যে কারণে খাওয়া উচিৎ জলপাই

Author Topic: যে কারণে খাওয়া উচিৎ জলপাই  (Read 364 times)

Offline Anuz

  • Faculty
  • Hero Member
  • *
  • Posts: 1987
  • জীবনে আনন্দের সময় বড় কম, তাই সুযোগ পেলেই আনন্দ কর
    • View Profile
জলপাই তেল বা অলিভ অয়েলের উপকারিতার কথা আমরা কম বেশি সবাই জানি। কিন্তু আস্ত ফলটি খাওয়াও যে অনেক বেশি উপকারী হতে পারে তা হয়তো অনেকেই জানেন না। হ্যাঁ, জলপাই একটি ফল যদিও অনেকেই একে সবজি মনে করেন। এই ছোট্ট টক স্বাদের ফলটি রোজ খাওয়া উচিৎ কেন সে বিষয়েই জানবো আজ।
১। কার্ডিওভাস্কুলার উপকারিতা
যখন ফ্রি র‍্যাডিকেল কোলেস্টেরলকে জারিত করে, রক্তনালী ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ধমনীতে চর্বি জমে তখনই হার্ট অ্যাটাক হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। জলপাইয়ের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কোলেস্টেরলের জারণকে ব্যহত করে, ফলে হৃদরোগ প্রতিরোধ করে। জলপাইতেও ফ্যাট থাকে কিন্তু এই ফ্যাট স্বাস্থ্যকর মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট যা এথেরোস্ক্লেরোসিসের ঝুঁকি কমায় এবং ভালো কোলেস্টেরলের মাত্রা বৃদ্ধি করে। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখানো হয়েছে যে, জলপাই ও জলপাইয়ের তেলে যে মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে তা ব্লাড প্রেশার কমতে সাহায্য করে। জলপাইয়ে যে অলিক এসিড থাকে তা শরীরে শোষিত হয় এবং কোষ ঝিল্লির গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন হয় এবং এর ফলেই ব্লাড প্রেশার কমে।
২। ওজন কমায়
জলপাইয়ে যে মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট পাওয়া যায় তা ওজন কমতে সাহায্য করে। অলিভ অয়েল গ্রহণ করলে কোষের ভেতরের ফ্যাট ভেঙ্গে যায় এবং পেটের মেদ কমে। যারা বেশি করে জলপাই খান তাদের মোটা হতে কমই দেখা যায়। রক্ত পরীক্ষার মাধ্যমে দেখা গেছে যে, তাদের রক্তে উচ্চমাত্রার সেরোটোনিন থাকে। এই হরমোনটি পেট ভরা থাকার অনুভূতি দেয় এবং তৃপ্তি দেয়।
৩। ক্যান্সার প্রতিরোধ করে
জলপাইয়ের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফ্লামেটরি উপাদান ক্যান্সারের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয়। কারণ ক্রনিক অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এবং ক্রনিক ইনফ্লামেশনই ক্যান্সার হওয়ার প্রধান কারণ। ক্রনিক অক্সিডেটিভ স্ট্রেস এবং ক্রনিক ইনফ্লামেশন এর ভয়ানক সমন্বয়ের হাত থেকে সুরক্ষা দিতে পারে  জলপাই। জলপাই এ ভিটামিন ই থাকে যা ফ্রি র‍্যাডিকেলকে নিষ্ক্রিয় করে দেয়। ভিটামিন ই কোষীয় প্রক্রিয়াকে নিরাপদ রাখে।
৪। ব্যথা কমায়
জলপাইয়ের ভিন্ন ধরণের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিইনফ্লামেটরি পুষ্টি উপাদান প্রাকৃতিক ব্যথানাশক হিসেবে কাজ করে। তাই জলপাই ব্যথা কমতে সাহায্য করে।
৫। ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখে
জলপাই ফ্যাটি এসিডে সমৃদ্ধ থাকে যা ত্বক ও চুলকে পুষ্টি সরবরাহ করে, হাইড্রেটেড রাখে এবং সুরক্ষা দেয়। জলপাইয়ের ভিটামিন ই সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে ত্বককে সুরক্ষা দেয় এবং প্রিম্যাচিউর এজিং হওয়া প্রতিরোধ করে।
৬। অ্যালার্জি কমায়
জলপাইয়ের রস কোষে অ্যান্টিহিস্টামিন হিসেবে কাজ করে। হিস্টামিন এমন একটি অণু যা অ্যালার্জি সংক্রান্ত পরিবেশে অধিক উৎপন্ন হয়। এটি ইনফ্লামেটরি প্রক্রিয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। জলপাইয়ের অ্যান্টিইনফ্লামেটরি উপকারিতা অ্যান্টিহিস্টামিন হিসেবে কাজ করে। জলপাই খেলে সংবহনতন্ত্রের উন্নতি হয় এবং শ্বসন প্রক্রিয়ার ও উন্নতি ঘটে।

এছাড়াও জলপাই পরিপাকের উন্নতি ঘটায়, আয়রনের চমৎকার উৎস, ভিটামিন এ তে সমৃদ্ধ বলে চোখের জন্য ভালো, রক্তে গ্লুটাথায়নের মাত্রা বৃদ্ধি করে।
Anuz Kumar Chakrabarty
Assistant Professor
Department of General Educational Development
Faculty of Science and Information Technology
Daffodil International University