্রসাধন এড়িয়ে চলা উচিত। এই ধরণের প্রসাধনী বেশি ব্যবহারে ত্বক আরও শুষ্ক হয়ে যায়।

* এসময় ঠোঁট অনেক বেশি ফেটে যায়। রাতে ঘুমাবার আগে ঠোঁটে ভাল করে ভ্যাসলিন বা পেট্রোলিয়াম জেলি দিয়ে ঘুমাতে যাবেন। বেশি শুষ্ক ঠোঁটের যত্নে হালকা গরম নারিকেল তেল ম্যাসাজ করে লাগান।

* অ্যালমন্ড বা কাঠবাদাম বাটা, ঠাণ্ডা দুধ এবং গোলাপ জল দিয়ে তৈরি ফেস প্যাক নিয়মিত ব্যবহার করুন। এটি শুষ্ক পানিশূন্য ত্বকের জন্য খুবই উপকারী।

* মুখের সাথে সাথে শরীরেরও যত্ন নিন। নিয়মিত ত্বকের উপযোগী ভাল কোন বডি লোশন ব্যবহার করুন।

* ইফতার থেকে সেহরির সময় পর্যন্ত প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন। ভাজা পোড়া যথাসম্ভব এড়িয়ে চলুন। ত্বকের যত্নে পানি, স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের কোন বিকল্প নেই।

Collected

272
Skin / রিবন্ডিং চুল
« on: July 15, 2013, 10:23:31 AM »
নারীর সৌন্দর্য প্রকাশের অন্যতম উপাদান সুন্দর চুল। আজকাল ফ্যাশন সচেতন তরুণীরা চুল রিবন্ডিং করছেন। তবে অনেকেই অভিযোগ করেন রিবন্ডিং করার পর চুল ঙেভে যাচ্ছে, রুক্ষ হয়ে পড়ে যাচ্ছে। আসলে এটা হচ্ছে সঠিক যত্ন না নেওয়ায় জন্য। সবারই চুলের যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। তবে রিবন্ডিং করা চুলের চাই বাড়তি যত্ন।

যারা চুল রিবন্ডিং করে বিভিন্ন সমস্যায় রয়েছেন জেনে নিন কীভাবে চুলের যত্ন নেবেন:

*সপ্তাহে ২ দিন রাতে নারিকেল তেল বা অলিভ অয়েল হালকা গরম করে চুলে ম্যাসাজ করুন

*কিছুক্ষণ চুল আঁচড়ে নিন, এতে রক্ত সাঞ্চালন বাড়বে

*শ্যাম্পু করার আগে ১ টি ডিম, ১ চা চামচ ক্যাস্টর অয়েল, ১ চা চামচ লেবুর রস এবং সমপরিমাণ মধু দিয়ে প্যাক তৈরি করে মাথার তালুতে লাগান। একঘণ্টা পর শ্যাম্পু করুন

*গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে আধা ঘণ্টা চুল পেঁচিয়ে রেখে শ্যাম্পু করুন। চুলের রুক্ষভাব কমবে

*রিবন্ডিং করা চুল খুলে রাখা হয় বলে দ্রুত ময়লা জমে। সপ্তাহে অন্তত তিনবার শ্যাম্পু করুন

*সাধারন শ্যাম্পু ব্যবহারে চুল রুক্ষ হলে মাইল্ড শ্যাম্পু ব্যবহার করুন

*শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে

*চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে শ্যাম্পু করার পর এক মগ পানিতে কয়েক ফোঁটা ভিনেগার মিশিয়ে সেই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

এভাবে নিয়মিত যত্ন নিলে চুল হবে আরও সিল্কি এবং কাংঙ্খিত সুন্দর।

Collected from Facebook

273
Skin / Tips for Hair
« on: July 14, 2013, 11:00:01 AM »
মেথি ও কয়েকটা কাঁচা আমলকী পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরদিন তা বেটে চুলে লাগান।এতে চুল মসৃন আর ঝলমলে হবে।

274
Skin / রূপচর্চা
« on: July 13, 2013, 11:13:41 AM »

চালের গুড়া ত্বকের জন্য উত্তম স্ক্রাব।চালের গুড়ার সাথে সামান্য লেবুর রস আর মধু মিশিয়ে মুখে ৫ মিনিট স্ক্রাব্ব করুন। এরপর ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। লোমকুপের ময়লা বের করে আনতে এটি অতি উত্তম স্ক্রাব।

275
Skin / গরমে সুস্থতার ৩০ টিপস !
« on: July 10, 2013, 04:46:32 PM »
১। তৃষ্ণা না পেলেও প্রচুর পানি খাবেন।
২। প্রয়োজনে ফ্রিজে রাখা পানি খান।
৩। বেশি করে সালাদ খান।
৪। প্রচুর গরমে লেবুর শরবত খান।
৫। চর্বিজাতীয় খাবার এসময়ে খাবেন না।
৬। বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী ফল ও সবজি খাবেন।
৭। বাইরের খাবার, কাটা ফল যথসম্ভব এড়িয়ে চলুন।
৮। খাদ্য তালিকায় মৌসুমি সবজি ও ফল যেমন- লাউ, পেঁপে, পটল, ঝিঙে বা তরমুজ, আম, জাম, জামরুল রাখুন।
৯। ডাবের পানি, টাটকা ফলের রস, শসা বেশি করে খাওয়া দরকার।
১০। ফাস্টফুড, তেল ও চর্বিজাতীয় খাবারগুলো যতটুকু সম্ভব এড়িয়ে চলুন।
১১। টক দই অত্যন্ত উপকারী। গরমে নানাভাবে টক দই খাওয়া দরকার।
১২। বাঁধাকপি, ফুলকপি, ব্রকোলি, শিম এড়িয়ে চলুন।
১৩। গরমে সিনথেটিক কাপড় পরবেন না।
১৪। সবসময় সুতির কাপড় পড়ুন। অন্তর্বাসগুলোও যেন সুতির হয়।
১৫। নিয়মিত অন্তর্বাস পরিষ্কার করবেন। এতে চর্মরোগ কম হবে।
১৬। কখনো টাইট পোশাক পরবেন না। সাদা পোশাক পরুন।
১৭। দরজা-জানালায় সাদা রঙের পর্দা টানান এবং ভিজিয়ে দিন পানি দিয়ে।
১৮। মেঝেতে ঠাণ্ডা পানি ঢালুন। ঘরের ছাদেও পানি ঢালার ব্যবস্থা করুন।
১৯। যাঁরা শীতাতপনিয়ন্ত্রিত কক্ষে কাজ করেন, তাঁরা কক্ষ থেকে বের হয়ে সরাসরি বাইরে বা রোদে যাবেন না।
২০। যত কম প্রসাধন মাখুন। কারণ প্রসাধনে লোমকূপ আটকে যায়।
২১। সানস্ক্রিন ছাড়া কিছু মাখাবেন না এবং তা যেন এসপিএফ ৩০-এর বেশি হয়।
২২। গরমে চুল বড় রাখবেন না। তাতে গরম বেশি লাগবে।
২৩। গরমে অপ্রয়োজনে তেল মাখবেন না এবং চুলগুলো ছড়িয়ে রাখুন।
২৪। সপ্তাহে অন্তত ৩ দিন ভালো শ্যাম্পু দিয়ে অবশ্যই চুল ধুয়ে নেবেন।
২৫। সবসময় সাথে তোয়ালে, পানি, ছাতা অথবা রেইন কোট রাখুন।
২৬। খুব টাইট,পা ঢাকা জুতা পরার চেয়ে খোলা স্যান্ডেল পরা ভালো।
২৭। আক্রান্ত ব্যক্তির কাশি বা হাঁচি থেকে কমপক্ষে ৩ ফুট দূরে অবস্থান করুন।
২৮। হাত সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন।
২৯। আঙুল দিয়ে ঘন ঘন নাক অথবা চোখ খুঁটবেন না।
৩০। কফ, কাশি, নাক বন্ধ হয়ে যাওয়া, গলা ব্যথা, জ্বর ইত্যাদি উপসর্গে ডাক্তারের পরামর্শে সুনির্বাচিত ওষুধ গ্রহণ করুন।

276
Skin / চুলের যত্নে কলা:
« on: July 10, 2013, 04:41:01 PM »
# চুলের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে আনতে একটি পাকা কলা চটকে নিয়ে এর সাথে এক টেবিল চামচ মধু ও তিন টেবিল চামচ অলিভ অয়েল একসাথে মিশিয়ে পুরো চুলে লাগান। ২০ মিনিট পর ভালো করে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

# চুলের তেলতেলে ভাব কমাতে একটা পাকা কলা চটকে নিয়ে এর সাথে তিন টেবিল চামচ টক দই খুব ভালো মতো মিশিয়ে পুরো চুলে লাগান। ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

# খুশকি দূর করতে অর্ধেকটা পাকা কলা চটকে নিন। এর সাথে তিন টেবিল চামচ টক দই ও এক টেবিল চামচ পাতিলেবুর রস মেশান। মিশ্রণটি চুলের গোড়া ও মাথার ত্বকে লাগান। পুরো চুলে লাগাবেন না। ২০-২৫ পর চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

# চুলের রুক্ষতা দূর করতে চাইলে একটি পাকা কলা চটকে নিয়ে তার সাথে পুরো একটি ডিম ও তিন টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মেশান। মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন ও এরপর শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

# চুলে হেনা করার সময় কলা ব্যবহার করলে চুল ঝরঝরে হয়। একটি পাকা কলা চটকে নিয়ে হেনা বা মেহেদীর সাথে ভালোভাবে ফেটিয়ে নিয়ে। এই মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে হেনা করার নিয়ম অনুযায়ী অপেক্ষা করুন। এরপর চুল ভালো মতো ধুয়ে ফেলুন।

277
Skin / tips
« on: July 10, 2013, 04:21:38 PM »
একটা জিনিশ ভাবুন তো, পুরানো আমলে তো চিকিৎসা ব্যবস্থা এত উন্নত ছিল না। তখন মানুষ কি দিয়ে চিকিৎসা করতেন নিজেদের? হ্যাঁ, তখন চিকিৎসা হতো ভেষজ বা হারবাল উপায়ে। এই ভেষজ চিকিৎসা একদিকে যেমন নিরাপদ, তেমনই সহজলভ্য আর নিরাময় ক্ষমতা সম্পন্ন। আসুন, জেনে নেই কয়েকটি সহজ ভেষজ চিকিৎসা সম্পর্কে।

* নাক দিয়ে রক্ত পড়লে ডাবের পানি রোজ খাওয়া উচিত। এর সঙ্গে খালি পেটে নারকেল খেলেও নাক দিয়ে রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায়।

* যেসব মায়েরা সন্তানকে পর্যাপ্ত পরিমাণ দুধ খাওয়াতে পারেন না তাদের জন্যে কলমি শাক দারুণ উপকারী। কলমি শাক বেটে ১/২ চামচ রস ঘি দিয়ে সাঁতলে নিয়ে দিনে দুবার সকালে ও বিকালে খেলে মায়ের দুধ বাড়বে। কলমি শাকের ভাজা খেলে তাতে কিন্তু কাজ হবে না।

* অজীর্ণ রোগে বা বদহজমে নিমের ছাল আদর্শ ওষুধ। ৪/৫ গ্রাম নিমের ছাল এককাপ গরম পানিতে একরাত ভিজিয়ে রেখে পরদিন সকালে সেই পানি ছেঁকে খালি পেটে খেলে অজীর্ণ সেরে যাবে।

*লিভার বা যকৃতের ব্যথা সারাতেও নিম এক নম্বর। ১ গ্রাম নিমের ছাল, ১/২ গ্রাম কাঁচা হলুদ ও ১ গ্রাম খানিক শুকনো আমলকির গুঁড়োর সাথে মিশিয়ে খালি পেটে খেলে এক সপ্তাহের মধ্যে ব্যথা দূর হয়ে যাবে।

* যে সব শিশু রাতে না ঘুমিয়ে ছটফট বা কান্নাকাটি করে তারা সাধারণত কোষ্ঠকাঠিন্যে ভোগে। এদেরও অল্প গরম দুধের সাথে (গরুর দুধ) ২০/২৫ ফোঁটা কলমির রস খাওয়ালে এদের কোষ্ঠকাঠিন্য সেরে যাবে। তবে, শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে খাওয়ানো ভালো।

*মুখে উঠেছে ব্রণ? একটু খানি লবঙ্গ বাটা লাগিয়ে দিন ক্ষত স্থানে। দ্রুত মিলিয়ে যাবে, আবার দাগও থাকবে না।


লাইক দিলে আমরা অনুপ্রানিত হই। আপনি নিজেও যদি লাইক না দেন তাহলে কয়েকদিন পর পরবর্তী পোস্টগুলো আর দেখতে পাবেন না।তাই লাইক আর শেয়ার দিন। একটিভ থাকুন। নিজে যেটা জানলেন বন্ধুদের কেও জানতে দিন।


278
Skin / Important tips
« on: July 07, 2013, 03:30:55 PM »
# পেট ফাঁপায় ২/৩ কোয়া রসুন লবণ সহ বা লবণ ছাড়া খেলে অল্প সময়ে পেট ফাপা সেরে যাবে অথবা
এক টুকরো আদা লবণ সহ খেলে পেট ফাপা সেরে যাবে।

# খাবার আগে এক টুকরো আদা খেয়ে তারপর খাওয়া শুরু করলে সেই খাওয়াতে বদ হজম বা পেট ফাপা হবে না সেই সাথে খাবার রুচিও বাড়বে।

279
Skin / How to give yourself a facial massage
« on: July 06, 2013, 11:47:02 AM »
There is a lot that can be said about the benefits of massage. One of the main goals of facial massage is to deal with stress and remove tension from the face. The face has many muscles and is the one part of your body where the effects of stress are most noticeable. The bone plates of the face allow for a sturdy but gentle massage.
Facial massage should be done after the application of cream or lotion, because the skin of the face is vulnerable and if it is not properly protected it can easily be traumatized, damaged or stretched. Massage invigorates the skin, improving blood flow and facilitating the production of collagen and elastic.
0
The five basic reasons for getting a facial massage are:
1.   It removes stress and tension.
2.   It tones the skin and muscles of the face.
3.   It improves facial color.
4.   Enhances the production of elastic and collagen.
5.   Postpones the appearance of signs of aging.
Here are a few simple massage techniques that you can perform on yourself every day after applying your daily lotion.

Neck massage
Stretch out your fingers, but keep them firmly together and use them to massage your neck starting from the bottom and moving up. Use the back of your hand to stroke your neck from the bottom up.

Massage of the chin
Place you left fist under your chin. Use the middle and index finger of your right hand to stroke your chin from the bottom up all the way to the lower lip. Place the index, middle and ring fingers of both your hands on your temples so that you can still reach your chin with both thumbs. Using your thumbs, stroke your chin horizontally moving from the inside out along the jawline.

Lip massage
Purse your lips as if you are about to give a kiss. Use your fingers to smooth out the laugh lines with gentle circular motions. Put your left hand on your left cheek and trace your mouth with the index finger of your right hand. Trade hands and repeat.

Nose massage
Massage your nose and its sides all the way to the area between your eyebrows by using first horizontal and then circular motions. Then move from the side of your nostrils toward your cheekbones and finish at the base of the ears.

Cheek massage
Any time you want to massage your cheeks, you have to secure the skin of your chin by placing a fist underneath it. Proceed with soft circular motions beginning at the chin and working toward the earlobes. Repeat, but use patting motions instead of circular.

Eye massage
Close your eyes. Place your fingertips at their inner corners and, applying light pressure, move them over the lid toward the outer corners of the eyes. Return to the inner corner, but this time use patting motions instead of strokes. Head toward the outer corner again with circular motions done with one or two fingers only. Return back to the inner corner with patting.

Forehead massage
Place the fingers of both hands in the center of your forehead. Smooth your forehead simultaneously moving the fingers of your right hand toward your right temple and the fingers of your left hand – toward your left. Repeat several times and end with a light patting.

280
Thank u very much ma'am for the post.. didn't know the secret ...

281
Fashion / Re: পোশাকেই স্লিম!
« on: July 06, 2013, 11:28:10 AM »
like the idea

282
• ১ টেবিল চামচ গুঁড়ো দুধ,১ টেবিল চামচ মধু,১টেবিল চামচ লেবুর রস এবং আধা টেবিল চামচ বাদামের তেল ভালো ভাবে মিশিয়ে মুখে ১০-১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন।তারপর পরিষ্কার করুন।এই প্যাকটি মুখে শাইন আনবে আর রোদে পোড়া ভাব দূর করবে।

• বেশন,দুধ ২ চা চামচ এবং লেবুর রসের মিশ্রন মুখে,গলায় লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।সপ্তাহে ২বার এটা লাগান আপনার গায়ের রঙ অবশ্যই উজ্জ্বল হবে।

• ঝকঝকে ত্বকের জন্য চন্দন গুঁড়োর অবদান অনস্বীকার্য। চন্দন গুঁড়োর সাথে দুধ মিশিয়ে প্রত্যেকদিন হালকা হাতে ম্যাসাজ করুন। অল্প দিনের মধ্যে আপনার মুখে হাসি ফুটবেই।

• আপনার যদি টমেটো তে অ্যালার্জি না থেকে থাকে তাহলে কয়েক ফোঁটা লেবুর রসের সাথে টমেটোর ক্লাথ মিশিয়ে মুখে এবং গলায় ব্যবহার করুন ফর্সা ত্বকের জন্য আর ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

• আধা কাপ চায়ের লিকার(ঠাণ্ডা),২ চামচ চালের গুঁড়ো, আধা চামচ মধু মিশিয়ে মুখে লাগান।চালের গুঁড়ো স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করবে আর মধু মুখের আর্দ্রতা বজায় রাখবে।

• শশার রস আর মধু সমান পরিমাণ নিয়ে ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন।এটি শুষ্ক ত্বকের জন্য অনেক উপকারী।তৈলাক্তও ত্বকে মধুর বদলে লেবু ব্যবহার করতে হবে।

• সপ্তাহে একবার পাকা কলা চটকিয়ে মুখে লাগান আর ৩/৪ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।মুখে লুকিয়ে থাকা সব ময়লা নিমিষে পালিয়ে যাবে আর আপনি হয়ে উঠবেন আরো আকর্ষণীয়।

• ২ টেবিল চামচ বেসন,২ চিমটি কাঁচা হলুদ ,২-৩ ফোঁটা লেবুর রস আর ১ চা চামচ দুধ দিয়ে প্যাক বানিয়ে ফেলুন।মুখে ৫ মিনিট ভালো ভাবে ম্যাসাজ করুন এই প্যাকটি।তারপর ২০ মিনিট পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।তবে মনে রাখবেন হলুদ কিন্তু সবার ত্বকের জন্য নয়। তাই আগে একটু টেস্ট করে নিবেন কাঁচা হলুদ আপনার বন্ধু না শত্রু।

• কাঁচা আলুর রস অথবা আলু পাতলা করে কেটে অথবা আলুর পাল্প দিনে ২বার করে ব্যবহার করলেও ভালো ফল পাবেন।

আশা করছি টিপস গুলো আপনাদের কাজে লাগবে।কিন্তু অবশ্যই খেয়াল রাখবেন উপাদানগুলোর সাথে আপনার ত্বক মানিয়ে নিতে পারে কিনা।আপনার এক বন্ধু বা আত্মীয় এক উপাদান দিয়ে উপকার পায় বলে আপনিও পাবেন এমন কোন কথা নেই।সেজন্য আমি বিভিন্ন উপাদানের প্যাকের রেসিপি দিয়েছি।সব সময় আগে অল্প করে হাতে লাগিয়ে দেখবেন কোন ধরণের চুলকানি কিংবা জায়গাটা লাল হয়ে যাচ্ছে কিনা,তারপর পছন্দসই প্যাকটি বেছে নিন।

283
Skin / Skin Protection Tips
« on: July 04, 2013, 10:05:53 AM »
রোমকূপ বড় হয়ে গেলে ত্বকে সহজেই ময়লা ও জীবাণু প্রবেশ করে। আর এর থেকে ব্রণ সহ নানা সমস্যা দেখা দেয়। এক টেবিল চামচ টমেটোর রস নিন, সাথে ২ ফোটা লেবুর রস নিন। এবার তুলোতে করে মুখে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করুন। ১৫ মিনিট পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। রেগুলার এই প্যাক রোমকূপ সঙ্কুচিত করতে সাহায্য করবে।

284
like the post

285
Here you will find a few small, but effective things you can do to make your skin soft and radiant, and most of all – healthy.
1.   Avoid consuming foods and beverages containing chocolate or cocoa.
2.   Avoid consuming fried and greasy foods.
3.   Avoid foods containing starch such as bread, cookies and pastries.
It is very important to know your skin type so that you can take the proper care for it and treat it in the way it requires. Listed below are the 5 skin types. Compare your skin against their characteristics to find what your skin type is and we will show you how to care for it.
1.   Dry skin type
2.   Oily skin type
3.   Mixed skin type
4.   Sensitive skin type
5.   Normal skin type
Caring for your skin type

Caring for dry skin
Use a specially designed cleansing lotion to cleanse your skin, but leave it on for a while before wiping it away. Splash cold water on your face to freshen it. Use heavy-duty moisturizer which will help the skin retain moisture and prevent evaporation.

Caring for oily skin
Wash your skin with cleansing foam. It removes impurities, but retains moisture. After that, rub the skin with a cotton ball dipped in alcohol-based lotion. Even oily skin needs moisturizing, but the moisturizer has to be light. Dab away all excesses with a tissue.

Caring for mixed skin
Use cleansing foam to wash your face in the morning. This will keep the oily parts clean and prevent the formation of blackheads. In the evening, apply moisturizer to calm the dry areas.

Caring for sensitive skin
Never wash your face with soap. Use hypoallergenic cleansing lotion instead. Use a nourishing moisturizer and a lotion which creates a protective barrier to prevent irritation. Make sure that your moisturizer does not contain perfume.

Caring for normal skin
Wash your face with foam. While doing that, rub the foam in, massaging the face with gentle circular motions. Cool your skin down with a splash of cold water or lotion which does not contain alcohol

Pages: 1 ... 17 18 [19] 20