Show Posts

This section allows you to view all posts made by this member. Note that you can only see posts made in areas you currently have access to.


Messages - skaka

Pages: 1 [2] 3 4 ... 6
16
Foundation Day / Re:Foundation Day-2013
« on: February 17, 2013, 10:42:31 AM »
Memorable moment!

18
We need to know the early and delayed effect of climate change. Material and their contamination are also necessary. So for awareness building against delayed effect to mass pupil is essential.

19
Permanent Campus of DIU / Re: Our Parmanent Campus, Our Reflection.
« on: September 10, 2012, 01:38:06 PM »
The reality is that some of the private universities are the best universities in the universe. Insullah, near future we also will be in the remarkable positions in the universe by all manners.

20
যে ব্যবস্থাপত্রে রোজা নষ্ট হয় না
অধ্যাপক এ বি এম আব্দুল্লাহ | তারিখ: ০৮-০৮-২০১২

৯ মন্তব্য প্রিন্ট ShareThis পরের সংবাদ» 
রোজাদার রোগীর অবস্থা বিবেচনা করে দিতে হবে ব্যবস্থাপত্র।

ছবি: সৈকত ভদ্র
ডিন, মেডিসিন অনুষদ, অধ্যাপক, মেডিসিন বিভাগ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়
ইসলামের পাঁচটি মূল স্তম্ভের মধ্যে রোজা অন্যতম। প্রত্যেক মুসলমানের জন্য রমজানের এক মাস রোজা রাখা ফরজ। এ সময় একজন মুসলমানকে সুবেহ সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত যেকোনো খাদ্যদ্রব্য ও পানীয় গ্রহণ এবং মুখে ওষুধপত্র খাওয়া থেকে সম্পূর্ণ বিরত থাকতে হয়। অনেক সময় অনেক রোগী একদিকে যেমন রোজা রাখতে চান, তেমনি অন্যদিকে রোগের কারণে বিভিন্ন ওষুধপত্র সেবন করাটাও বাধ্যতামূলক হয়ে দাঁড়ায়, যা না করলে তাঁর জীবন বিপন্নও হতে পারে। রোজা রাখা অবস্থায় অনেক রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষার বা অস্ত্রোপচারও জরুরি হয়ে পড়তে পারে।
আধুনিক বিজ্ঞানের কল্যাণে অনেক নতুন নতুন চিকিৎসা—পদ্ধতি ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা আবিষ্কৃত হয়েছে, যা আগে ছিল না। যেমন ইনজেকশনের মাধ্যমে ওষুধ দেওয়া, ইনহেলার, রক্ত পরীক্ষা, এন্ডোস্কপি, কোলনোস্কপি, বায়োপসি ইত্যাদি। এর যেকোনোটাই রোজাদার রোগীর জন্য জরুরি হয়ে পড়তে পারে। এ রকম পরিস্থিতিতে অনেক সময় রোগী এবং চিকিৎসক উভয়েই রোজা রাখা না-রাখা নিয়ে দোটানায় পড়েন। এমনকি অনেক চিকিৎসকও সঠিক পরামর্শ দিতে দ্বিধাবোধ করেন।
এ সমস্যাগুলো সামনে রেখে রোজা রাখা অবস্থায় ওষুধ গ্রহণ, পরীক্ষা-নিরীক্ষা ইত্যাদির ব্যাপারে সারা বিশ্বের ইসলামি চিন্তাবিদ ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা তাঁদের সুচিন্তিত অভিমত দিয়েছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, ইসলামি আলেম-ওলামাদের সঙ্গে কথা বলে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে রোজা থাকা অবস্থায় বেশ কয়েকটি পন্থায় ওষুধ সেবন ও বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করলে রোজা নষ্ট হবে না।
১৯৯৭ সালের জুনে মরক্কোতে ‘ইসলামের দৃষ্টিতে সমসাময়িক চিকিৎসা সমস্যা’ (An Islamic View of Certain Contemporary Medical Issues) শিরোনামে একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এই সেমিনারের মূল আলোচ্য বিষয় ছিল কী কী মেডিকেলজনিত কারণে রোজার ক্ষতি হয় না। পরবর্তী সময়ে নবম ফিকাহ-মেডিকেল সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে যৌথভাবে বৈজ্ঞানিক, সাংস্কৃতিক এবং স্বাস্থ্য বিষয়ে আলোচনা হয়। এ আলোচনা যৌথভাবে জেদ্দার ইসলামিক ফিকাহ একাডেমি, মিসরের আল-আজহার ইউনিভার্সিটি, আলেকজান্দ্রিয়ায় অবস্থিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আঞ্চলিক কার্যালয় এবং ইসলামি শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের (আইএসইএসসিও) উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়। এই সেমিনারেও মূল আলোচ্য বিষয় ছিল কী কীভাবে ওষুধ সেবনে বা পরীক্ষা করলে রোজা ভঙ্গ হয় না।
ইসলামি চিন্তাবিদ ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সর্বসম্মতিক্রমে এমন কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেন, যাতে অসুস্থ ব্যক্তি রোজা রাখা অবস্থায় নিম্নলিখিত ব্যবস্থাপত্র নিলে এবং প্রয়োজনে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করালে রোজা ভঙ্গ হবে না। এই সেমিনারের সিদ্ধান্ত ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নালে প্রকাশ করা হয়েছে।

 রোজা রাখা অবস্থায় চোখ, কান ও নাকে ড্রপ নেওয়া যাবে।
 হূদরোগীর বেলায় বুকে ব্যথা হলে নাইট্রোগ্লিসারিন স্প্রে বা ট্যাবলেট জিহবার নিচে নিতে পারবেন।
 মহিলা রোগীর তলপেটে পরীক্ষার জন্য যোনিদ্বার দিয়ে চিকিৎসক বা নার্স হাতের আঙুল অথবা কোনো যন্ত্র প্রবেশ করালে রোজা ভাঙবে না। এমনকি চিকিৎসার জন্য যোনিপথে পেসারি বা কোনো ওষুধ ব্যবহার করা যাবে।
 মূত্রথলি পরীক্ষা বা এক্স-রে করার জন্য রোগীর প্রস্রাবের দ্বার দিয়ে ক্যাথেটার অথবা অন্য কোনো যন্ত্র প্রবেশ করালে অথবা রেডিও-ওপেক ডাই প্রবেশ করালে রোজা ভঙ্গ হবে না।
 দাঁত তোলা, ড্রিলিং করা বা মেসওয়াক বা ব্রাশ দিয়ে দাঁত পরিষ্কার করা যাবে, তাতে রোজা ভঙ্গ হবে না। তবে যেন এগুলো করার সময় পাকস্থলীতে থুতু বা টুথপেস্ট প্রবেশ না করে।
 রোগীর চামড়া, মাংস, অস্থিসন্ধি ও শিরায় ইনজেকশন দেওয়া যাবে। কিন্তু স্যালাইন, ডেক্সট্রোজ, প্রোটিনজাতীয় জিনিস ইত্যাদি ব্যবহার করা যাবে না।
 যে কেউ রক্ত অন্যকে দিতে পারবেন আবার জরুরি প্রয়োজনে নিজেও নিতে পারবেন।
 কোনো রোগী অক্সিজেন অথবা অজ্ঞানকারী গ্যাস (অ্যানেসথেসিয়া) নিলে রোজা ভঙ্গ হবে না।
ত্বকের মাধ্যমে শরীরের ভেতরে যায় এমন মলম, ক্রিম, অয়েন্টমেন্ট ইত্যাদি ব্যবহার করা যাবে।
পরীক্ষার জন্য রোগীর শরীর থেকে রক্ত নেওয়া যাবে।
 হূদরোগে আক্রান্ত রোগী হার্টের এনজিওগ্রাম এবং কার্ডিয়াক ক্যাথেটার করা যাবে।
 রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য বা চিকিৎসার অংশ হিসেবে এন্ডোস্কপি করলে রোজা ভাঙবে না।
 মুখ পরিষ্কারের জন্য মাউথ ওয়াশ বা গড়গড়া বা মুখে স্প্র্রে জাতীয় ওষুধ ব্যবহার করা যাবে, তবে যেন পাকস্থলীতে কোনো কিছু না যায়।
 জরায়ু পরীক্ষার জন্য শরীরে হিস্টারোস্কপি করা যাবে, এমনকি জরায়ুতে কোনো যন্ত্রপাতি বা অন্য কিছু পরীক্ষার জন্য প্রবেশ করালে রোজায় কোনো সমস্যা হবে না।
 লিভার বায়োপসি অথবা অন্য কোনো অঙ্গের বায়োপসি করলে রোজা নষ্ট হবে না।

অধিকাংশ বিশেষজ্ঞ অনুমোদন করেন, যে—
 নাকে স্প্রে বা হাঁপানি রোগীর বেলায় ইনহেলার জাতীয় কিছু নিলে কোনো সমস্যা নেই।
 রোগীর পায়ুপথে ইনজেকশন অথবা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আঙুল বা অন্য কোনো যন্ত্র প্রবেশ করালে রোজা ভাঙবে না।
 জরুরি কোনো অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হলে রোজা রাখা অবস্থায় করা যাবে।
 কিডনি অকেজো হলে রোগীর ডায়ালাইসিস করলে রোজা ভাঙবে না।

21
Ramadan and Fasting / Re: A few Verses each day
« on: August 06, 2012, 11:20:51 AM »
O Allah you are merciful. I always pray to get your merci. Please help us Allah.

22
Ramadan and Fasting / Re: A Quick preparation guide for RAMADHAN
« on: August 06, 2012, 11:16:58 AM »
Almighty Allah gives us a lot of delicious food. We need to obey his rules only. We need Pray to almighty for his merci.

23
Congratulation.........................

The real day is not so far when we feel proud as a number 1.

24
Nutrition and Food Engineering / Re: ফরমালিন,,...!!!!
« on: June 14, 2012, 11:38:52 AM »
Thanks for your post. I shall try my best to shere this knowledge with my Neighbor.

25
Permanent Campus of DIU / Re: Permanent Campus in New Dimension
« on: June 06, 2012, 03:27:25 PM »
Picture of inauguration ceremony of the 16 storied DIU Female Hostel

26
Permanent Campus of DIU / Re: Permanent Campus in New Dimension
« on: June 06, 2012, 03:26:25 PM »
Photography of inauguration ceremony of the 16 storied DIU Female Hostel.

27
Permanent Campus of DIU / Permanent Campus in New Dimension
« on: June 06, 2012, 03:22:08 PM »
It's a great news that a 16 storied female hostel construction work started in our parmanent campus. The day is not so far when a real campus like a natural photograph will always observe our eyes. Always good wishes for beloved Daffodil.

28
Permanent Campus of DIU / Re: Our Parmanent Campus, Our Reflection.
« on: June 06, 2012, 02:40:11 PM »
Ow! great news! Construction work of the Main Admin Building finished and Multistoried Female hostle construction work started. Good wishes always for my beloved University.

29
Guideline of Exhibition/fair / Re: Project Competition
« on: May 30, 2012, 04:09:12 PM »
I am very pleased to see the first phase project competition. I strongly beleve and hope that the regular basis competetion will encourage our beloved student to find the new idea and its implementation.

30
Guideline of Exhibition/fair / Re: Project Competition
« on: May 30, 2012, 04:05:14 PM »
The second day of the preliminary phase, projects from the departments of Textile Engineering (TE) and Electronics and Telecommunication Engineering (ETE) had been  demonstrated. The students of TE demonstrated 6 projects and the students of ETE department demonstrated 4 projects. All the projects demonstrated were praiseworthy.

Honorable Dean faculty of Scienc and Information Technology Prof. Dr. S. M. Mahbub-Ul-Haque Majumder visited the project competition. A good number of teachers and students from all the faculties of DIU visited the competition. The visitors appreciated the innovative ideas and implemented projects.

Pages: 1 [2] 3 4 ... 6