Wonderful Places in the World

Author Topic: Wonderful Places in the World  (Read 874 times)

Offline arefin

  • Hero Member
  • *****
  • Posts: 1173
  • Associate Professor, Dept. of ETE, FE
    • View Profile
Wonderful Places in the World
« on: June 05, 2014, 11:24:30 AM »

গ্রেট ওয়াল, চীন:
সাড়ে ছয় হাজার কিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত চীনের এ মহাপ্রাচীরটি বিশ্বের মানবসৃষ্ট অন্যতম বড় নিদর্শন।


তাজ মহল, ভারত:
মর্মর প্রস্তর নির্মিত এ স্থাপনাটি বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর বিল্ডিং বলে খ্যাত। ১৭ শতকে মোগল সম্রান শাহ জাহান তার স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ এ স্থাপনাটি বানান।



কৈলাস মন্দির, ভারত:
হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দেবতা শিবের জন্য উৎসর্গকৃত মন্দির কৈলাস। সাত হাজার শ্রমিক দেড়শ বছর ধরে খোদাই করে তৈরি করেছে বিশ্বের বৃহত্তম এ একক পাথরের স্থাপনাটি।



টেরাকোটা আর্মি, চীন:
আট হাজার সৈন্য, ৬৭০টি ঘোড়া ও ১৩০টি রথের সমন্বয়ে এ পোড়ামাটির সৈন্যবাহিনী গঠিত হয়েছে। খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় শতকে নির্মিত এগুলো।



গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র:
যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোতে ২৯ কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া ও ১.৬ কিলোমিটার পর্যন্ত গভীর এলাকায় শুষ্ক এ গিরিখাতটি অবস্থিত।


হ্যাগিয়া সোফিয়া, তুরস্ক:
এটি তুরস্কের একটি ঐতিহাসিক ধর্মীয় স্থাপনা। এটি প্রায় এক হাজার বছর বিশ্বের বৃহত্তম ক্যাথেড্রালের স্থান দখল করে ছিল।



গ্রেট ব্লু হোল, বেলিজ:
স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ পানির ১২৫ মিটার গভীরে ৩১০ মিটার চওড়া এ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত এলাকাটি ডাইভারদের জন্য অসাধারণ একটি এলাকা।



গ্রেট রিফট ভ্যালি, ইথিওপিয়া:
প্রায় ছয় হাজার কিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত এ এলাকাটি বিশ্বের বৃহত্তম ফাটলের ফলে সৃষ্ট উপত্যকা। রেড সি থেকে লেক মালাউয়ি পর্যন্ত বিস্তৃত এ এলাকাটি ৭৫ কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া।



পোটালা প্যালেস, তিব্বত:
দালাই লামার বাসস্থান ও বিশ্বের উচ্চতম রাজপ্রাসাদ এটি। ৫০ বছর লেগেছে ৩৭০০ মিটার উঁচু ১৩ তলা বিশিষ্ট প্রাসাদটি তৈরি করতে। এ ছাড়াও এতে রয়েছে এক হাজার কক্ষ।



ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত, জিম্বাবুয়ে/জাম্বিয়া:
জিম্বাবুয়ে ও জাম্বিয়ার সীমান্তে অবস্থিত এ জলপ্রপাত বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণীয় জলপ্রপাত।


মরেনো হিমবাহ, আর্জেন্টিনা:
আর্জেন্টিনার দক্ষিণ-পশ্চিম সান্তা ক্রুজ এলাকায় পেরিতো মোরিনো হিমবাহ।



কিলাউইয়া, হাওয়াই:
বিশ্বের সবচেয়ে সক্রিয় আগ্নেয়গিরি। গত তিন দশক ধরে এটা ক্রমাগত উদগিরণ করে যাচ্ছে।




এনগরংগরো আগ্নেয়গিরি জ্বালামুখ, তানজানিয়া:
২৬০ বর্গকিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত ৬১০ মিটার গভীর এ এলাকাটি বিশ্বের বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি সৃষ্ট গর্ত, যা পানিতে তলিয়ে যায়নি। এ এলাকার নীল ও সবুজ রং এবং বৈচিত্রময় প্রাণীজগত এ এলাকাকে বিশ্বের অন্যতম অপূর্ব এলাকায় পরিণত করেছে।



See more at: http://www.kalerkantho.com/photo-gallery/forepics/34/14#sthash.hmU5nmTh.dpuf


« Last Edit: June 05, 2014, 12:33:03 PM by arefin »
“Allahumma inni as'aluka 'Ilman naafi'an, wa rizqan tayyiban, wa 'amalan mutaqabbalan”

O Allah! I ask You for knowledge that is of benefit, a good provision and deeds that will be accepted. [Ibne Majah & Others]
.............................
Taslim Arefin
Assistant Professor
Dept. of ETE, FE
DIU