সবচেয়ে ঘুমকাতুরে প্রাণী

Author Topic: সবচেয়ে ঘুমকাতুরে প্রাণী  (Read 416 times)

Offline shirin.ns

  • Sr. Member
  • ****
  • Posts: 343
  • Test
    • View Profile
কোন প্রাণী সবচেয়ে বেশি অলস? এ প্রশ্নের উত্তরে কারও মনে পড়বে দক্ষিণ আফ্রিকার গেছো প্রাণী স্লথের নাম। আবার কেউ হয়তো বলবেন নিজের পোষা বিড়ালের কথাই। কিন্তু পৃথিবীর সত্যিকারের সবচেয়ে ঘুমকাতুরে ও আলসে প্রাণীর নামটা আপনার কাছে খুব অপ্রত্যাশিত মনে হতে পারে।
সবদিকের বিবেচনায় প্রাণিকুলের মধ্যে ‘অলসশিরোমণি’ নির্বাচন করা আসলে সহজ নয়। কারণ একেক প্রাণীর ঘুমানোর ধরন একেক রকম। সাধারণ ধারণা হচ্ছে, ঘুমের সময় অধিকাংশ প্রাণী কার্যত নিশ্চল থাকে। আর তাদের মাংসপেশি থাকে শিথিল। কিন্তু এটা কোনো বাঁধাধরা বিষয় নয়। কিছু পাখি ঘুমের মধ্যে উড়তে পর্যন্ত পারে। তবে তখন তাদের মস্তিষ্কের অর্ধেক সজাগ থাকে।
যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে অবস্থিত ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইউসিএলএ) নিদ্রা গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক জেরোম সিগেল বলেন, ঘুমের মধ্য দিয়ে প্রাণীরা বাড়তি প্রাণশক্তি ও কর্মক্ষমতা অর্জন করে। কোনো প্রাণী কম ঘুমায়, আবার কোনো প্রাণী বেশি ঘুমাতে পছন্দ করে। যেসব প্রাণী কম ক্যালরির খাবার খায়, তাদের ঘুমের পরিমাণও তুলনামূলক কম হয়ে থাকে।
বিজ্ঞানীরা বলেন, কোনো কোনো প্রাণী কম ঘুমিয়ে শিকারি প্রাণীদের আক্রমণ থেকে আত্মরক্ষার চেষ্টা করে। সাধারণত তৃণভোজী প্রাণীরা মাংসাশীদের চেয়ে কম ঘুমায়। কারণ জাবর কাটতে অনেক সময় লাগে তাদের। ১৯৭০-এর দশকের এক গবেষণায় দেখা যায়, জিরাফ দিনে মাত্র পাঁচ থেকে ৩০ মিনিট ঘুমায়।
বড় শিকারি প্রাণীদের মধ্যে সিংহের ঘুমের খ্যাতি রয়েছে। এরা দিনের বেশির ভাগ সময় শুয়ে-বসে কাটাতে পছন্দ করে। বন্দী অবস্থায় সিংহ দিনে ১০ থেকে ১৫ ঘণ্টা পর্যন্ত ঘুমিয়ে থাকে। তবে তারা প্রয়োজনে কম ঘুমিয়েও দিব্যি সুস্থ থাকে।
বন্য প্রাণীদের নিদ্রাভ্যাস নিয়ে বিজ্ঞানীরা নানা ধরনের গবেষণা করেছেন। এতে বিচিত্র রকমের তথ্যও পাওয়া যায়। যেমন বড় আকারের আর্মাডিলো দিনে গড়ে ১৮ ঘণ্টাই তাদের মাটির নিচের গর্তে কাটায়। তবে তার মানে এই না যে পুরোটা সময়ই তারা ঘুমিয়ে থাকে।
অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যে কোয়ালার ওপর পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা যায়, লোমশ ছোট এই আদুরে চেহারার প্রাণী দিনে প্রায় সাড়ে ১৪ ঘণ্টা ঘুমায় এবং আরও পাঁচ ঘণ্টা ‘বিশ্রাম নেয়’। মেলবোর্নের লা ট্রোব বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক জন লেস্কু বলেন, লোমশ আর্মাডিলো দিনে ২০ ঘণ্টা ১০ মিনিট পর্যন্ত ঘুমাতে পারে। আর এক প্রজাতির ছোট্ট ইঁদুর প্রতিদিন ঘুমায় ২০ ঘণ্টা ১০ মিনিট পর্যন্ত।
১৯৬৯ সালের এক গবেষণায় দেখা যায়, এক জাতের ছোট বাদামি বাদুড় দিনে প্রায় ২০ ঘণ্টা ঘুমাতে পারে। তবে এমনও হতে পারে, এসব প্রাণী এই দীর্ঘ সময় চোখ বন্ধ থাকলেও কিছুটা সময় জেগেও থাকে। ঘুমকাতুরে বলে খ্যাত স্লথ দিনে ১৫ ঘণ্টার বেশি ঘুমায়। তবে ২০০৮ সালের এক গবেষণায় এদের দিনে ১০ ঘণ্টারও কম ঘুমানোর নজিরও মিলেছে।
Shirin Sultana
Lecturer (Mathematics)
Dept. of General Educational Development (GED)
Daffodil International university