আল্লাহ আদম (আঃ) কে সকল কিছুর নাম শেখালেন

Author Topic: আল্লাহ আদম (আঃ) কে সকল কিছুর নাম শেখালেন  (Read 142 times)

Offline ashraful.diss

  • Full Member
  • ***
  • Posts: 104
  • 'শীঘ্রই রব তোমাকে এত দিবেন যে তুমি খুশি হয়ে যাবে'
    • View Profile
আল্লাহ আদম (আঃ) কে সকল কিছুর নাম শেখালেন

আল্লাহ সুবহানাতায়ালা আদম আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সবকিছুর নাম শিখিয়ে দিলেন। সব মানুষ এবং সব বস্তুর নাম তার জানা আছে। তারপর আল্লাহ তায়ালা ফেরেশতাদেরকে কিছু জিনিসের নাম জিজ্ঞেস করলেন, তারা উত্তরে বলল আল্লাহ আপনি সর্ব জ্ঞানী, আমরা তো শুধু ততটুকই জানি যা আপনি আমাদেরকে শিখিয়েছেন। তারপর, আল্লাহ আদম আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সেইসব জিনিসের নাম জিজ্ঞেস করলেন, সে ফেরেশতাদের সামনে সেগুলোর নাম বলে দিলেন। ফলে এলমের ফযীলতের কারণে সম্মানার্থে আদমকে সিজদা করতে আল্লাহ পাক নির্দেশ দিলে সমস্ত ফেরেশতারা সিজদায় পড়ে গেল। তাফসীরে জালালাইন শরীফের হাশিয়ায় লেখা আছে, ফেরেশতারা আদম (আঃ)-এর দিকে পাঁচশত বৎসর পর্যন্ত সিজদায় পড়ে রইল। কিন্তু ঐ মজলিসে ছিল ইবলিস। সে সিজদা করল না। এইভাবে, আল্লাহ ফেরেশতাদেরকে দেখিয়ে দিলেন যে তিনি আদম আলাইহি ওয়াসাল্লামকে এমন জ্ঞান দিয়েছিলেন যা তিনি ফেরেশতাদেরকেও দেন নি। তারপর আল্লাহ তা’আলা বললেন, যে তিনি জানেন কে কি প্রকাশ করে, আর কি কি গোপন করে – কোনো কিছুই তার জ্ঞানের আওতাধীন নয়। এইখানে একটি আশ্চর্যজনক ব্যাপার হল যে, তখন সেখানে ফেরেশতা এবং আদম আলাইহিস সালাম উপস্থিত ছিলেন আর তাদের মধ্যে গোপন করার কিছুই ছিল না। একমাত্র ইবলিসই সেইখানে উপস্থিত ছিল, যে তার মনের মধ্যে প্রচন্ড পরিমানে হিংসা ও অহংকার গোপন করে রেখেছিল, যা ঠিক পরের আয়াতগুলিতে স্পষ্ট হয়ে উঠে।

وَعَلَّمَ اٰدَمَ الۡاَسۡمَآءَ کُلَّہَا ثُمَّ عَرَضَہُمۡ عَلَی الۡمَلٰٓئِکَۃِ ۙ فَقَالَ اَنۡۢبِـُٔوۡنِیۡ بِاَسۡمَآءِ ہٰۤؤُلَآءِ اِنۡ کُنۡتُمۡ صٰدِقِیۡنَ
       
আর আল্লাহ তা’আলা শিখালেন আদমকে সমস্ত বস্তু-সামগ্রীর নাম। তারপর সে সমস্ত বস্তু-সামগ্রীকে ফেরেশতাদের সামনে উপস্থাপন করলেন। অতঃপর বললেন, আমাকে তোমরা এগুলোর নাম বলে দাও, যদি তোমরা সত্য হয়ে থাক।{সুরা আল-বাকারাঃ আয়াত ৩১}

قَالُوۡا سُبۡحٰنَکَ لَا عِلۡمَ لَنَاۤ اِلَّا مَا عَلَّمۡتَنَا ؕ اِنَّکَ اَنۡتَ الۡعَلِیۡمُ الۡحَکِیۡمُ
               
তারা বলল, তুমি পবিত্র! আমরা কোন কিছুই জানি না, তবে তুমি যা আমাদিগকে শিখিয়েছ (সেগুলো ব্যতীত) নিশ্চয় তুমিই প্রকৃত জ্ঞানসম্পন্ন, হেকমতওয়ালা।  {সূরা আল-বাকারা: আয়াত ৩২}

قَالَ یٰۤاٰدَمُ اَنۡۢبِئۡہُمۡ بِاَسۡمَآئِہِمۡ ۚ فَلَمَّاۤ اَنۡۢبَاَہُمۡ بِاَسۡمَآئِہِمۡ ۙ قَالَ اَلَمۡ اَقُلۡ لَّکُمۡ اِنِّیۡۤ اَعۡلَمُ غَیۡبَ السَّمٰوٰتِ وَالۡاَرۡضِ ۙ وَاَعۡلَمُ مَا تُبۡدُوۡنَ وَمَا کُنۡتُمۡ تَکۡتُمُوۡنَ

তিনি বললেন, হে আদম (আঃ), ফেরেশতাদেরকে বলে দাও এসবের নাম। তারপর যখন তিনি বলে দিলেন সে সবের নাম, তখন তিনি বললেন, আমি কি তোমাদেরকে বলিনি যে, আমি আসমান ও যমীনের যাবতীয় গোপন বিষয় সম্পর্কে খুব ভাল করেই অবগত রয়েছি? এবং সেসব বিষয়ও জানি যা তোমরা প্রকাশ কর, আর যা তোমরা গোপন কর! {সূরা আল-বাকারা: আয়াত ৩৩}

সুতরাং, ফেরেশতাগণ বুঝতে পারলো যে, আদম (আঃ) এমন এক সৃষ্টি যে অনেককিছুই জানে যা তারা নিজেরাও জানে না।

Mufti. Mohammad Ashraful Islam
Ethics Education Teacher, DISS
Khatib, Central Mosque, Daffodil Smart City
Ashuli , Savar, Dhaka