ঠোঁটের কোমলতায়

Author Topic: ঠোঁটের কোমলতায়  (Read 427 times)

Offline Kanij Nahar Deepa

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 291
  • Faculty
    • View Profile
ঠোঁটের কোমলতায়
« on: December 02, 2013, 11:33:17 AM »
আপনি কি মনে প্রাণভরা হাসি নিয়েও আজকাল হাসতে কার্পণ্য করছেন? আপনাকেই তো খুঁজছি। কী করে হাসিমাখা মুখটি নিয়ে প্রকৃতির এ সময়ের রুক্ষতাকে জয় করবেন, তা নিয়ে রূপনকশার আয়োজনে আপনাকে স্বাগত। শীতের আমেজ প্রথম ধরা পড়ে আমাদের ত্বকে। ত্বকের একটি স্পর্শকাতর অংশ হলো ঠোঁট। তাই শীত আসার আগেই চাই এর যত্ন।
রূপবিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমিন বলেন, শীতে ঠোঁটের জন্য প্রয়োজন একটু বাড়তি পরিচর্যা। তেমন কিছুই নয়, হাতের কাছে লিপবাম কিংবা পেট্রোলিয়াম জেলিটা মজুত রাখলেই হয়ে গেল অর্ধেক কাজ। শীতের শুরু থেকেই যদি এদিকে নজর দেওয়া হয়, তাহলে পুরো শীতজুড়ে ফল পাওয়া যায়। যাঁরা লিপবাম আর পেট্রোলিয়াম জেলি লাগানোর কাজ করতে আলসেমি করেছেন, তাঁদের ঠোঁটের জন্য তো কিছুটা বাড়তি যত্ন লাগবেই।
শীতে আপনার ঠোঁট ফাটা আর ঠোঁটের রুক্ষতা ঠেকানোর জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন তানজিমা শারমিন।
l ঠোঁটের কোমলতা ধরে রাখতে প্রতিদিন নিয়ম করে লিপবাম ব্যবহার করুন। লিপবাম ব্যবহারের আগে অবশ্যই ঠোঁট পরিষ্কার করে নিন। ঠোঁটে অযথা ঘষাঘষি করবেন না। তুলা ভিজিয়ে আলতোভাবে ঠোঁট পরিষ্কার করুন।

l ঠোঁটের পরিচর্যায় পেট্রোলিয়াম জেলির ব্যবহার হয় বেশি। তবে দিনের বেলায় পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার না করাই ভালো। আঠালো হওয়ার কারণে এতে খুব সহজে ধুলাবালি আটকে যায়, যা থেকে ঠোঁটে রোগ সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই রাতের বেলা ঘুমের আগে ঠোঁটে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান। এতে পুরো রাত ধরে ঠোঁট তার পুষ্টি পাবে। সকালবেলা আপনি নিজেই নিজের কোমল অনুভূতি টের পাবেন।

l শীতের রোদ যত মিঠেই মনে হোক, শীতে দিনের বেলায় লিপবাম হিসেবে এসপিএফ-১৫ (সান প্রটেকটিভ ফ্যাক্টর)-সহ লিপবাম বেছে নিন। লিপস্টিকের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। এতে ঠোঁট রোদে পোড়া থেকে রেহাই পাবে।

l শীত বলেই যে ঠোঁট সাজাতে মানা তা কিন্তু নয়। এ সময় আপনার ইচ্ছেমতো রঙের লিপস্টিক লাগাতে পারেন। তবে গরমের ম্যাট লিপস্টিকটা সযতনে তুলে রাখুন। লিপস্টিক হিসেবে ক্রিমি লিপস্টিক বেছে নিন। লিপস্টিক ব্যবহারের আগে লিপবাম লাগিয়ে নিন। আবার শুধু লিপ গ্লসও লাগাতে পারেন।

l যাঁদের ঠোঁটের রুক্ষতা বেশি, তাঁরা লিপবাম বা পেট্রোলিয়াম জেলির পরিবর্তে লিপবাটার ও নারকেল তেল লাগালে উপকার পাবেন। ঠোঁটের কোমলতার জন্য খাঁটি ঘি ও মাখনও লাগাতে পারেন।

l শীতে ঠোঁটের কালো ভাব দূর করতে রাতে মধু, গ্লিসারিন ও গোলাপজল একসঙ্গে মিশিয়ে তুলার সাহায্যে লাগাতে পারেন। এতে ঠোঁটের কোমলতা ও উজ্জ্বলতা দুই-ই বাড়বে।

l শীতে ঠোঁটের স্বাভাবিক রং ধরে রাখতে রাতে গোলাপের পাপড়ি পেস্ট ও মধু একসঙ্গে মিশিয়ে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। এরপর হালকা ভেজা অবস্থায় পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান।

l ঠোঁটের সৌন্দর্য ধরে রাখতে দুধের সর, লেবুর রস ও চন্দন একসঙ্গে মিশিয়ে ঠোঁটে লাগিয়ে মিনিট দশেক রেখে ধুয়ে ফেলুন। এরপর লিপবাম লাগান।

l যাঁদের ঠোঁট এর মধ্যেই ফেটে গেছে, তাঁরা কুসুম গরম পানিতে তুলা ভিজিয়ে আলতোভাবে ঘষে বাড়তি চামড়া ধীরে ধীরে তুলে নিন। এরপর পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান। মাখনও লাগাতে পারেন।

l যাঁদের ঠোঁট দ্রত শুষ্ক হয়ে যায়, তাঁরা জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজানো থেকে বিরত থাকুন। আপনার হাতব্যাগ কিংবা পকেটে সব সময় একটি লিপবাম রেখে দিন। কিছু সময় পর পর ঠোঁটে এর পরশ বুলিয়ে নিন।
Kanij Nahar Deepa
Lecturer
Dept. of Pharmacy
Daffodil International University