রস নয়, খেতে হবে আস্ত ফল

Author Topic: রস নয়, খেতে হবে আস্ত ফল  (Read 266 times)

Offline Sahadat Hossain

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 356
  • Test
    • View Profile
রস নয়, খেতে হবে আস্ত ফল
« on: June 21, 2021, 11:44:43 AM »
দেশে এখন ফলের মৌসুম। বাজারে মৌসুমি ফলের সমাহার। দেশীয় মৌসুমি ফল খেতে যেমন সুস্বাদু, তেমনি স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং ভিটামিন, মিনারেলের চাহিদা পূরণে মৌসুমি ফল খেতে বলা হয়। নিয়মিত তাজা ফলমূল খেলে ভিটামিনের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি রোগের ঝুঁকিও কমে।

অবশ্য অনেকেই প্রচণ্ড গরমে ফলের রস খেতে পছন্দ করেন। কেউ কেউ আম বা অন্য ফলে আঁশ থাকে বলে তা রস করে খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু ফল রস করে খাওয়ার চেয়ে আস্ত ফল খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী।

ফল খাওয়ার উপকারিতা
● ফলে বিদ্যামান আঁশ রক্তের কোলেস্টেরল, টাইপ টু ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে।

● উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোক, হৃদ্‌রোগের ঝুঁকি কমায়।

● ফলের আঁশ ধীরে ধীরে হজম হওয়ায় দীর্ঘ সময় পেটে থাকে। ফলে ক্ষুধা কম লাগে, ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে।

● কোষ্ঠকাঠিন্য কমায়।

● রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

ফল রস করে খেলে যা হয়
● ফলের রস বানানোর সময় ফল থেকে উপকারী আঁশ সরিয়ে ফেলা হয়। এই পদ্ধতিতে প্রায় ৯০ শতাংশ অদ্রবণীয় আঁশ ফেলে দেওয়া হয়, কেবল কিছু দ্রবণীয় আঁশ রসে থেকে যায়। যার কারণে ফল খেলে যে উপকার পাওয়া যায়, রসে তা পাওয়া যায় না। এ ছাড়া ফলের আঁশ আমাদের অন্ত্রের উপকারী ব্যাকটেরিয়ার মাধ্যমে হজম হয়ে শর্ট চেইন ফ্যাটি অ্যাসিড তৈরি করে, যা খারাপ ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে বাধা দেয় এবং খনিজ লবণ শোষণে সাহায্য করে। ফলের রস খেলে শরীরে শর্ট চেইন ফ্যাটি অ্যাসিড তৈরি হয় না।

● ফলের রস বানানোর সময় শুধু আঁশই নষ্ট হয় না, আঁশের সঙ্গে যুক্ত অ্যান্টি–অক্সিডেন্টসহ সব পুষ্টি উপাদানও নষ্ট হয়। এ কারণে পুষ্টিমান কমে যায়। অ্যান্টি–অক্সিডেন্ট না থাকায় ফলের রস রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে না।

● রস করার সময় ফলের আঁশের সঙ্গে যুক্ত পলিফেনল নামের ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট নষ্ট হয়ে যায়। পলিফেনল মানবদেহে মস্তিষ্কের কোষের জন্য খুব জরুরি। এ ছাড়া পলিফেনলস রক্তনালিকে নমনীয় করে। এতে রক্তপ্রবাহ স্বাভাবিক ও রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

● ফলের রস করার সময় এতে পানি যোগ করা হয় এবং স্বাদ বাড়াতে মাঝেমধ্যে চিনিও দেওয়া হয়। চিনি যোগ করার কারণে ক্যালরি অতিরিক্ত বেড়ে যায়। ফলে ওজন ও ব্লাড সুগার খুব দ্রুত বাড়ে। ফলের রস খেতে চাইলে পাল্পসহ স্মুদি করে খাওয়াই ভালো। তবে এতে চিনি দেওয়া যাবে না।

Ref: https://www.prothomalo.com/life/health/%E0%A6%B0%E0%A6%B8-%E0%A6%A8%E0%A7%9F-%E0%A6%96%E0%A7%87%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%B9%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%A4-%E0%A6%AB%E0%A6%B2
Md.Sahadat Hossain
Asst. Administrative Officer
Office of the Director Administration
Daffodil Tower(DT)- 4
102/1, Shukrabad, Mirpur Road, Dhanmondi.
Email: da-office@daffodilvarsity.edu.bd
Cell & WhatsApp: 01847027549