For additional anger in your diet 4

Author Topic: For additional anger in your diet 4  (Read 299 times)

Offline yousuf miah

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 172
    • View Profile
For additional anger in your diet 4
« on: March 13, 2016, 09:59:19 AM »


(প্রিয়.কম)- প্রচলিত আছে “ রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন”। কিন্তু সবসময় কি রাগ নিয়ন্ত্রণ করা যায়? যায় না। আবার অনেকে আছেন যারা হুট করে রেগে যান। রাগ বিষয়টিকে আমরা আবেগ বলে মনে করে থাকলেও কখনও কখনও আমাদের খাবার এবং হজমের সাথে এটি জড়িত থাকে। কিছু কিছু খাবার আছে যা নিয়মিত খেলে শরীরের রাগের হরমোন নিঃসরণ করে আপনাকে রাগিয়ে দিয়ে থাকে। এমন কিছু খাবারের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া যাক।

১। কফি

কফির উপাদান আপনাকে খামখেয়ালি করে তোলে। অতিকরিক্ত কফি পান আপনাকে হুট করে রাগিয়ে তুলতে পারে। এমনকি কফি আমাদের অনেক বেশি এ্যানার্জি দিয়ে থাকে যা অনেক সময় রাগের মাধ্যমে প্রকাশ পেয়ে থাকে। তাই দিনে ২-৩ কাপের বেশি কফি পান করা উচিত নয়।

২।  ট্র্যান্স ফ্যাট

University of California এক গবেষণায় দেখছে যে, যারা বেশি পরিমাণে ট্র্যান্স ফ্যাট যুক্ত খাবার খেয়ে থাকেন, তারা দ্রুত রেগে যান। কারণ এটি দেহে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড নষ্ট  করে দেয়। ওমেগা থ্রি অভাব শুধু হতাশা তৈরি করে না, এর সাথে নানা অ্যান্টি সোশ্যাল কার্যকলাপে জড়িয়ে থাকে। আমরা অনেক সময় নিজেদের অজান্তেই ট্যান্স ফ্যাটযুক্ত খাবার খেয়ে থাকি, যেমন আলুর চিপস, ফ্রোজেন ফুডস, ভাজা কুকিস ইত্যাদি, যাতে ৩০ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ট্যান্স ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে।  আমেরিকান জনপ্রিয় খাবার ডোনাটেসে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত ট্যান্স ফ্যাট রয়েছে। 

৩। প্রসোসেড কার্বোহাইড্রেড এবং চিনির বিকল্প খাবার

প্রসোসেড ফুড আরেকটি অন্যতম খাবার যা আপনাকে রাগিয়ে দিতে পারে। পুষ্টিবিদ নাটালি ডুহামেল এর মতে প্রসোসেড কার্বোহাইড্রেড ক্যান্সার, ডায়াবেটিস, হৃদপিণ্ডের সমস্যা ছাড়াও বিষণ্ণতা, হতাশা তৈরি করে থাকে। যা থেকে রাগের সৃষ্টি হয়। Dr. Alex Richardson of Oxford University মনে করেন “যখন দেহের রক্তের সুগারের মাত্রা নেমে যায় তখন তা আমাদের আবেগের ওপর প্রভাব বিস্তার করে এবং এই কারণে অনেকে বিষণ্ণ, রাগী, হয়ে যান যা অন্যের উপর খাটাতেই মানুষ পছন্দ করে থাকেন’।

৪। ঝাল জাতীয় খাবার

ঝাল জাতীয় খাবার আপনাকে রাগিয়ে দিয়ে থাকে। আপনি যদি রেগে থাকেন, তবে ঝাল জাতীয় খাবার আপনাকে আরও বেশি রাগিয়ে দিবে। রাগান্বিত অবস্থায় ঝাল জাতীয় খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

শুধু খাবার নয়, অনেক সময় না খেয়ে থাকার কারণেও রেগে যেতে পারেন যখন তখন। দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকলে  শরীরে ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাংগানিজ, ভিটামিন সি ও ভিটামিন বি আরও অনেক পুষ্টি উপাদানের অভাব দেখা দিয়ে থাকে। যার কারণে মেজাজ খিটখিটে হয়ে যায়, এবং আপনি রেগে উঠেন।