মোবাইল ফোনকে অধিক গুরুত্ব দেওয়ার ফল!

Author Topic: মোবাইল ফোনকে অধিক গুরুত্ব দেওয়ার ফল!  (Read 503 times)

Offline sadiur Rahman

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 199
  • Test
    • View Profile
যন্ত্রের কাছে মানুষ হেরে গেছে বহু আগেই। হয়ে দাঁড়িয়েছে গৃহপালিত প্রাণী। এমন এক সময় আসবে যখন পিতা-মাতা বা অভিভাবকের জায়গায় সন্তানকে শিক্ষা দেওয়ার দায়িত্ব নিয়ে নেবে মোবাইল ফোনের মতো যন্ত্র। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসে একটি অনুষ্ঠানে অ্যাপলের সহ-প্রতিষ্ঠাতা স্টিভ ওজনিয়াক শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে এ কথা বলেন। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেটের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

স্টিভ জবস ও স্টিভ ওজনিয়াক মিলে সত্তরের দশকে গড়ে তুলেছিলেন অ্যাপল। ১৯৮০ সালে অ্যাপল ছেড়ে দেন ওজনিয়াক। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ব্যবস্থাপনার চেয়ে প্রকৌশল নিয়ে কাজ করতেই বেশি ভালো লাগে তাঁর। এরপর থেকে নানা স্টার্টআপ বা উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ও দাতব্য কাজে ব্যস্ত আছেন তিনি। তিনি অ্যাপলে একজন সম্মানসূচক কর্মকর্তার পদে রয়েছেন এবং বাৎসরিক বৃত্তি নেন।

স্টিভ ওজনিয়াক বলেছেন, ২০০ বছর আগেই যন্ত্রের কাছে মানুষ হেরে গেছে। তাই এখন শ্রেণিকক্ষের মধ্যে বেশি বেশি কম্পিউটার বসালেও শিশুদের অধিক স্মার্ট করে তোলা সম্ভব হবে না।

ওজনিয়াকের মতে, যন্ত্রকে অধিক গুরুত্ব দেওয়ার ফলে আমরা গৃহপালিত প্রাণীতে পরিণত হয়েছি।
নিজের প্রসঙ্গে স্টিভ ওজনিয়াক বলেন, ‘আমি প্রযুক্তি ভালোবাসি এবং আমি সবকিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে দেখি। আমার কমপক্ষে পাঁচটি আইফোন ও কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোন আছে।’
ওজনিয়াক বলেন, ‘আমি এমন একটি বিশ্বের কথা কল্পনা করি যখন মোবাইল ফোনের মতো এই যন্ত্রগুলো আমাদের সন্তানদের আমাদের হয়ে শিক্ষা দেবে।’

শ্রেণিকক্ষে শিক্ষাদান প্রসঙ্গে শিক্ষার্থীদের সামনে ওজনিয়াক বলেন, ‘শ্রেণিকক্ষের মধ্যে অধিক প্রযুক্তিপণ্য রাখার পরিবর্তে প্রতিটি শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমিয়ে রাখা ভালো। যখন কোনো শিক্ষার্থী তার সঙ্গীর চেয়ে প্রযুক্তি বিষয়ে বেশি আগ্রহ নিয়ে এগিয়ে যাবে তখন তাকে সে বিষয়টি শেখাতে হবে। কারণ, সবার একই বিষয় ভালো লাগবে তা নয়।’
কৃত্রিম বুদ্ধিমান যন্ত্র তৈরিতে আমরা কী অধিক গুরুত্ব দিচ্ছি? এ ধরনের প্রশ্নের উত্তরে ওজনিয়াক বলেন, ‘আমরা অনেক আগে থেকেই যন্ত্রকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে ফেলেছি। আমাদের কাছ থেকে তারা ২০০ বছর আগে থেকেই অনেক ক্ষমতা ছিনিয়ে নিতে শুরু করেছে।’
ম্যাসাচুসেটসের ম্যাসমিউচুয়াল সেন্টারে শিক্ষার্থীদের সামনে ওজনিয়াক বলেন, ‘আমাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে জিনিসটা আছে তা হচ্ছে সৃজনশীলতা। জ্ঞান যে সব সময় অন্য মানুষ বা বই থেকে পাওয়া যাবে তা ঠিক নয়। নিজেকে সবকিছুর শিক্ষা দিতে হবে এবং নিজের স্বপ্নকে বাস্তব করার জন্য যা করা দরকার নিজে থেকে তা আয়ত্ত করে নিতে হবে।’
এর আগে একবার বুদ্ধিমান যন্ত্র নিয়ে নিজের সংশয়ের কথা বলেছিলেন স্টিভ ওজনিয়াক। তিনি বলেছিলেন, মানুষের জন্য ভয়াল ও খারাপ ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করে আছে। কারণ, ভবিষ্যতে মানুষের কাছ থেকে ক্ষমতা কেড়ে নেবে কম্পিউটার। কৃত্রিম বুদ্ধিমান যন্ত্রগুলো মানুষের জন্য অশুভ হয়ে দাঁড়াবে।

Source: http://www.prothom-alo.com/technology/article/519121/%E0%A6%AE%E0%A7%8B%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%B2-%E0%A6%AB%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%85%E0%A6%A7%E0%A6%BF%E0%A6%95-%E0%A6%97%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AC-%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%93%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AB%E0%A6%B2
Shah Muhammad Sadiur Rahman
Coordination Officer
Department of Multimedia & Creative Technology (MCT)
Email:mctoffice@daffodilvarsity.edu.bd
Cell:01847140056(CP),Ext:160

Offline asitrony

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 547
    • View Profile
I agree and believe so!!!