আপনার সন্তানের সাথে করা উচিৎ নয়

Author Topic: আপনার সন্তানের সাথে করা উচিৎ নয়  (Read 742 times)

Offline Md. Zakaria Khan

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 333
  • active
    • View Profile
১০ জিনিস যেটা কখনোই আপনার সন্তানের সাথে করা উচিৎ নয়
১.চিল্লাচিল্লি করা
অনেকে বলেন যে এটি শারিরীক ভাবে আঘাত করার চাইতেও ক্ষতিকর কারণ এটি অন্তরে একটা দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতের সৃষ্টি করে।রাসুলুল্লাহ (সাঃ) কখনোই কোন বাচ্চার সাথে জোরে কথা বলেন নি এমনকি কোন নারী,কোন বন্ধু বা কারো সাথেই এমনটি করেন নি।
২.দোষ দেওয়া
এটি সম্পর্কের গভীরতা কমিয়ে দেয়,আত্মমর্যাদা কমিয়ে দেয় এবং বাচ্চাকে এমন এক জায়গায় নিয়ে যায় যখন বাচ্চা দোষ করুক বা না করুক নিজেকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করে
আনাস ইবন মালিক(রাঃ) যখন ১০ বছর বয়স তখন বলেন"আমি ৯ বছর রাসুলুল্লাহ (সাঃ) এর খেদমত করেছি।আমি কিছু করলে রাসুলুল্লাহ (সাঃ) কখনোই বলেন নি আমি কেন এটা করেছি বা কিছু না করলে কখনোই এটা বলেন নি যে আমি কেন এটা করলাম না"
৩.অনবরত আদেশঃ
বাচ্চাকে প্রথমে না বুঝিয়ে আদেশ এবং দিকনির্দেশনা দিলে তা তাঁকে রোবটে পরিণত করে বাড়ন্ত বয়সে যেটা স্বাস্থ্যের জন্য  মোটেও ভাল নয় তাঁরা সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই না করে অন্ধ অনুকরণ করে
৪.ভীতিপ্রদর্শন
বাচ্ছাদের ভয় প্রদর্শন করা হয় কারণ কোনকিছুতে বাধা দেওয়ার জন্য এটি একটি সহজ উপায় তবে এটি দীর্ঘস্থায়ী কোন সমাধান নয়।যে কোন আচরণ যেটা ভয়ের কারণে পরিবর্তিত হয় সেই পরিবর্তন  দীর্ঘস্থায়ী হয় না।
৫.বিদ্রুপ করা
বাচ্চাদের নিয়ে হাসিতামাশা করা ইসলামের গ্রহনযোগ্য নয়।
Surah Al-Hujraat, Verse 11:
মুমিনগণ, কেউ যেন অপর কাউকে উপহাস না করে।
বাচ্চাদের নিয়ে হাসিতামাশা করলে এটা তাঁদের আত্মমর্যাদায় আঘাত করে।
৬.অভিশাপ দেওয়াঃ
বাচ্চাদের অভিশাপ দিলে তাঁরা অভিশাপ দেওয়া শিখে এবং তাঁরা অন্যান্যদের অভিশাপ দেয় এমনকি তাঁদের আত্মীয়স্বজন,বন্ধু এবং মা বাবাকেও অভিশাপ দেয়।
হাদিসে এসেছে:মুমিন কখনোই কুৎসারটনাকারী নয় ,অভিসম্পাতকারীও নয়,কর্কশআচরনকারী নয়,নোংরা শব্দ/কথা ব্যবহারকারীও নয়।
৭.তুলনা করাঃ
আপনার সন্তানদের কারও সাথে তুলনা করবেন না বিশেষ করে আপনার অন্যান্য সন্তানদের সাথে।তুলনা করা শুধু হিংসা এবং ক্রোধের সৃষ্টি করে।
৮.অনবরত উপদেশ দেওয়াঃ
একটি বাচ্চার মনোযোগ প্রতি বছর ৩ থেকে ৫ মিনিট করে বৃদ্ধি পায় এবং ২ বছরের একটি বাচ্চা নূন্যতম ৬ মিনিট মনোযোগ ধরে রাখতে পারে এবং সদ্য ভর্তি কিন্ডারগার্টেনের একজন বাচ্চা ১৫ মিনিট মনোযোগ ধরে রাখতে পারে।
হাদিসে এসেছেঃ
রাসুলুল্লাহ (সাঃ) দিনের বেলা আমাদের শিক্ষা দিতেন এবং তিনি ভয় করতেন যে আমরা বিরক্ত হয়ে যেতে পারি।
৯.অবিশ্বাস করাঃ
বাচ্চাদের দ্বিধার সুবিধা না দিলে এটা নিজেদের মধ্যে বিশ্বাসে ফাটল ধরায়, মনখোলে কথা বলা বন্ধ করে দেয় এবং আত্মবিশ্বাসেও ঘাটতি দেখা দেয়।
১০.সংঘাতঃ
বেশীরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় বাবা মায়েরা ভালভাবে বাচ্চাদের আচরনগত শিক্ষা না দিয়ে নিজেদের রাগ প্রকাশ করেন।এটা আসলে ব্যথানাশক এর মত কাজ করে তবে এটা হলো সাময়িক সময়ের সমাধান কোন দীর্ঘস্থায়ী সমাধান নয়।এটা আসলে একটা কাপুরুষোচিত ব্যাক্তিত্ব  তৈরী করে কেউ যদি কিছু না দেখে তাহলে সে ঐ  খারাপ কাজ করতেই থাকবে।
হিসাম আল আওয়াদী children around the prophet বই এর লেখক How Muhammad(s) raised the young companions
-collected