Daffodil International University

Health Tips => Health Tips => Coronavirus - করোনা ভাইরাস => Topic started by: Badshah Mamun on March 22, 2020, 04:03:35 PM

Title: করোনাভাইরাস : বাড়িতে থেকে অফিসের কাজ করবেন কীভাবে?
Post by: Badshah Mamun on March 22, 2020, 04:03:35 PM
করোনাভাইরাস : বাড়িতে থেকে অফিসের কাজ করবেন কীভাবে?

(http://www.dainikamadershomoy.com/files/thumbs/daily-media/2020/03/22/712x407/Home_office_work.jpg)

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের মিছিল থামছেই না। এটি গোটা বিশ্বে অত্যাধিক পরিমাণে ছড়িয়ে পড়ায় প্রতি মুহূর্তে সবাই করোনার আতঙ্কে ভুগছে। এই ভাইরাসে দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ায় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস, পাবলিক প্লেসগুলো কয়েক দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্টও বাতিল করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে অনেক অফিস কর্তৃপক্ষ বাড়ি থেকে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছে। কারণ, এই মূহূর্তে বাড়ি থেকে কাজ করাই নিরাপদ বিকল্প হতে পারে মনে করা হচ্ছে।

এখন আপনিও চিন্তা করতেই পারেন, বাড়িতে থেকে কীভাবে দক্ষতার সঙ্গে কাজ করবেন। নিম্নে বাড়িতে থেকে অনায়াসে কাজ করার কিছু পরামর্শ দেওয়া হলো-

ফোন এবং ল্যাপটপে চার্জ রাখুন

আপনার ফোন এবং ল্যাপটপে চার্জ আছে কি না-তা নিশ্চিত করা দরকার, যাতে কারেন্ট না থাকলেও আপনার কাজ ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। কারণ, আপনি যখন আপনার কর্মক্ষেত্রে থাকেন, তখন সেখানে ভালো ব্যাকআপ সিস্টেম থাকে। হয়তো আপনার ঘরেও ব্যাকআপ সিস্টেম থাকতে পারে। তবে আগে থেকে প্রস্তুত থাকা ভালো।

ওয়ার্কস্পেস ঠিক করুন

সাধারণত আমরা যখন বাড়ি থেকে কাজ করি তখন আমরা বিছানায় আরাম করে বসে ল্যাপটপ নিয়ে কাজ করি। কিন্তু এটা না করে আপনি আপনার জন্য একটি ওয়ার্কস্পেস সেট করতে পারেন, তাহলে আপনার কাজের প্রতি মনোযোগ বাড়বে। তবে এর অর্থ এই নয়, আপনার পৃথক কেবিন এবং ওয়ার্কডেস্ক থাকতে হবে। আপনি নিজের লিভিং রুম বা শোয়ার ঘরের এক কোণেও আপনার কর্মক্ষেত্রটি সেট করতে পারেন। তার জন্য একটি টেবিল এবং চেয়ারের ব্যবস্থা করুন, যেখানে আপনি শান্তিতে বসে কাজ করতে পারবেন। ভালোভাবে কাজ করার জন্য নিজেকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করতে একটি কর্মক্ষেত্র স্থাপন করা অত্যন্ত জরুরি।

মনে করুন আপনি অফিসে বসে কাজ করছেন

অনেক সময় ঘরে বসে আমরা অফিসের কাজের দিকে মনোনিবেশ করতে পারি না। সহজেই বিরক্ত হয়ে উঠি। তাই অফিসে যাওয়ার আগে আপনি যেমন স্নান করে, পরিষ্কার পোশাক পরে রেডি হয়ে বের হন, ঠিক তেমনই বাড়িতেও তাই করুন। সকালে উঠে ফ্রেশ হয়ে, ব্রেকফাস্ট সেরে মন দিয়ে কাজ করতে বসুন। সাধারণ দিনগুলোতে আপনার কর্মক্ষেত্রে আপনি যেমনটা করতেন তেমনটাই বাড়িতেও করুন।

একটি রুটিন তৈরি করুন

বাড়িতে থেকে কাজ করা সত্যিই কার্যকর এবং ফলপ্রসূ হতে পারে যদি আপনি একটি যথাযথ রুটিন মেনে চলেন, যে রুটিনের মধ্যে আপনার কাজের সময় এবং ব্রেক অন্তর্ভুক্ত থাকবে। বাড়ি থেকে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হলো মানে এই নয় যে আপনি যখন ইচ্ছা হবে তখন কাজ করবেন। চেষ্টা করুন, অফিসের সময়ে আপনার কাজ শুরু করার এবং সেই অনুযায়ী বিরতি নেওয়ার। এতে আপনি আপনার সময়সীমা এবং লক্ষ্যগুলো পূরণ করতে সক্ষম হবেন।

আপনার পরিবারের সদস্য / রুমমেট / ফ্ল্যাটমেটকে আপনার কাজের বিষয়টি জানান

যেহেতু আপনি বাড়িতে থেকে আপনার অফিসের কাজ করছেন, তাই এটি সত্য যে আপনি অনেক বাধার সম্মুখীন হবেন। উদাহরণস্বরূপ, আপনার সন্তান এবং আপনার পরিবারের সদস্যরা আপনার সঙ্গে সময় কাটাতে চাইতে পারে, আপনার রুমমেট এবং ফ্ল্যাটমেট আপনাকে সিনেমা দেখতে বা গেম খেলতে ডাকতে পারে।

সুতরাং, এটি স্পষ্ট যে আপনি অফিসের মতো শান্তিপূর্ণ এবং পেশাদার পরিবেশ নাও পেতে পারেন। বিশেষত যদি আপনি একা না থাকেন। তাই আপনার পরিবারের সদস্য, রুমমেট এবং ফ্ল্যাটমেটকে আপনার কাজের বিষয়টি জানান এবং বোঝান।

আপনার টিমের সঙ্গে সংযুক্ত থাকুন

আপনি বাড়ি থেকে কাজ করুন বা অফিসে থেকে কাজ করুন, আপনার টিমের সদস্যদের সঙ্গে সংযুক্ত থাকা আবশ্যক। আপনি যদি ভাবেন, বাড়ি থেকে কাজ করা আপনাকে আপনার টিমের সদস্যদের থেকে আলাদা করে দেবে, তবে এটি ভুল ভাবনা। আপনি তাদের সঙ্গে ভিডিও কল, ইমেইল এবং মেসেজের মাধ্যমে সংযুক্ত থাকতে পারেন। এ ছাড়া আপনি চ্যাটের মাধ্যমে সবকিছু শেয়ার করতে পারেন এবং কাজের বিষয়ে আলোচনা করতে পারেন।

আপনার কাজের রিপোর্ট শেয়ার করুন

আপনার লক্ষ্য এবং কাজের রিপোর্ট আপনার সহকর্মী ও রিপোর্টিং ম্যানেজারের সঙ্গে শেয়ার করা প্রয়োজন। আপনি ঘরে বসে কাজ করছেন বলে এই নয় যে, আপনাকে কাজের আপডেট দিতে হবে না। তাই সময়ে-সময়ে আপডেট দিতে থাকুন।

কাজের নীতি এবং শিষ্টাচার অনুসরণ করুন

আপনি নিজের অফিসে আছেন কিংবা বাড়িতে আছেন তা বিবেচ্য নয়, কাজ করার সময় আপনার কাজের নৈতিকতা এবং শিষ্টাচারগুলো অনুসরণ করা দরকার। আপনি যদি চ্যাট, ভিডিও কল বা মেইল করতে চান-তবে সেই সময় এর জন্য উপযুক্ত কি না-তার দিকে খেয়াল রাখুন। এ ছাড়া আপনি যদি অনলাইন মিটিং-এ অংশ নেন, তবে আপনার নাইট স্যুট বা ঘরের সাধারণ পোশাক পরা এড়ান।

টিমের সদস্যদের উৎসাহিত করুন

যেহেতু করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব নিয়ে প্রত্যেকেই কম-বেশি হতাশ এবং আতঙ্কিত রয়েছে, তাই আপনাকে আপনার উৎসাহ বজায় রাখা উচিত এবং আপনার টিমের সদস্যদের কাজের জন্য উৎসাহিত করুন এবং শান্ত থাকার জন্য বলুন। সহকর্মীদের বা জুনিয়রদের সামান্য ভুলের জন্য তাদের নেতিবাচক মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন। এটি কাজের প্রতি উৎসাহ বজায় রাখতে এবং কাজটি ভালোভাবে চালিয়ে যেতে সাহায্য করবে।

Source: http://www.dainikamadershomoy.com/post/247415