কৃত্রিম উপগ্রহ দেবে রোগের পূর্বাভাস

Author Topic: কৃত্রিম উপগ্রহ দেবে রোগের পূর্বাভাস  (Read 312 times)

Offline Sahadat

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 305
  • Test
    • View Profile
জীবাণু ও ভাইরাসের বৃদ্ধির জন্য অনুকূল পরিবেশ শনাক্ত করার মাধ্যমে রোগের সম্ভাব্য প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করতে কৃত্রিম উপগ্রহ সহায়তা করতে পারে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ডেঙ্গু অথবা ম্যালেরিয়া জ্বরের প্রাদুর্ভাব হওয়ার কয়েক মাস আগেই ভবিষ্যদ্বাণী করা সম্ভব হবে।
গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার সান জোসেতে অ্যামেরিকান অ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য অ্যাডভান্সমেন্ট অব সায়েন্সের বার্ষিক সভায় গবেষকেরা এ কথা জানিয়েছেন। খবর এএফপির।
সভায় ক্যানবেরার অস্ট্রেলিয়ান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্কুল অব পপুলেশন সায়েন্সের পরিচালক আর্চি ক্লিমেন্টস বলেন, কিছু কিছু রোগ, বিশেষ করে জীবাণুঘটিত রোগের ক্ষেত্রে পরিবেশ অত্যন্ত স্পর্শকাতর বিষয়। বিজ্ঞানীরা কৃত্রিম উপগ্রহ থেকে পাওয়া তাপমাত্রা, বৃষ্টিপাত, মাটির আর্দ্রতা, গাছপালা ও উদ্ভিদের প্রকৃতি এবং ভূমির ব্যবহারসংক্রান্ত তথ্য ব্যবহার করে থাকেন। পরে তাঁরা ওই তথ্য কম্পিউটারে বিশ্লেষণ করেন।
মার্কিন কৃষি অধিদপ্তরের সেন্টার ফর মেডিকেল এগ্রিকালচার অ্যান্ড ভেটেরিনারি এনটোমোলজির ফ্লোরিডার পরিচালক কেনেথ লিনথিকিউমের মতে, নির্দিষ্ট কোনো রোগের প্রাদুর্ভাব হওয়ার আগেই পরিবেশসংক্রান্ত, বিশেষ করে বৈশ্বিক জলবায়ুসংক্রান্ত, তথ্য ব্যবহার করে রোগের ভবিষদ্বাণী করার কাজে এটা সরকারি বিজ্ঞানীদের সহায়তা করতে পারে।
ভূপৃষ্ঠের ফাটলের ফলে সৃষ্ট উপত্যকায় মশাবাহিত ভাইরাসজনিত জ্বর নিয়ে কাজ করছে কেনেথ লিনথিকিউমের দল। আফ্রিকা এবং আরব উপদ্বীপে এই রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। বিজ্ঞানীরা দেখেছেন যে প্রতিবার যখন ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে বন্যার সৃষ্টি হয়, তখনকার পরিস্থিতি রোগ বহনকারী মশাদের ডিম ছাড়ার উপযুক্ত সময়। কেনেথ বলেন, ওই রোগের প্রাদুর্ভাবের দুই থেকে পাঁচ মাস আগে আমরা সে ব্যাপারে ভবিষ্যদ্বাণী করতে সক্ষম।
বিজ্ঞানীরা দেখেছেন খরা হলে প্রায়ই আফ্রিকায় ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব ঘটে। ভারী বৃষ্টিপাত হলে এশিয়াতেও এ রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। কেনেথ লিনথিকিউম বলেন, পরিবেশ এবং রোগ সংক্রমণসংক্রান্ত বিষয়াদি বুঝতে পারলে সম্ভাব্য রোগের প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে ভবিষ্যদ্বাণী করা সম্ভব।
Sahadat