আই.বি.এস কি কোন মানসিক সমস্যা? Irritable bowel syndrome (IBS)

Author Topic: আই.বি.এস কি কোন মানসিক সমস্যা? Irritable bowel syndrome (IBS)  (Read 1806 times)

Offline Abu Tareque

  • Newbie
  • *
  • Posts: 18
    • View Profile
আই.বি.এস কি কোন মানসিক সমস্যা?

                           

IBS কি?
ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোম (IBS) হজম জনিত একটি সাধারণ এবং দীর্ঘমেয়াদী  ডিসঅর্ডার যাকে বিভিন্ন মাত্রার পুনরাবৃত্ত পেটে ব্যথা এবং পেট ফাঁপা, ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য এবং গ্যাসে সমস্যা  ইত্যাদি উপসর্গ দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। মানসিক চাপের সময় বা নির্দিষ্ট খাবার খাওয়ার পরে লক্ষণগুলি আরও খারাপ হতে পারে। এই অবস্থা প্রায় আজীবন থাকে।  যদিও সময়ের সাথে সাথে লক্ষণগুলি পরিবর্তিত হতে পারে। তবে IBS আপনার শারীরিক স্বাস্থ্যের জন্য গুরুতর হুমকি সৃষ্টি করে না এবং ক্যান্সার বা অন্যান্য অন্ত্র-সম্পর্কিত রোগ বিকাশের সম্ভাবনা বৃদ্ধি করেনা। IBS এর ক্ষেত্রে আধুনিক চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ জীবনযাপন করা সম্ভব। 

IBS এর লক্ষণ
1. বার বার পায়খানা হয়। খাবার খাওয়ার পর পেটে  অস্বস্থি দেখা দেয়, সাথে সাথে টয়লেটে যাওয়ার প্রয়োজন পরে।
2. পেট ব্যথা, যা টয়লেট করার মাধ্যমে উপশম হতে পারে।
3. পায়খানার ধরণে পরিবর্তন দেখা যায়।  যেমন: ডায়রিয়া/ কোষ্ঠকাঠিন্য।
4. অত্যধিক গ্যাসে  পেট ফুলে যায়।
এছাড়াও আরো কিছু লক্ষণ থাকতে পারে। যেমন:
1. শারীরিক দুর্বলতা/অলসতা
2. অসুস্থ অনুভব করা
3. বুকজ্বালা
4. খাবার অরুচি
আপনার যদি এসব লক্ষণের ২ টি বার তার অধিক লক্ষণ থাকে তাহলে একজন ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে পারেন।  বিভিন্ন কারণে এই লক্ষণগুলো  প্রকাশ পেতে পারে তাই আপনার  IBS  আছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য  অবশ্যই এর সঠিক ডায়াগনসিস করতে হবে। 

IBS এর কারণসমূহ
নিউইয়র্ক এর স্টেট ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক এডওয়ার্ড ব্লানচার্ড বলেছেন ৬০%  IBS রোগী এক বা একাধিক মানসিক রোগের মানদণ্ড পূরণ করে । আগে IBS এর লক্ষণ প্রকাশ পায়, তারপর কি মানসিক চাপ তৈরী হয়? নাকি মানসিক চাপের ফলে IBS এর লক্ষণ প্রকাশ পায়? কোনটি প্রথমে আসে তা স্পষ্ট নয়। তবে এক গবেষণায়  দেখা যায় যে তারা একসাথে ঘটতে পারে।  ব্লানচার্ড বলেছেন, যাদের IBS আছে তাদের মধ্যে Generalized Anxiety Disorder বা GAD এর লক্ষণ থাকা খুব সাধারণ বেপার ।  তিনি মনে করেন যে IBS রোগীদের মধ্যে ৬০% এর বেশি মানুষ GAD তে আক্রান্ত। অন্য ২০% এর বিষন্নতা থাকে , এবং বাকিদের  অন্যান্য মানসিক রোগ থাকতে পারে। উদ্বেগ জনিত মানসিক রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিরা সাধারণত স্বাস্থ্য, অর্থ বা  ক্যারিয়ারের মতো বিষয়গুলো  নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত থাকে। এর ফলে তাদের পেট খারাপ, কাঁপুনি, পেশীতে ব্যথা, অনিদ্রা, মাথা ঘোরা, বিরক্তি সহ অন্যান্য উপসর্গ দেখা দিতে পারে। তবে এখনো  IBS এর সঠিক কারণ জানা যায়নি। যেসব কারণ  IBS এর লক্ষণ সৃষ্টিতে ভূমিকা পালন করে বলে মনে করা হয় তার মধ্যে রয়েছে:
অন্ত্রের (intestine)পেশী সংকোচন: অন্ত্রের দেয়াল পেশীর সংকোচন  প্রসারণের মাধ্যমে খাবার সরানোর কাজ করে।  যে সংকোচনগুলো  শক্তিশালী এবং স্বাভাবিকের চেয়ে দীর্ঘস্থায়ী, তা গ্যাস, পেট ফোলাভাব এবং ডায়রিয়ার কারণ হতে পারে। দুর্বল সংকোচন খাদ্য পথের গতি কমিয়ে দিতে পারে  ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে।
স্নায়ুতন্ত্র: পাচনতন্ত্রের স্নায়বিক  সমস্যা আপনার অস্বস্তির কারণ হতে পারে। এই সমস্যা  বেড়ে যায় যখন আপনার পেট গ্যাস বা মল দ্বারা  ফুলেফেঁপে থাকে।  আবার মস্তিষ্ক এবং অন্ত্রের মধ্যে  দুর্বল সমন্বিত সংকেতের ফলে  আপনার শরীর হজম প্রক্রিয়ায় প্রতি অতিরিক্ত প্রতিক্রিয়া দেখায় । এর ফলে পেটে ব্যথা, ডায়রিয়া বা কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে।
মারাত্মক সংক্রমণ: ব্যাকটেরিয়া বা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত গুরুতর ডায়রিয়ার পরে  IBS বিকাশ করতে পারে। একে গ্যাস্ট্রোএন্টেরাইটিস (gastroenteritis)বলে।  আবার অন্ত্রে অতিরিক্ত ব্যাকটেরিয়ার ফলেও IBS হতে পারে।
প্রারম্ভিক জীবনের চাপ: যেসব ব্যক্তি জীবনে অতিরিক্ত চাপ মোকাবেলা করেছে বিশেষ করে যাদের শৈশবকালে তিব্র পীড়নমুলুক কোন ঘটনার অভিজ্ঞতা আছে তাদের মধ্যে  আইবিএসের বেশি উপসর্গ বেশি দেখা যায় ।

IBS এর সাথে স্ট্রেস এবং উদ্বেগের সম্পর্ক
IBS এর সাথে স্ট্রেস এবং উদ্বেগের সম্পর্ক বিভিন্ন তত্ত্ব দিয়ে ব্যাখ্যা করা যায়।  নিচে তত্ত্বগুলোর সারকথা সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো :
1. উদ্বেগের মতো মনস্তাত্ত্বিক সমস্যাগুলো হজমের ব্যাধি সৃষ্টি করে না, তবে আইবিএস আক্রান্ত ব্যক্তিরা মানসিক সমস্যাগুলোর প্রতি বেশি সংবেদনশীল হয়ে থাকে ।
2. স্ট্রেস, উদ্বেগ এবং বিষন্নতার মতো শক্তিশালী আবেগগুলো মস্তিষ্কে রাসায়নিক  পদার্থগুলিকে ট্রিগার করে যা আপনার পেটে  ব্যথার সংকেত চালু করে ফলে আপনার কোলনে  প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।
3. স্ট্রেস এবং উদ্বেগ বিভিন্ন শারীরিক প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে মনকে আরও উদ্বিগ্ন করে তুলতে পারে।
4. মানসিক চাপ দ্বারা প্রভাবিত হয়ে ইমিউন সিস্টেম দ্বারা IBS  ট্রিগার হতে পারে।

IBS এর লক্ষণগুলি বৃদ্ধি পায়
খাদ্য
আইবিএসএর ক্ষেত্রে খাদ্য অ্যালার্জির ভূমিকা সম্পূর্ণরূপে বোঝা যায় না। খাদ্য অ্যালার্জি খুব কমই IBS এর লক্ষণগুলি বৃদ্ধি করে। কিন্তু অনেক রোগীর ক্ষেত্রে IBS এর লক্ষণগুলি আরও খারাপ হয় যখন তারা নির্দিষ্ট  কিছু খাবার খায় বা পানীয় পান করে। এর মধ্যে রয়েছে গমের আটা, দুধ/দুগ্ধজাত পণ্য, লেবু জাতীয় ফল, মটরশুটি, বাঁধাকপি এবং কার্বনেটেড পানীয়।
মানসিক চাপ
অতিরিক্ত মানসিক চাপের সময় IBS-এ আক্রান্ত ব্যক্তি  IBS এর লক্ষণগুলি আরো বেশি অনুভব করে।  স্ট্রেস/মানসিক চাপ লক্ষণগুলির কারণ নয় তবে স্ট্রেস/মানসিক চাপ লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ করে তুলতে পারে।

IBS এর চিকিৎসা
আপনার মধ্যে IBS এর লক্ষণ থাকলে প্রপার ডায়াগনোসিসের জন্য প্রথমে কোন ডাক্তারের পরামর্শ অনুসারে প্রয়োজনীয় টেস্ট করতে পারেন। তিনি আপনাকে আপনার রোগের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপত্র প্রদান করবেন। যেহেতু উদ্বেগ(Anxiety), বিষন্নতা (Depression) এবং মানসিক চাপ (Stress) IBS এর লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ করে তুলতে পারে তাই একজন পেশাদার সাইকোলজিস্টের সেবা গ্রহণ করতে পারেন। একজন সাইকোথেরাপিস্ট আপনাকে বুঝতে সাহায্য করতে পারেন যে কীভাবে চিন্তা এবং মানসিক চাপ আইবিএস লক্ষণগুলিকে আরও খারাপ করে তোলে এবং আপনার শরীলের উপর প্রভাব বিস্তার করে।   তারা আপনাকে শেখাতে পারেন যে কিভাবে এই চক্র ভাঙতে হয়। যেসব জিনিস আপনার IBS এর উপসর্গ বৃদ্ধি করে সেগুলো মোকাবেলার কৌশল  এবং চ্যালেঞ্জিং পরিস্থিতি কিভাবে আরও ভালভাবে মোকাবেলা করা যায় তার উপায়গুলি খুঁজে বের করতে এবং আপনাকে দক্ষ হয়ে উঠতে সহায়তা করতে পারে। যেসব সাইকোথেরাপি আইবিএসের চিকিৎসা  জন্য সহায়ক হতে পারে তার মধ্যে রয়েছে:
১।  কগনিটিভ বিহেভিয়ার থেরাপি (CBT ): এটি এক ধরনের মনোবৈজ্ঞানিক চিকিৎসা পদ্ধতি। CBT আপনাকে আপনার চিন্তাভাবনা এবং IBS এর উপসর্গের ট্রিগারগুলিকে  চিনতে সাহায্য করবে। চিন্তা পরিবর্তনের মাধ্যমে কিভাবে ট্রিগারগুলিকে  পরিবর্তন করতে হয় তা শিখতে CBT খুব সহায়ক। 
২। সাইকোডাইনামিক থেরাপি: আবেগ কিভাবে IBS এর লক্ষণগুলিকে প্রভাবিত করে তা এই থেরাপির মাধ্যমে সহজে বুঝা যায় । এই থেরাপিতে থেরাপিস্ট সাধারণত relaxation techniques and stress management এর  উপর ফোকাস করেন।
৩। শিথিলকরণ প্রশিক্ষণ (Relaxation Training): আপনার স্নায়ুতন্ত্রকে শান্ত করার এবং আপনার চাপের মাত্রা কমানোর অনেক উপায় রয়েছে। এমন একটি পদ্ধতি হল Progressive Muscle Relaxation। এটির সাহায্যে, আপনি আপনার শরীরের বিভিন্ন পেশী শক্ত করার পর কিভাবে শান্ত করতে হয় তা শিখতে পারেন। পরে মানসিক চাপের সময় আপনি নিজেকে শান্ত করার কৌশলটি ব্যবহার করতে পারেন ।
৪। বায়োফিডব্যাক: বায়োফিডব্যাকের মাধ্যমে আপনি  আপনার অন্ত্র নিয়ন্ত্রণকারী পেশীগুলি নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষমতা অর্জন করতে পারেন।

IBS এর  চিকিৎসার জন্য কখন  আপনি  সাইকোলজিক্যাল সেবা গ্রহণ করবেন ?
আপনি যদি IBS  এর  কিছু লক্ষণ নিয়ে  চিন্তিত থাকেন তবে একজন  ডাক্তারের সাথে কথা বলুন। আপনি আপনার কোষ্ঠকাঠিন্য বা ডায়রিয়ার জন্য সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছেন কিনা তা নিচিত করুন ।  তারপর ডাক্তারের সাথে আলোচনা করে জেনে নিতে পারেন যে মানসিক চাপ মোকাবিলা করার জন্য আপনার সাইকোলজিক্যাল কাউন্সেলিং দরকার কিনা। ব্লানচার্ড  এর মতে ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোমে আক্রান্ত ব্যক্তিদের  প্রাথমিক পর্যায়ে একজন ডাক্তারের কাছে  চিকিৎসা শুরু করা প্রয়োজন এবং তার কাছেই চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া প্রয়োজন" । "তাদের শুধুমাত্র মাত্র তখনি সাইকোলজিক্যাল কাউন্সেলিং এর জন্য একজন সাইকোলজিস্ট এর কাছে যাওয়া প্রয়োজন যখন ডাক্তারের চিকিৎসায় রোগের কোন সিগনিফিকেন্ট পরিবর্তন পরিলক্ষিত না হয় তখন"। ব্লানচার্ড বলেছেন যে আইবিএস-এ আক্রান্ত দুই-তৃতীয়াংশ মানুষ খাদ্য ও ওষুধের পরিবর্তনের মাধ্যমে ভালো হয়ে যায়। বাকিদের যাদের আরও গুরুতর উপসর্গ  আছে তারা  সাইকোলজিক্যাল কাউন্সেলিং এর  সাহায্য থেকে উপকৃত হতে পারেন । তিনি আরো বলেন "এটি ছাড়া, তারা যে সমস্যার মধ্যে রয়েছে তা থেকে বেরিয়ে আসতে পারবেন বলে মনে হয় না" ।

নিজের করণীয় কাজ।
1. আপনি এমন  কিছু করতে পারেন যা আপনার মানসিক চাপ এবং চিন্তা  কমাতে সাহায্য করতে পারে। যেমন: বন্ধুর সাথে কথা বলা, পড়া, গান শোনা বা কেনাকাটা করা ইত্যাদি ।
2. প্রতিদিন একই সময় ব্যায়াম করতে পারেন । যেমন: হাঁটা, দৌড়ানো, সাঁতার কাটা এবং অন্যান্য শারীরিক ক্রিয়াকলাপ।  এই ব্যায়ামগুলি মানসিক চাপ এবং বিষন্নতা কমাতেসহায়ক ভূমিকা পালন করে। আবার, এই ব্যায়ামগুলি অন্ত্রের স্বাভাবিক সংকোচনের ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
4. মাইন্ডফুলনেস এবং  রিলাক্সেশন ব্যায়াম। গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের শিথিলকরণ ব্যায়াম আপনাকে শান্ত করতে সাহায্য করতে পারে।
5. প্রতিদিন পর্যাপ্ত ঘুম নিশ্চিত করতে পারেন।


লেখক: আবু তারেক, সাইকোলজিস্ট, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।
« Last Edit: November 09, 2022, 09:31:17 AM by Abu Tareque »
Psychologist