ওয়ার্ন–টেন্ডুলকারের ক্রিকেট লিগ

Author Topic: ওয়ার্ন–টেন্ডুলকারের ক্রিকেট লিগ  (Read 360 times)

Offline maruppharm

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 1227
  • Test
    • View Profile
শচীন টেন্ডুলকার-শেন ওয়ার্ন। মাঠে তাঁদের প্রতিদ্বন্দ্বিতার ইতিহাসটা কিংবদন্তিতুল্য। অস্ট্রেলিয়া-ভারতের দুই কিংবদন্তির ‘শত্রুতা’ যা ছিল তা ক্রিকেট মাঠেই। মাঠের বাইরে বরাবরই ভালো বন্ধু তাঁরা পরস্পরের। টেন্ডুলকার-ওয়ার্ন এবার একসঙ্গে মিলে নিলেন নতুন পরিকল্পনা। অবসরে যাওয়া তারকা ক্রিকেটারদের নিয়ে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করবেন। প্রস্তুতিও এগিয়েছে অনেকটা। নামও ঠিক হয়ে গেছে—ক্রিকেট অল স্টারস লিগ। এখন চলছে খেলোয়াড় সংগ্রহের কাজ।
ওয়ার্ন ইঙ্গিতটা দিয়েছিলেন গত জানুয়ারিতেই। ‘টেন্ডুলকার ও আমি খুব শিগগির দারুণ একটা ঘোষণা দিতে যাচ্ছি’—টুইট করেছিলেন অস্ট্রেলীয় লেগ স্পিনার। তবে কাল নতুন এই ক্রিকেট লিগ আয়োজনের খবরটা দিয়েছে অস্ট্রেলীয় দৈনিক দি অস্ট্রেলিয়ান। যদিও টেন্ডুলকার-ওয়ার্নের সঙ্গে আর কারা যুক্ত এই আয়োজনে সেসবের কিছুই জানা যায়নি। যেসব ক্রিকেটারকে প্রস্তাবিত এই লিগে খেলার প্রস্তাব দেওয়া, জানা গেছে শুধু তাঁদের কয়েকজনের নাম। এঁদের মধ্যে আছেন ব্রায়ান লারা, রাহুল দ্রাবিড়, জ্যাক ক্যালিস, রিকি পন্টিং, অনিল কুম্বলে, অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, মুত্তিয়া মুরালিধরন, অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ, গ্লেন ম্যাকগ্রা ও ভিভিএস লক্ষ্মণ। নতুন এই লিগে খেলার জন্য ম্যাচপ্রতি ২৫ হাজার মার্কিন ডলার দেওয়া হতে পারে খেলোয়াড়দের।
আয়োজকদের পরিকল্পনা সাড়ে তিন বছরের এক সময়সীমার মধ্যে বিশ্বজুড়ে সিরিজ আয়োজনের। আর আগামী সেপ্টেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলেস ও শিকাগোতে ম্যাচ আয়োজনের মধ্য দিয়েই পর্দা উঠতে পারে সাবেক তারকাদের এই লিগের। ভেন্যু হিসেবে নাম এসেছে কানাডা, সিঙ্গাপুর, হংকং ও আরব আমিরাতেরও। উদ্দেশ্য পরিষ্কার, ক্রিকেটবিমুখ এসব দেশের ক্রিকেটভক্তদের একটু প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেটের স্বাদ দেওয়া।
এসেল গ্রুপের মতো বিদ্রোহী ক্রিকেট লিগ নয়, আয়োজকদের ইচ্ছে আইসিসি, বিসিসিআই, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও ইসিবির মতো শক্তিশালী ক্রিকেট বোর্ডগুলোকে পাশে রেখেই এগিয়ে যাওয়া। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া ও আইসিসি বলেছে, এ ব্যাপারে তারা এখনো কিছুই জানে না। তবে ব্রেট লির ম্যানেজার নিল ম্যাক্সওয়েল জানিয়েছেন তাঁরা প্রস্তাব পেয়েছেন।
শেষ পর্যন্ত সিনিয়রদের এই টুর্নামেন্টটা হলে ক্রিকেট প্রবেশ করবে নতুন দিগন্তে। সিনিয়র ট্যুরটা অবশ্য অনেক দিন ধরেই টেনিস ও গলফের দিনপঞ্জিতে স্থান করে নিয়েছে। বয়স্ক খেলোয়াড়েরা আর্থিকভাবে তো লাভবান হনই, ভক্তরাও পেয়ে যান পুরোনো স্মৃতি রোমন্থনের সুযোগ। রয়টার্স, ক্রিকইনফো।
Md Al Faruk
Assistant Professor, Pharmacy