সহজেই খুশকির চুলকানি দূর করুন !

Author Topic: সহজেই খুশকির চুলকানি দূর করুন !  (Read 170 times)

Offline shirin.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 343
  • Test
    • View Profile
মাথায় খুশকি হওয়া প্রায় প্রতিটি মানুষের জন্যেই অত্যন্ত বিরক্তিকর, অস্বস্তিকর আর দৈনন্দিন ঘটনা। বিশেষ করে সেটা যদি হয় অফিস কিংবা অনুষ্ঠানে। তবে খুশকির চাইতেও যে জিনিসটি বেশি ঝামেলায় ফেলে আমাদেরকে সেটি হচ্ছে খুশকি থেকে হওয়া চুলকানি। খুশকি পুরোপুরি দূর না করা গেলেও সেটা কোনভাবে চুলকে সাজিয়ে গুছিয়ে নিয়ে নাহয় অন্যের চোখ থেকে আড়াল করবেন আপনি। কিন্তু এর চুলকানি? আপনার অতি যত্নে আঁচড়ানো চুলকেও মুহূর্তে তছনছ করে দেবে এটি। তবে আপনি চাইলেই কিন্তু খুব সহজেই বাড়িতে বসেই প্রাকৃতিকভাবে আপনার মাথা থেকে নামিয়ে ফেলতে পারেন এই অযাচিত সমস্যাকে।

১. লেবুর রস

মাদার নেচার নেটওয়ার্কের মতে, লেবুর রসে রয়েছে অ্যান্টিসেপটিক, যেটা খুব সহজেই মাথার চুলকানি সমস্যা দূর করতে পারে। প্রথমে ৫-১০ মিনিটের জন্যে কিছুটা লেবুর রস ছিটিয়ে নিন মাথার ওপর। এরপর সেটাকে ধুযে ফেলুন পানি দিয়ে। কিছুদিন পরপর এ জিনিসটি করুন বাসায়। মাথার চুলকানি তো কমবেই, চুলও হবে স্বাস্থ্যজ্জ্বল।

২. বেকিং সোডা

বেকিং সোডাকে পেস্ট করে নিয়ে সেটা মাথায় মাখুন আর রেখে দিন ১০- ১৫ মিনিট। সোডার আলকালাইন আপনার মাথার খুশকির কারণে তৈরি হওয়া চুলকানিকে সারিয়ে দেবে একেবারেই।

৩. অ্যাপল সাইডার ভিনেগার

ব্ল্যাক গার্ল লং হেয়ার বা বিএলজিএইচ এর মতে, অ্যাপল সাইডার ভিনেগার চুলের পিএইচকে ঠিকঠাক রাখে এবং এর ব্যাকটেরিয়া দূর করবার ক্ষমতা সারিয়ে তোলে মাথার চুলকানি। তবে কতটা ব্যবহার করবেন সেটা নিজের আরামের ওপর নির্ভর করে ঠিক করতে হবে আপনাকে। সবচাইতে ভালো হয় অপরিশোধিত অর্গানিক অ্যাপল সাইডার ভিনেগার ব্যবহার করলে।

৪. নারিকেল তেল

নারিকেল তেলের ভেতরে রয়েছে অ্যাপ্রিলিকা অ্যাসিড যেটা শরীরে ফাঙ্গাসের জন্ম নিতে বাধা প্রদান করে। এটি অযাচিত ইস্টকে শরীর থেকে দুরকে চুলকানি ভাব কমিয়ে দেয়। আর তাই বিএলচিএইচের মতে খুশকির চুলকানি দূর করতে নারিকেল তেলও বেশ বড় ভূমিকা রাখতে পারে।
৫. চা গাছের তেল

চা গাছের তেলে রয়েছে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া এবং ফাঙ্গাস প্রতিরোধের শক্তি। মাথায় যে ব্যাপারগুলোর কারণে চুলকানির পরিমাণ বেড়ে যায় সেগুলোর প্রত্যেকটিকে তাই দূর করে দিতে পারে এটি খুব সহজেই আর ফিরিয়ে আনতে পারে সুস্থ চুল আর মাথা।

৬. মাস্ক তৈরি করুন

খুশকির চুলকানি থেকে মুক্তি পেতে তৈরি করে ফেলুন অত্যন্ত কার্যকরী এই মাস্কটি আর ব্যবহার করুন মাথায়। মাস্কটি তৈরি করতে-

একটি পাকা কলা মধুর সাথে চটকে নিয়ে তাতে খানিকটা পেয়াজের রস মেশান। এরপর সেটাকে মাথায় লাগিয়ে বিশ মিনিটের জন্যে রেখে দিন। এরপর সেটাকে শ্যাম্পু করে পরিষ্কার করে নিন।

৭. গরম তেল

খুশকির চুলকানি থেকে মুক্তি পেতে জলপাই তের নিন। এরপর সেটাকে হালকা গরম করে নিয়ে তাতে মধু মেশান। মিশ্রণটিকে মাথায় নরম করে ঘষে ঘষে লাগিয়ে নিন। আপনার মাথার চুলকানিভাব কিছুটা হলেও কমে যাবে।

৮. সাধারন সতর্কতা

সাধারন কিছু সতর্কতা সবসময়েই মেনে চলতে হবে আপনাকে খুশকি ও এর চুলকানির হাত থেকে মুক্তি পেতে হলে। কিছুদিন পরপরই শ্যাম্পু বদল করুন। কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। ভেজা চুল কখনোই শক্তভাবে বাঁধবেন না। প্রতিদিন নিয়ম করে চুল আঁচড়াবেন। অতিরিক্ত রোদ থেকে চুলকে বাঁচিয়ে চলাটাই ভালো। তবে রোদে বেরোলে চেষ্টা করবেন মাথার ওপরে ছায়া রাখার। এছাড়াও অ্যালকোহল বা চুলের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে এমন খাদ্যাভ্যাস থেকে দূরে থাকুন।
Shirin Sultana
Lecturer (Mathematics)
Dept. of General Educational Development (GED)
Daffodil International university