‘হার্টল্যান্ড ভাইরাস এক ছোঁয়ায় মৃত্যু! নতুন আতঙ্ক

Author Topic: ‘হার্টল্যান্ড ভাইরাস এক ছোঁয়ায় মৃত্যু! নতুন আতঙ্ক  (Read 170 times)

Offline Mrs.Anjuara Khanom

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 425
  • Test
    • View Profile
মারণ ভাইরাস করোনা বুঝিয়ে দিয়েছে কী ভাবে মুহূর্তে শেষ হয়ে যায় জনজীবন এক ভাইরাসের কবলে। কী ভাবে মৃত্যুমিছিল জীবনকে নিয়ন্ত্রণ করে গোটা বিশ্বজুড়ে। এরইমধ্যে গোটা বিশ্বে গত সপ্তাহের তুলনায় এই সপ্তাহে একলাফে ৮ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে সংক্রমণ। নতুন করে করোনার এই রক্তচক্ষুর মধ্যেই ভয় দেখাচ্ছে আরেক নতুন ভাইরাস।

ভাইরাসটির নাম হার্টল্যান্ড ভাইরাস। ২০০৯ সালে প্রথমবার আমেরিকার মিসৌরিতে এর দেখা মিলেছিল। নতুন করে এবার জর্জিয়ায় দেখা মিলল এই ভাইরাসের। শুধু জর্জিয়া নয়, বেশ কয়েকটি স্টেট থেকেই আসছে এই নতুন ভাইরাস আতঙ্ক।

গবেষকরা জানাচ্ছেন, ছারপোকা জাতীয় পোকাদের শরীরে আশ্রয় নেয় হার্টল্যান্ড ভাইরাস। তারপর সেখান থেকে ছড়িয়ে পড়ে মানুষের দেহে। গবেষকরা জানিয়েছেন, এক দশক আগে জর্জিয়ায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয় এই ভাইরাসের ধাক্কায়। এবার গবেষকরা জানাচ্ছেন, নতুন করে ভাইরাসটির ছড়িয়ে পড়ার ব্যাপারে তারা হদিশ পেয়েছেন। তাই তাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। তাই এই মুহূর্তে তাঁরা খতিয়ে দেখছেন বিষয়টি।

‘লোনস্টার টিকস’ নামের ছারপোকা জাতীয় পোকা থেকেই ছড়ায় এই ভাইরাস। আপাতত কেবলমাত্র এই তথ্য মিলেছে। এটি মানুষকে কামড়ালে তার শরীর থেকে ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ে। যতদূর জানা যাচ্ছে, বয়স্কদের জন্য় এই ভাইরাস অত্যন্ত বেশি মারাত্বক হতে পারে।

হার্টল্যান্ড ভাইরাসের কী লক্ষণ: হার্টল্যান্ড ভাইরাসের সংক্রমণের লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে জ্বর, ক্লান্তি, ক্ষুধা হ্রাস, মাথাব্যথা, ডায়রিয়া এবং পেশি বা জয়েন্টে ব্যথা। এছাড়াও আক্রান্ত ব্যক্তির প্লেটলেট কমে যাওয়া কিংবা যকৃতের ক্ষতি হতেও দেখা গিয়েছে।

সাধারণ ভাবে সংক্রমণের লক্ষণগুলি আক্রান্ত হওয়ার ২ সপ্তাহের মধ্যে দেখা দিতে পারে। এদিকে এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাসের সংক্রমণকে প্রতিহত করার মতো কোনও ওষুধ নেই। তবে জ্বর ও ব্যথা কমানোর সাধারণ ওষুধগুলিকে কার্যকর হতে দেখা গিয়েছে।

যদিও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষকে সংক্রমিত করার খুব বেশি ক্ষমতা এদের নেই। কিন্তু একবার আক্রান্ত হলে যদি তা গুরুতর পরিস্থিতিতে পৌঁছয় তাহলে বাড়বে উদ্বেগ। গবেষকরা তাই নতুন করে খতিয়ে দেখতে চাইছেন কতজন মানুষ এর মধ্যেই ওই ভাইরাসের সংস্পর্শে এসেছেন। কোন ধরনের পরিবেশে এই ভাইরাস দ্রুত ছড়ায় ইত্যাদি নিয়েও চলছে গবেষণা। সূত্র: নিউজ ১৮।

Mrs, Anjuara Khanom
Assistant Officer, Information Desk
Daffodil International University
Main Campus
9138234-5