ঈদ মানেই আমার মায়ের স্বর্গময় সুখের হাসিঁ

Author Topic: ঈদ মানেই আমার মায়ের স্বর্গময় সুখের হাসিঁ  (Read 143 times)

Offline Mohammad Nazrul Islam

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 143
  • Test
    • View Profile
‘দেনা-পাওনার জীবনে আনন্দ-মূখর আরও একটি দিন ‘পবিত্র ঈদ-উল আযহা-২০২১ ইং কেঁটে গেল গত ২১শে জুলাই রোজ বুধবার। যদিও এবারকার ঈদ-আনন্দ করোনা নামক মরণব্যাধির যাতাকলে চাপা পড়ে বিদীর্ণ, তবু হাসিঁ-কাঁন্নার দুনিয়ায় গরিবের ঈদআনন্দ জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণের শ্বাস-প্রশ্বাস। কর্ম-ব্যস্ত জীবনে, ঈদের এই ক্ষণিক আনন্দ নিম্ন কিম্বা নিম্ন-মধ্যবিত্তদের কাছেই স্বর্গময় সুখ তুল্য।

ঈদ পালনে কর্ম-ব্যস্ত প্রতিটি নিম্ন কিম্বা নিম্ন-মধ্যবিত্ত শহরমূখী মানুষ তাদের ঘর্মাক্ত দেহ নিয়ে ছুটে চলে যান জন্মের শিকড়ে ‘শান্তির নীড় ছোট ছোট গ্রাম গুলোতে’ প্রিয়জনের মূখ দর্শনের জন্য। একযুগ-দুইযুগ পর দেখা অবহেলিত সেই মুখখানা কারও কাছে হয়ে উঠে স্বর্গের বাতায়নসম।

কোন কোন ক্ষেত্রে বয়োঃবৃদ্ধ বাবা-মা, দাদা-দাদী কিম্বা নানা-নানী তার একমাত্র সহায়কে কাছে পেয়ে নব-জাতক শিশুর মত সোহাগে কেঁদে উঠেন ‘-অত দিনে আমার খোঁজ নিলি বাবা-এই সুরে। শুরু হয় আদর-সোগাহের মান-ভাঙ্গানীর পালা। এই মান-ভাঙ্গানীর পালাবদলে আচ্ছ্বাশিত হয় ঈদ-আনন্দধারা।

ঈদের দুই-একদিনের এই আনন্দধারা যেন, খড়স্রোত নদীর প্রবাহে মলিন হয়ে যায় মুহূর্তের মধ্যে। আবার এই ক্লান্ত, পরিশ্রমী, সুবিধা বঞ্চিত, অনাথা শ্রেনীর মানুষ গুলোর মনের আবেগ ফুরাতে-না-ফুরাতেই পেটের টানে ফিরে আসতে হয় শহরের কর্মময় রোদ্রতপ্তের চির অব্যস্ত বাস্তবতায় ছায়ায়। এ যেন কবি কাজী নজরুলের ‘প্যাঁচার সুখ-দুঃখের কল্প-কাহিনী।

অন্যদিকে, অভিজাত শ্রেনীর কাছে ঈদের আনন্দ অনেকটাই ‘পান্তা ভাতে ঘি ঢালার মত। এই শ্রেনীর মানুষেরা অনেকটাই টাকার ‘গোলাম। ওদের জীবনঘড়ি চলে- টাকার সেকেন্ডে। টাকার নেশায় তারা দয়া-মায়া বঞ্চিত। তারা অর্থের কাছে জীবন বিক্রি করে শূন্য পাত্র হাতে চাঁদের আলোয় সুখ-খোঁজে। এর ফলাফলে দেখা যায় কোটিপতি বয়োঃবৃদ্ধ পিতা-মাতাকে শেষ বয়সে আশ্রয় নিতে হয় অনাথ-আশ্রমে কিম্বা মেনে নিতে হয় পৃথিবীর নিকৃষ্ঠতম যন্ত্রণা দায়ক মৃত্যূকে। ছেলে-পিতা-মাতা, কিম্বা-পিতা-মাতা ছেলের মুখে দেখা থেকে বঞ্চিত হন মৃত্যু নামক কঠিন সময়টিতেও। তাদের কাছে ঈদ কেন? কোন আনন্দই প্রশান্তিময় নয়।

জীবন বঞ্চনার ইতিহসে নিম্ন কিম্বা নিম্ন-মধ্যবিত্তরা কালের স্বাক্ষী। ঈদ মানেই তাদের কাছে গ্রামে ফেলে আসা বয়োঃবৃদ্ধ মা-বাবা কাঁন্নাভরা আদর- সোহাগের সুরধ্বনি। কিম্বা ছোট বেলার মায়ের ‘আচঁলে মুখ মুছার গল্প’। তাই ঈদ মানেই আমার মায়ের স্বর্গময় সুখের হাসিঁ; মাগো আমি তোমায় ভালবাসি।
« Last Edit: July 29, 2021, 03:11:54 PM by Mohammad Nazrul Islam »